নাজিব রাজাকের বাসভবন ঘিরে রেখেছে পুলিশ

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১৩ মে ২০১৮, রোববার | সর্বশেষ আপডেট: ২:১৬
সদ্য ক্ষমতা হারানো মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাকের বেসরকারি বাসভবন চারদিক থেকে ঘেরাও করে রেখেছে পুলিশ। ওই বাড়িটি তামান দুতায় জালান লাঙ্গাক দুতায় অবস্থিত। আজ রোববার সকাল থেকেই সেখানে পুলিশি উপস্থিতি বাড়তে থাকে। ওই বাড়ির প্রবেশ ও বের হওয়ার পথগুলো বন্ধ করে দিয়েছে পুলিশ। এ খবর দিয়েছে মালয়েশিয়ার স্টার অনলাইন। বার্তা সংস্থা বার্নামা এ নিয়ে পুলিশের সেন্টুল উপপ্রধান কর্মকর্তা মোহাম্মদ রফিক মোহাম্মদ মুস্তাফার সঙ্গে যোগাযোগ করে।
তিনি জানান, সেন্টুল পুলিশ স্টেশনের পুলিশ কর্মকর্তাদেরকে নিরাপত্তা মনিটরিং করতে সেখানে মোতায়েন করা হয়েছে। তবে বিষয়টি যাচাই করার চেষ্টা করে বার্নামা। তাতে দেখা যায়, নাজিব রাজাকের বাসভবনে প্রবেশপথে অবস্থান করছে ৫ জন পুলিশ সদস্য। সেখানে চেকপোস্ট বসানো হয়েছে। এ ছাড়া রয়েছে একটি মোবাইল পুলিশ স্টেশন। ওই এলাকা দিয়ে যত গাড়ি ও ব্যক্তি যাচ্ছেন তাদের সবাইকে তল্লাশি করা হচ্ছে। উল্লেখ্য, বুধবার অনুষ্ঠিত পার্লামেন্ট নির্বাচনে ভয়াবহ ভরাডুবি ঘটে মালয়েশিয়ায় টানা ৬১ বছর ক্ষমতায় থাকা বারিশান ন্যাশনাল জোটের। এর জন্য দায়ী করা হয় নাজিব রাজাককে। তার দুর্নীতির অভিযোগ তুলে ২০১৬ সালে নিজের জোট বারিশান ন্যাশনাল থেকে পদত্যাগ করেন বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ড. মাহাথির মোহাম্মদ। তারপর তিনি নাজিব রাজাককে ক্ষমতাচ্যুত করতে হাত মেলান এক সময়ের ঘোর ‘শত্রু’তে পরিণত হওয়া আনোয়ার ইব্রাহিমের সঙ্গে। চুক্তি হয় তাদের মধ্যে। তার ফল পান তিনি নির্বাচনে। তবে নাজিব রাজাকের সবচেয়ে বেশি ক্ষতি যা করেছে তা হলো ‘১এমডিবি’ রাষ্ট্রীয় তহবিল থেকে প্রায় ৭০ কোটি ডলার আত্মসাতের অভিযোগ। এ বিষয়ে মালয়েশিয়ার বাইরে থেকে বিশ্বাসযোগ্য তথ্য প্রকাশ করা হয়। তখনই নাজিব রাজাকের বিরুদ্ধে অবস্থান নেন মাহাথির মোহাম্মদ। ওই বিষয়টি তদন্ত করার আগে যারা তদন্ত করবেন নাজিব সেই সব সরকারি কর্মকর্তাদের সরিয়ে দেন। ফলে তার ঘনিষ্ঠজনরা ওই কেলেঙ্কারির তদন্ত করেন। তার যে দুর্নীতির প্রতিবাদ জানিয়ে বারিশান ন্যাশনাল থেকে পদত্যাগ করেছিলেন মাহাথির, সেই দুর্নীতি দেখাশোনার জন্য অর্থ মন্ত্রণালয়ে একজন উপদেষ্টা নিয়োগ দেয়ার কথা মাহাথিরের। ফলে নাজিব রাজাক দায়মুক্তি পাবেন এমনটা ভাবার কোনো সুযোগ নেই। এখন দেখার ব্যাপার এই রাজনীতির পানি গড়ায় কতদূর।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

১০ বাংলাদেশি লিবীয় উপকূলে জীবিত উদ্ধার

প্যারিস বিমানবন্দরে ফ্রান্স টিম

ফ্রান্সের রাস্তায় রাস্তায় স্লোগান আমরা চ্যাম্পিয়ন

মামলা, পুলিশ কর্মকর্তার মাথায় পিস্তল ঠেকানোর অভিযোগ আওয়ামী লীগ নেতার বিরুদ্ধে

ওসমানী হাসপাতালে স্কুলছাত্রী ধর্ষিত, ইন্টার্ন চিকিৎসক আটক

বাংলাদেশের নির্বাচনে একপেশে নীতি ভারতের পক্ষে যাবে না

বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষকদের ওপর হামলা নজিরবিহীন

মার্কিন নির্বাচনে হস্তক্ষেপ করিনি

যারা শিক্ষকের ওপর আঙ্গুল তোলে তারা ছাত্র নামের কলঙ্ক

আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে নিরপেক্ষ থাকার নির্দেশ মাহবুব তালুকদারের

প্রত্যেক উপজেলায় ‘স্বতন্ত্র পরীক্ষা কেন্দ্র’ হচ্ছে

নিখোঁজ তারেকের সন্ধান চায় পরিবার

সরকারি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি বিটিআরসির

শফিককে জবাব দিতে মাঠে লুনা

নজর কাড়ার চেষ্টায় বিএনপি লিটন বলছেন মিথ্যাচার

২,১৫৪ জনে অনাপত্তি মিয়ানমারের তবে...