‘এটি সত্যি নয়’

বিনোদন

স্টাফ রিপোর্টার | ১৬ অক্টোবর ২০১৮, মঙ্গলবার | সর্বশেষ আপডেট: ১১:১৮
এই সময়ের টিভি নাটকের অনেক অভিনেত্রী বড় পর্দায় কাজ করার জন্য দৌড় ঝাঁপ করছেন। বড় পর্দায় এসে তাদের কেউ সফল হয়েছেন। আবার কেউ ব্যর্থ হয়ে ছোট পর্দায় ফিরে যাচ্ছেন। এদের অনেকেই আবার হতাশায় শোবিজও ছেড়ে দিয়েছেন। বর্তমান সময়ের গ্ল্যামারাস অভিনেত্রী মৌসুমী হামিদ। লাক্স-চ্যানেল আই সুপারস্টার রানার্সআপ হিসেবে ২০১০ সালে শোবিজে পথচলা শুরু করেন তিনি। তারপর থেকে মেধা আর যোগ্যতার প্রমাণ দিয়ে ছোট পর্দায় প্রতিষ্ঠিত হয়েছেন জনপ্রিয় মডেল ও অভিনেত্রী হিসেবে। ছোট পর্দা থেকে বড় পর্দায়ও আসেন এই অভিনেত্রী।
‘জালালের গল্প’, ‘ব্ল্যাক মানি’ ও ‘পূর্ণদৈর্ঘ্য প্রেম কাহিনী-২’সহ কয়েকটি ছবিতে তিনি অভিনয় করেন। ছবিগুলো বাণিজ্যিকভাবেও সফল ছিল। কিন্তু এই চলচ্চিত্রগুলো দিয়ে তিনি বড় পর্দায় নিজের আসন পাকাপোক্ত করতে পারেনি বলেই অনেকে মন্তব্য করেন। তবে এই অভিনেত্রী সম্প্রতি ‘কাঠগড়ায় শরৎচন্দ্র’ শিরোনামের একটি চলচ্চিত্রে বিশেষ চরিত্রে অভিনয় করেছেন। এছাড়া সম্প্রতি গাজী রাকায়েতের ‘গোর’ শিরোনামের আরো একটি চলচ্চিত্রে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন। এই মুহূর্তে চলচ্চিত্র নিয়ে তিনি কী ভাবছেন? কোন পথে হাঁটছেন তিনি? এমন নানা প্রশ্ন শোনা যায় তার কাছের মানুষদের কাছে। অনেকে বলেন বড় পর্দায় ব্যর্থ হয়ে তিনি ছোট পর্দায় ফিরে গেছেন। তবে এ প্রসঙ্গে মৌসুমী হামিদ জানালেন ভিন্ন কথা। তার ভাষ্য, আমি চলচ্চিত্রে জায়গা করতে পারিনি, এটি সত্যি নয়। আমার কাছে প্রায়শই চলচ্চিত্রের প্রস্তাব আসে। আমি যে ধরনের চলচ্চিত্রে কাজ করতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি তেমন গল্প পাচ্ছি না। ‘কাঠগড়ায় শরৎচন্দ্র’ ছবির চরিত্রটি ভালো লেগেছে বলেই কাজ করছি। এমন বৈচিত্র্যময় কোনো চরিত্র পেলে চলচ্চিত্রে কাজ করতে আমার কোনো আপত্তি নেই। এছাড়া এই সময়ে আমাদের চলচ্চিত্র নির্মাণের সংখ্যাও কমে গেছে। সেটিও আমাদের মনে রাখতে হবে। মৌসুমী হামিদ এখন ছোট পর্দার কাজ নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন। পূজা উপলক্ষে তিনি ‘পুতুল কথা’ শিরোনামের একটি টেলিছবিতে অভিনয় করেছেন। তার বিপরীতে এটিতে দেখা যাবে তৌসিফ মাহবুববকে। এটি নির্মাণ করেছেন রাকেশ বসু। এটি প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ধ্রুব টিভির ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশ হবে। এছাড়া তার হাতে রয়েছে কয়েকটি ধারাবাহিক। উল্লেখযোগ্য ধারাবাহিকগুলো ইমরাউল রাফাতের ‘সিনেম্যাটিক’, রহমতুল্লাহ তুহিনের ‘যখন কখনো’, নজরুল ইসলাম রাজুর ‘ঘরে-বাইরে’ ও সুমন আনোয়ারের ‘সুখী মীরগঞ্জ’ এবং ‘ইডিয়েট’।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

লিবিয়ায় সরিয়ে নেয়া হলো ২৫০ বাংলাদেশিকে

ফেরদৌসের পর নূরকে ভারত ছাড়ার নির্দেশ

আগুনে পুড়লো মালিবাগের ২৬০ ব্যবসায়ীর সম্বল

ভারতে ভোটে হাঙ্গামা, ইভিএম বিভ্রাট

জরুরি সফরে ঢাকা আসছেন ভারতের বিদেশ সচিব

ফেঁসে যাচ্ছেন রাজউকের ২০ কর্মকর্তা-কর্মচারী

সড়ক দুর্ঘটনায় ১১ জনের মৃত্যু

প্রধানমন্ত্রীর ব্রুনাই সফরে ছয় চুক্তি হতে পারে

সুবীর নন্দীর শারীরিক অবস্থা অপরিবর্তিত

দেশে এখন অবলীলায় হত্যা ধর্ষণ হচ্ছে: ফখরুল

গণমাধ্যমের স্বাধীনতায় ৪ ধাপ পিছিয়ে ১৫০তম বাংলাদেশ

প্রেমের ফাঁদে ফেলে অপহরণ, ৬ দিন পর উদ্ধার

ম্যালেরিয়া ঝুঁকিতে ১ কোটি ৮০ লাখ মানুষ

‘আমার সবকিছু কেড়ে নেয়ার পর মেয়ের দিকে কু-দৃষ্টি পড়ে যুবলীগ নেতা উজ্জ্বলের’

ভূঞাপুর হাসপাতালে সেবা না পেয়ে রাস্তায় সন্তান প্রসব

পুলিশের ভূমিকার বিচারবিভাগীয় তদন্ত দাবি টিআইবি’র