জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের মাধ্যমে স্বাধীনতা সংগ্রামীরা এক জায়গায় এসেছেন: খসরু

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার | ১৫ অক্টোবর ২০১৮, সোমবার, ৯:৩০
স্বাধীনতা সংগ্রামের অবদান রাখা রাজনীতিবিদদের নিয়েই জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট হয়েছে বলে দাবি করেছেন বিএনপি স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী। তিনি বলেছেন, বাংলাদেশে বরণ্যে রাজনীতিবিদ সবাই এক জায়গায় চলে এসেছেন, স্বাধীনতা সংগ্রামে যাদের অবদান আছে তারা সবাই এক জায়গায় চলে এসেছেন, বাংলাদেশের মানুষের কাছে গ্রহনযোগ্য মানুষগুলো এক জায়গায় চলে এসেছেন। এটার কারণ হচ্ছে, বাংলাদেশের মানুষের আজকের যে চিন্তার প্রতিফলন সেটা ঘটিয়েছেন বাংলাদেশী নেতৃবৃন্দ। গতকাল জাতীয় প্রেস ক্লাবেএক আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

জাতীয় প্রেস ক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে নাগরিক অধিকার আন্দোলন ফোরামের উদ্যোগে খালেদা জিয়ার মুক্তি ও তারেক রহমানের মিথ্যা মামলাসহ সাজা বাতিলের দাবিতে এই আলোচনা সভা হয়। তিনি বলেন, বিগত দিনে যখন জাতি ঐক্যবদ্ধ হয়েছে স্বাধীনতা আন্দোলনে, ভাষা আন্দোলনে, স্বৈরাচার আন্দোলনে তখনই অপশক্তি পরাজিত হয়েছে। আজকে এই ফ্রন্টের মাধ্যমে জাতি ঐক্যবদ্ধ হয়েছে, ইনশাল্লাহ অপশক্তি পরাজিত হবেই। আমীর খসরু বলেন, দেশের জনগন আজকে ঐক্যবদ্ধভাবে সিদ্ধান্ত নিয়েছে তাদের মালিকানা ফিরিয়ে নেয়ার।
আইনের শাসন, বাক স্বাধীনতা, গণমাধ্যমের স্বাধীনতা ফিরিয়ে আনার। তারা সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভোটাধিকার ফিরে পাবার এবং জীবনে নিরাপত্তা ফিরে পাবার। বাংলাদেশের মানুষ যে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তার প্রতিফলন হচ্ছে এই জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। বিএনপির অন্যতম এ নীতিনির্ধারক বলেন, আপনাদের প্রতি আমার অনুরোধ থাকবে, জাতীয় ঐক্যের পরবর্তি কাজগুলো দ্রুত গতিতে আমাদের সবাইকে নিয়ে সঠিক আন্দোলনে পরিণত করতে হবে।

সঠিক আন্দোলনের মাধ্যমে যেখানে জাতি ঐক্যবদ্ধ হয়ে গেছে সেটাকে কাজে লাগাতে হবে। আমি সবাইকে সাহসিকতার সাথে আগামী আন্দোলনে যোগ দেয়ার প্রস্তুতি নিতে আহবান জানাচ্ছি। তিনি বলেন, সরকার ভয়ভীতির মাধ্যমে যে রাজত্ব করছে সেই রাজত্বকে ভেঙে চুরমার করে দেবে এই জাতীয় ঐক্য। আপনাদের প্রতি আমার অনুরোধ থাকবে, এই ঐক্য হয়েছে বলে আমরা বসে থাকলে চলবে না। ঐক্যের পরবর্তি কাজগুলো দ্রুত গতিতে আমাদের সবাইকে নিয়ে সঠিক আন্দোলনে পরিণত করতে হবে। সংগঠনের উপদেষ্টা সাঈদ আহমেদ আসলামের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলমের পরিচালনায় আলোচনা সভায় বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য নাজিমউদ্দিন আলম, আবু নাসের মুহাম্মদ রহমাতুল্লাহ, সাবিরা নাজমুল বক্তব্য দেন।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

‘ইসরাইলকে স্বীকৃতির দেয়ার পরিকল্পনা নেই পাকিস্তানের’

৫২তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে উৎসবমুখর চবি

খালেদার চিকিৎসা সংক্রান্ত রিটের আদেশ সোমবার

গীতাঞ্জলী’র অনুবাদ প্রকাশিত হয়েছে বেলারুশে

আগাম জামিন চেয়ে মির্জা আব্বাস দম্পতির আবেদন

পশ্চিমারা ইসলামিক পরিচয় ধ্বংস করতে চায়- মাওলানা ফজলু

প্রধানমন্ত্রীকে দেয়া গ্রেপ্তার-মামলার তালিকা সিইসিকেও দিল বিএনপি

লোকসভায় ২৯৭-৩০৩ আসন পেতে পারে বিজেপি

শহিদুলের জামিন স্থগিত চেয়ে রাষ্ট্রপক্ষের আবেদন

জে-লো কাণ্ড!

বায়ুদূষণে কেমন আছেন দিল্লির রিক্সাওয়ালা!

জীবনে কম্পিউটার ব্যবহার না করেও জাপানের সাইবার নিরাপত্তামন্ত্রী, জানেন না ইউএসবি পোর্ট কি

আজ থেকে প্রাথমিক-ইবতেদায়ি সমাপনী পরীক্ষা

ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রীর অগ্নিপরীক্ষা

গুলশানে বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার চলছে

বোরকার বিরুদ্ধে সৌদি নারীদের অভিনব প্রতিবাদ