রেকর্ডসংখ্যক জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১৯ জুন ২০১৮, মঙ্গলবার
জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত মানুষের সংখ্যা রেকর্ড গড়েছে। ২০১৭ সালে তাদের সংখ্যা ৬ কোটি ৮৫ লাখ। এর মধ্যে মিয়ানমার থেকে প্রায় ৭ লাখ রোহিঙ্গার পালিয়ে এসে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে। যুদ্ধ, অন্যান্য সহিংসতা ও নির্যাতনের মুখে পঞ্চম বছরের মতো নতুন রেকর্ড গড়েছে বিশ্বব্যাপী জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত মানুষের সংখ্যা। এ সঙ্কটের শীর্ষে আছে কঙ্গো, দক্ষিণ সুদানের যুদ্ধ ও বাংলাদেশে রোহিঙ্গাদের দলে দলে ছুটে আসা। এর ফলে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে উন্নয়নশীলের কাতারে উঠে আসা দেশগুলো।
জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক এজেন্সি ইউএনএইচসিআর মঙ্গলবার তাদের বার্ষিক প্রতিবেদন গ্লোবাল ট্রেন্ডস-এ এসব কথা বলেছে। এতে বলা হয়েছে ২০১৭ সালের শেষ নাগাদ যেসব মানুষ জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত হয়েছে তার মধ্যে এক কোটি ৬২ লাখ মানুষ হয়তো প্রথমবারের মতো না হয় পুনর্বার বাস্তুচ্যুত হয়েছে। এ থেকে ইঙ্গিত মেলে যে, বিপুল সংখ্যক মানুষকে তার আশ্রয়য়ের জন্য ছুটতে হচ্ছে। এর অর্থ হলো প্রতিদিনি বিশ্বে বাস্তুচ্যুত হচ্ছে ৪৪ হাজার ৫০০ মানুষ। আরো পরিষ্কার করে বলা যায়। তা হলো, প্রতি দুই সেকেন্ডে একজন করে মানুষ বাস্তুচ্যুত হচ্ছেন। 

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

বাংলাদেশের ভূ-খন্ড দখল করে আসামের অবৈধ অভিবাসীদের বসতি নির্মাণের আহবান

ঢাকায় মার্কিন রাষ্ট্রদূত হচ্ছেন মিলার

ত্রাসের রাজত্ব ভেঙে দিয়েছেন শিক্ষার্থীরা

বাম গণতান্ত্রিক জোটের আত্মপ্রকাশ

আণবিক বিদ্যুৎ প্ল্যান্ট ইলিশের জন্য হুমকি!

অস্ট্রেলিয়াও চলে গেল

অবহেলায় নষ্ট সোয়া কোটি টাকার ভ্যাকসিন

মেয়েটির জীবন অতিষ্ঠ করে তুলেছিল ওরা

সরকারের ধারাবাহিকতা বজায় থাকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ

আরিফ-কামরান পাল্টাপাল্টি

আতঙ্কের মধ্যে প্রচারণায় বিএনপি

মাঠ গুছিয়ে এনেছে বড় দুই দল

কোটা নিয়ে প্রধানমন্ত্রী ইউটার্ন করেছেন

টেলিটককে ১০ হাজার কোটি টাকা ঋণ প্রস্তাব দক্ষিণ কোরিয়ার

ইভিএমে আস্থা ও শঙ্কা

আজ এইচএসসি ও সমমানের ফল প্রকাশ