জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের মাধ্যমে স্বাধীনতা সংগ্রামীরা এক জায়গায় এসেছেন: খসরু

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার | ১৫ অক্টোবর ২০১৮, সোমবার, ৯:৩০
স্বাধীনতা সংগ্রামের অবদান রাখা রাজনীতিবিদদের নিয়েই জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট হয়েছে বলে দাবি করেছেন বিএনপি স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী। তিনি বলেছেন, বাংলাদেশে বরণ্যে রাজনীতিবিদ সবাই এক জায়গায় চলে এসেছেন, স্বাধীনতা সংগ্রামে যাদের অবদান আছে তারা সবাই এক জায়গায় চলে এসেছেন, বাংলাদেশের মানুষের কাছে গ্রহনযোগ্য মানুষগুলো এক জায়গায় চলে এসেছেন। এটার কারণ হচ্ছে, বাংলাদেশের মানুষের আজকের যে চিন্তার প্রতিফলন সেটা ঘটিয়েছেন বাংলাদেশী নেতৃবৃন্দ। গতকাল জাতীয় প্রেস ক্লাবেএক আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

জাতীয় প্রেস ক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে নাগরিক অধিকার আন্দোলন ফোরামের উদ্যোগে খালেদা জিয়ার মুক্তি ও তারেক রহমানের মিথ্যা মামলাসহ সাজা বাতিলের দাবিতে এই আলোচনা সভা হয়। তিনি বলেন, বিগত দিনে যখন জাতি ঐক্যবদ্ধ হয়েছে স্বাধীনতা আন্দোলনে, ভাষা আন্দোলনে, স্বৈরাচার আন্দোলনে তখনই অপশক্তি পরাজিত হয়েছে। আজকে এই ফ্রন্টের মাধ্যমে জাতি ঐক্যবদ্ধ হয়েছে, ইনশাল্লাহ অপশক্তি পরাজিত হবেই। আমীর খসরু বলেন, দেশের জনগন আজকে ঐক্যবদ্ধভাবে সিদ্ধান্ত নিয়েছে তাদের মালিকানা ফিরিয়ে নেয়ার।
আইনের শাসন, বাক স্বাধীনতা, গণমাধ্যমের স্বাধীনতা ফিরিয়ে আনার। তারা সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভোটাধিকার ফিরে পাবার এবং জীবনে নিরাপত্তা ফিরে পাবার। বাংলাদেশের মানুষ যে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তার প্রতিফলন হচ্ছে এই জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। বিএনপির অন্যতম এ নীতিনির্ধারক বলেন, আপনাদের প্রতি আমার অনুরোধ থাকবে, জাতীয় ঐক্যের পরবর্তি কাজগুলো দ্রুত গতিতে আমাদের সবাইকে নিয়ে সঠিক আন্দোলনে পরিণত করতে হবে।

সঠিক আন্দোলনের মাধ্যমে যেখানে জাতি ঐক্যবদ্ধ হয়ে গেছে সেটাকে কাজে লাগাতে হবে। আমি সবাইকে সাহসিকতার সাথে আগামী আন্দোলনে যোগ দেয়ার প্রস্তুতি নিতে আহবান জানাচ্ছি। তিনি বলেন, সরকার ভয়ভীতির মাধ্যমে যে রাজত্ব করছে সেই রাজত্বকে ভেঙে চুরমার করে দেবে এই জাতীয় ঐক্য। আপনাদের প্রতি আমার অনুরোধ থাকবে, এই ঐক্য হয়েছে বলে আমরা বসে থাকলে চলবে না। ঐক্যের পরবর্তি কাজগুলো দ্রুত গতিতে আমাদের সবাইকে নিয়ে সঠিক আন্দোলনে পরিণত করতে হবে। সংগঠনের উপদেষ্টা সাঈদ আহমেদ আসলামের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলমের পরিচালনায় আলোচনা সভায় বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য নাজিমউদ্দিন আলম, আবু নাসের মুহাম্মদ রহমাতুল্লাহ, সাবিরা নাজমুল বক্তব্য দেন।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

নৈতিক পরাজয় ঢাকতে আওয়ামী লীগের বিজয় উৎসব : ফখরুল

৫ দিনেও সন্ধান মেলেনি নিখোঁজ ২০ শ্রমিকের

প্রথম মা হচ্ছেন লুসি, সন্তানের পিতার পরিচয় গোপন রাখবেন

রোহিঙ্গা প্রত্যাবর্তনে মিয়ানমার অত্যন্ত ধীর গতিতে

‘ইসরাইলিদের মালয়েশিয়ায় আসা উচিত নয়’

আওয়ামী লীগের বিজয় উৎসবে গণজমায়েত শুরু, কঠোর নিরাপত্তা

‘বেস্ট সেলিং ব্রান্ড’ হলো আতঙ্ক- জাতিসংঘ মহাসচিব

১৮ ঘণ্টা পর খুলনার সঙ্গে রেল যোগাযোগ স্বাভাবিক

যুদ্ধাপরাধের অভিযোগে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত মার্কিন নাগরিক মনিরের মামলায় ঘনিষ্ঠ নজর রাখছে যুক্তরাষ্ট্র

ভিক্টোরিয়ার ৮টি গোডাউনে আগুন, শত কোটি টাকার পণ্য ভস্মিভূত

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বাস-ট্রাক মুখোমুখি সংঘর্ষ, নিহত ২

গাংনীতে অপহরণের ৪ মাস পর নারীর কঙ্কাল উদ্ধার

সহযোগিকে মিথ্যা স্বাক্ষ্য দিতে বলেছিলেন ট্রাম্প

‘সবার সচেতনতায় দেশের আরো উন্নয়ন সম্ভব’

কুয়েত থেকে ফেরত পাঠানো হচ্ছে ৩০০ বাংলাদেশিকে

ঐক্যফ্রন্ট না টেকারই কথা: কাদের