প্রেমিকার ছেলের ছুরিকাঘাতে প্রেমিক নিহত

দেশ বিদেশ

স্টাফ রিপোর্টার | ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, বৃহস্পতিবার | সর্বশেষ আপডেট: ১১:৫৬
প্রেমিকার ছেলের ছুরিকাঘাতে নিহত হয়েছেন এক প্রেমিক। ৪২ বছর বয়সী ওই প্রেমিকের নাম হেলাল। দুই সন্তানের এক জননীর সঙ্গে পরকীয়া সম্পর্ক করে তাকে এই খেসারত দিতে হয়েছে। হেলাল নিজেও বিবাহিত এবং সন্তানের জনক। গতকাল সকাল সাড়ে ৯টার দিকে ঢাকার কামরাঙ্গীর চরে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। ছুরিকাঘাতকারীর নাম সানি। সে হেলালের পরকীয়া প্রেমিকা সাবিনার ছেলে। আর সাবিনা ছিল হেলালের বন্ধুর স্ত্রী।
তারা পাবনা সদর উপজেলার বাসিন্দা। দীর্ঘদিনের প্রেমের সম্পর্কের পর পালিয়ে যাওয়ায় সাবিনার ছেলের ছুরিকাঘাতে নিহত হয়েছে হেলাল। হেলাল ও সাবিনার ঘনিষ্ঠ মিন্টু মিয়া জানান, তারা দু’জনেই বিবাহিত এবং সন্তানের জনক-জননী। এরপরও তারা পরকীয়া সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে। মঙ্গলবার বিকালে তারা পাবনা থেকে পালিয়ে ঢাকা আসে। পরে দু’জনই কামরাঙ্গীর চরের দিলু রোডের একটি টিনশেড বাড়িতে ওঠে। পালিয়ে আসার পর তাদের স্বজনরা খোঁজাখুঁজি করেন। সাবিনার ছেলে সানি জানতে পারে তারা ঢাকার কামরাঙ্গীর চরের একটি বাসায় উঠেছে। গতকাল সকালে সে দিলু রোডের বাসায় এসে হেলালকে মারাত্মকভাবে ছুরিকাঘাত করে। রক্তাক্ত অবস্থায় মিন্টুসহ কয়েকজন হেলালকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ  হাসপাতালে (ঢামেক) নিয়ে এলে চিকিৎসাধীন অবস্থায়  সে মারা যায়। ঘটনার পরপরই সাবিনা পালিয়ে যায়। খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না সানিকেও। ঢামেক পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ পরিদর্শক বাচ্চু মিয়া হেলালের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেন। লাশ ঢামেকের মর্গে রাখা হয়েছে।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

আমিই এখন তোমার মা ও বাবা

থমথমে পাহাড় গুলিতে আওয়ামী লীগ নেতা নিহত

সিনেমা হলের সূচনার গল্প

বাবার সামনেই বাস পিষে মারলো আবরারকে

একদিনে সড়কে নিহত ১২

নুরের একাত্মতা, আঘাত এলে দাঁতভাঙা জবাব

খাগড়াছড়িতে বুধবার সকাল-সন্ধ্যা হরতাল

এখনো চলছে সেই জাবালে নূর পরিবহন

প্লেসমেন্ট শেয়ার নিয়ে পুঁজিবাজারে অস্থিরতা

‘খালেদা অসুস্থ আদালতে আসার আগেও বমি করেছেন’

যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিবেদন একপেশে প্রত্যাখ্যান করছি

নরসিংদীতে আওয়ামী লীগের দু’গ্রুপে গোলাগুলি, নিহত ২

সাধারণ শিক্ষার্থীরা বিজয় এনে দিয়েছে

আত্মবিশ্বাসী শতাব্দী রায়, আরো বড় ব্যবধানে জিততে চান

সরকারি হাইস্কুলে তিন বিষয়ে ১৫০৬টি পদ সৃষ্টি হচ্ছে

সিলেটের ‘ভোটের নায়ক’ ৫ বিদ্রোহী