দেশে ১৫ দিনে ৩৯ ধর্ষণ

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১৮ এপ্রিল ২০১৯, বৃহস্পতিবার | সর্বশেষ আপডেট: ২:০৩
মাত্র ১৫ দিনে দেশে ৩৯ জন বালিকা ধর্ষিত হয়েছে। ধর্ষণ সহ যৌন নির্যাতনের শিকার হয়েছে ৪৭ জন। এসব ঘটনা ঘটেছে ২ এপ্রিল থেকে ১৬ এপ্রিলের মধ্যে।  মানবাধিকার বিষয়ক সংগঠন মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন (এমজেএফ) এ কথা বলেছে। দেশের ৬টি জাতীয় দৈনিক পত্রিকায় প্রকাশিত রিপোর্ট বিশ্লেষণ করে রিপোর্ট প্রণয়ন করে এ ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে সংগঠনটি। সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে, শিশুদের বিরুদ্ধে সহিংসতা বন্ধে কার্যকর পদক্ষেপ নিতে।
এমজেএফ বিবৃতিতে বলেছে, ‘ন্যায়বিচারে ঘাতটি’ থাকায় পরিস্থিতি অসহনীয় হয়ে উঠেছে। বাড়ছে ধর্ষণের সংখ্যা। বাড়ছে নারী ও শিশুদের বিরুদ্ধে যৌন নির্যাতন। এর ফলে যে ক্ষত সৃষ্টি হচ্ছে তা শারীরিক, মানসিক ও সামাজিক জীবনে তাদের ওপর স্বল্প ও দীর্ঘ মেয়াদে ক্ষতিকর প্রভাব সৃষ্টি করছে।

এমজেএফের নির্বাহী পরিচালক শাহিন আনাম বলেছেন, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে সরকারকে অবশ্যই অবিলম্বে কার্যকর ব্যবস্থা নিতে হবে। ফেনীর মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফি হত্যায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তিও দাবি করেছে তার এই সংগঠন।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Reza

২০১৯-০৪-২০ ১৫:১০:১৯

15 DAYS,39 RAPE ! SHAME ON US !

মোঃসোহেল

২০১৯-০৪-১৮ ২২:০৬:২০

ন্যায় বিচার প্রতিষ্টিত চাইলে কোরআনের সমকক্ষ আর কিছুই নাই

হুমায়ুন খান

২০১৯-০৪-১৮ ১৪:৩১:২৮

বাংলাদেশের মানুষের সব দিক দিয়ে যে চরিত্রের দিন দিন আবনতি হচ্ছে ইহা তার জোরাল প্রমান । চরিত্র ই জদি নষ্ট হয় তবে বাকি সব কিছু দিয়ে কি হবে । আগে আমাদের চরিত্র ঠিক করতে হবে । এই ব্যাপারে পরিবার থেকে চরিত্র ঠিক করার কাজ শুরু করতে হবে । বাবা -মা এর চরিত্র আগে ভাল করতে হবে , তারপর সন্তানদের চরিত্র ভাল রাখার শিক্ষা দিতে হবে । ছোট সময় থেকে পরিবারে কোরআন ও নামাজ শিক্ষা এবং আদায় করার ব্যাপারে সচেতন হইতে হবে । বিদেশি মিডিয়ার খারাব / অপসংস্কৃতি দিকগুলা মা-বাবা ও পরিবারের কেউ যে না দেখা । শুধু মাত্র এই ২ তা দিক পরিবারে কোরআন ও নামাজ শিক্ষা ২) বিদেশি মিডিয়ার খারাব / অপসংস্কৃতি বাদ , যার ফলে ই আমাদের ছেলে-মেয়ের চরিত্র অনেক টা ঠিক রাখা যাবে ।

সাইদুর রহমান

২০১৯-০৪-১৮ ০০:১২:২৬

এভাবে চলতে থাকলে একসময় ভারতকে পিছিয়ে যাবে বাংলাদেশ।তাই সময় থাকতে সবাইকে সাবধান হতে হবে।যে হারে অল্প বয়সী মেয়েরা যৌন নিপীড়নের স্বীকার হচ্ছে তাতে ভবিষ্যৎ এর জন্য এক হুমকির মুখে পড়বে।কোনো স্বামী স্ত্রী সন্তান জন্মদানে র্পূবে হাজার বার চিন্তা করবে তাদের সন্তান সুস্থ ভাবে বড় হবে কি না নাকি এইসবের স্বীকার হয়ে সারা জীবন কলংকের বোঝা বয়ে বেড়াতে হবে।

জাফর আহমেদ

২০১৯-০৪-১৭ ২৩:০১:৪৯

হায়রে দেশ হায়রে মানুষ এই কিসের আলামত। এই সবের জন্য দায়ী সমাজের অবক্ষয়।আর বিচার হীনতার।এক মাসের মধ্যে এদের বিচার কাজ শেষ করা উচিত।

জসিম

২০১৯-০৪-১৭ ২২:০০:৩২

ধর্ষণের শাস্তি মৃত্যদণ্ড করা হোক এবং জনসম্মূখে ফাঁসি দেয়া হোক।

আপনার মতামত দিন

প্রিয়তি ধর্ষণ চেষ্টা, তদন্তে ইন্টারপোল!

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীতে জাতীয় সংসদের বিশেষ আয়োজন

প্রার্থী হচ্ছেন না খালেদা জিয়া

সাকিব আবার শীর্ষে

দোষী ৬৭ জন ১৮ থেকে ২৩ তলা অবৈধ

নারী হতে বাংলাদেশির অস্ত্রোপচার গুজরাটে

সিমলায় আটকে আছে তদন্ত!

অনির্বাচিত সরকারকে গ্রহণ করার মূল্য দিচ্ছে জনগণ

ট্রেনের আগাম টিকিট বিক্রি শুরু অনলাইনে চরম ভোগান্তি

চাল আমদানিতে শুল্ক কর বাড়িয়ে দ্বিগুণ

বান্ধবীর বাসায় আশিকের মৃত্যু নানা রহস্য

সিলেটের ৫ গুণীজনকে রত্ন ফাউন্ডেশনের সংবর্ধনা

রোহিঙ্গাদের নিরাপদ প্রত্যাবাসনে বিশ্বাঙ্গনে একত্রে লড়বে দুই দেশ

অধ্যক্ষ ফের দুই দিনের রিমান্ডে

ঢাকার ৮৪ ভাগ বহুতল ভবনই ত্রুটিপূর্র্ণ

পা হারানো রাসেলকে বাকি টাকা দেয়নি গ্রীনলাইন তীব্র ক্ষোভ হাইকোর্টের