এলআরবি’র গানের সুর নকল করে পাকিস্তানে বিজ্ঞাপন

বিনোদন

স্টাফ রিপোর্টার | ১৭ মে ২০১৮, বৃহস্পতিবার
এলআরবির তুমুল জনপ্রিয় গান ‘সেই তুমি কেন এত অচেনা হলে’ গানের সুর ব্যবহার করেছে পাকিস্তানের একটি ফ্যাশন হাউজ। ক্রসস্টিচ নামের প্রতিষ্ঠানটি তাদের বিজ্ঞাপনচিত্রের আবহ সংগীত হিসেবে ব্যবহার করেছে এই গানের বাঁশি সংস্করণ। বিজ্ঞাপনটি পাকিস্তানের অনলাইন টেলিভিশন বিজম্যাক্স টিভি প্রচার করছে তাদের ফেসবুক পেজ আর ইনস্টাগ্রামে। গত সোমবার সন্ধ্যায় ক্রসস্টিচের এই বিজ্ঞাপনচিত্র পাবলিশ করে বিজম্যাক্স। এরপর এই অনলাইন টিভির ফেসবুক পেজে অনেকেই প্রতিবাদ করেছেন। তবে ২০১৬ সালের ৫ই জুলাই ২ মিনিট ৪৮ সেকেন্ডের এই বাঁশি সংস্করণটি ইউটিউবে প্রকাশ করেন রাকিবুল ইসলাম নামের এক তরুণ শিল্পী। বিষয়টি নিয়ে গিটার লিজেন্ড ও এলআরবি ব্যান্ডের প্রধান আইয়ুব বাচ্চু বলেন, বিষয়টি খুবই দুঃখজনক। আমি জানি না এরকম কাজের প্রতিবাদের ভাষা কি হতে পারে।
ওরা খুব খারাপ কাজ করেছে। তিনি আরো বলেন, সত্যি বলতে একদিক দিয়ে আমার কিন্তু গর্বও হচ্ছে। বাংলাদেশের মিউজিকের আশ্রয় নিতে হলো পাকিস্তানকে। ওরা সুর তৈরি করার ক্ষমতাও এখন হারিয়েছে। আইয়ুব বাচ্চু ঘটনা প্রসঙ্গে বলেন, যিনি এই বাঁশি সংস্করণটি ইউটিউবে ছেড়েছিলেন, তিনিও আমাদের কাছ থেকে কোনো অনুমতি নেননি। এখন বিশ্বায়নের যুগ। যে যেখান থেকে যেভাবে পারছে, নিচ্ছে। এ ব্যাপারে কোনো পদক্ষেপ নেবেন কিনা জানতে চাইলে আইয়ুব বাচ্চু বলেন, দেশে এবং দেশের বাইরে সবাই জানে গানটা আমাদের। গানটার কপিরাইটও করা আছে। এখনই কোনো সিদ্ধান্ত জানাচ্ছি না। তবে অবশ্যই কোনো পদক্ষেপ নেবো।





এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

রোহিঙ্গা ইস্যুতে সহায়তা দ্বিগুন করার ঘোষণা যুক্তরাষ্ট্রের

বৃহস্পতিবারের পরিবর্তে বিএনপির জনসভা শনিবার

মহাখালী বাস টার্মিনাল থেকে দূরপাল্লার বাস চলাচল বন্ধ

রোহিঙ্গা সংকট নিরসনে প্রধানমন্ত্রীর ৩ সুপারিশ

ছাত্রীর শ্লীলতাহানির অভিযোগে শিক্ষককে পুলিশে দিল এলাকাবাসী

ফিফা বর্ষসেরা মদরিচ

মীরসরাইয়ে সড়কে দুর্ঘটনায় নিহত ৫

কথিত ‘অবৈধ বাংলাদেশীদের’ এক নম্বর শত্রু বানাতে চায় বিজেপি

‘এখনই বিয়ে করতে চাই না’

বৃহত্তর ঐক্যের কর্মসূচি প্রণয়নে লিয়াজোঁ কমিটি হচ্ছে

বিমানবন্দরে আত্মহত্যার চেষ্টা করা রুনা বললেন আমি মরতে চাই

দুর্নীতিবাজদের নিয়ে জোট করে সরকার উৎখাতের চেষ্টা হচ্ছে

সহস্রাধিক সাইট পেজে নজরদারি

সাধারণের ভোট ভাবনা

মেজর (অব.) মান্নানকে দুদকে তলব

ডিজিটাল আইন স্বাধীন সাংবাদিকতার অন্তরায়