প্রেমিকা সেজে অপহরণ, ৬দিন পর উদ্ধার বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র রায়হান

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার | ১৮ এপ্রিল ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ১:০৬ | সর্বশেষ আপডেট: ১:৪৭
অপহৃত বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র রায়হানকে উদ্ধার করেছে র‌্যাব। রাজধানীর কলাবাগান এলাকা থেকে তাকে অপহরণ করা হয়েছিল। অপহরণের ৬ দিন পর তাকে সাভার থেকে উদ্ধার করা হয়।  এ ঘটনায় জড়িত পাঁচ অপহরণকারীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। র‌্যাব জানিয়েছে, ফেক আইডি খুলে রায়হানের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তুলে এ চক্রটি। এক মাসের মধ্যে ডেটিংয়ের আমন্ত্রণ জানিয়ে প্রেমিককে অপহরণ করে কাজল বেগমের অপহরণকারী চক্র।  

এরা হলো- আজিজুল হাকিম (৪০), লিটন মোল্লা (২৬), কাজল বেগম (২৬), নজরুল ইসলাম বাবু (৪২) ও নুরু মিয়া (৬২)। অপহৃত রায়হান জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের এমবিএ অধ্যয়নরত।

র‌্যাব জানিয়েছে, সুনির্দিষ্ট অভিযোগের প্রেক্ষিতে র‌্যাব-৪ এর একটি দল সাভার আমিন বাজার এলাকায় অভিযান চালিয়ে অপহৃত রায়হান ও একটি প্রাইভেটকারসহ অপহরণকারী চক্রের ৫ সদস্যকে গ্রেপ্তার করে। অপহৃত রায়হানের পূর্ব পরিচিত মো. বাহার তার প্রাইভেটকারে করে ঢাকার কলাবাগান থেকে সাভার থানাধীন আমিন বাজারস্থ এলাকার অজ্ঞাতনামা একটি বিল্ডিংয়ে নিয়ে আটকে রাখে। পরে অপহরণকারীরা তার হাত ও চোখ-মুখ বেঁধে ৬ দিন ধরে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করে। রায়হানের পরিবারের সদস্যদের মারধরের শব্দ, কান্নার চিৎকার শুনিয়ে দশ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। মুক্তিপণের টাকা না দিলে রায়হানকে খুন করার হুমকি দিতে থাকে। পরবর্তীতে অপহরণকারীরা তাদের মোবাইল নম্বর থেকে রায়হানের বাবা ও বোনের নম্বরে যোগাযোগ করে সর্বশেষ ৫ লাখ টাকা মুক্তিপণ রফা করে। এ সময় ড্রাইভার বাহার পূর্বপরিকল্পনা অনুযায়ী রায়হানকে তার পরিবারের সদস্যদের সাথে  মোবাইল ফোনের মাধ্যমে যোগাযোগ করে এক লাখ টাকা ১৫ এপ্রিল রাত সাড়ে ৭টায় মিরপুর মডেল থানাধীন ষাটফিট ভাংগা ব্রিজের পাশে একটি পরিত্যক্ত সিগারেটের বক্সে কাগজ দিয়ে পেঁচিয়ে রাখতে বললে মামলার বাদী মোঃ রবিউল ইসলাম মুরাদ টাকা রেখে আসে। এ টাকা পলাতক আসামী ফরিদ এসে নিয়ে যায় এবং অপহরণকারীরা মোবাইল ফোনের মাধ্যমে জানায়, বাকী চার লাখ টাকা না দিলে রায়হানকে মুক্তি দেবেনা। বেশি দেরি করলে মেরে ফেলার হুমকি দিতে থাকে।

ইতোমধ্যে অপহরণের অভিযোগের প্রেক্ষিতে অপহৃত রায়হান ও প্রাইভেটকারটি উদ্ধারে র‌্যাব-৪ এর একটি দল বিভিন্ন কলা-কৌশল অবলম্বন করে ১৭ এপ্রিল রাত সাড়ে ৮টায় সাভার থানাধীন আমিন বাজারে অভিযান চালিয়ে রায়হান (২৫) এবং ১টি সাদা রংয়ের টয়োটা কার উদ্ধার করে। একইসঙ্গে ৫ জন অপহরণকারীকে গ্রেপ্তা করে।

গ্রেপ্তারকৃতদের জিজ্ঞাসাবাদে তারাসহ পলাতক মোঃ ফরিদ উদ্দিন (৪০) ও মোঃ বাহার (৩২) এর নাম প্রকাশ করে। আসামীগণ গত দশ বৎসর যাবৎ বিভিন্ন পন্থায় ব্যবসায়ী, পেশাজীবি ও চাকুরীজীবি এবং তাদের পরিবারের সদস্যদেরকে টার্গেট করে মোবাইল ফোন নম্বর সংগ্রহ করে বিভিন্ন ধরনের প্রলোভন ও কৌশলে অপহরণ পূর্বক মুক্তিপণ আদায় করে আসছিল। রায়হানের ক্ষেত্রে প্রেমের অভিনয়কে বেছে নিয়েছিল তারা।





এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

প্রিয়তি ধর্ষণ চেষ্টা, তদন্তে ইন্টারপোল!

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীতে জাতীয় সংসদের বিশেষ আয়োজন

প্রার্থী হচ্ছেন না খালেদা জিয়া

সাকিব আবার শীর্ষে

দোষী ৬৭ জন ১৮ থেকে ২৩ তলা অবৈধ

নারী হতে বাংলাদেশির অস্ত্রোপচার গুজরাটে

সিমলায় আটকে আছে তদন্ত!

অনির্বাচিত সরকারকে গ্রহণ করার মূল্য দিচ্ছে জনগণ

ট্রেনের আগাম টিকিট বিক্রি শুরু অনলাইনে চরম ভোগান্তি

চাল আমদানিতে শুল্ক কর বাড়িয়ে দ্বিগুণ

বান্ধবীর বাসায় আশিকের মৃত্যু নানা রহস্য

সিলেটের ৫ গুণীজনকে রত্ন ফাউন্ডেশনের সংবর্ধনা

রোহিঙ্গাদের নিরাপদ প্রত্যাবাসনে বিশ্বাঙ্গনে একত্রে লড়বে দুই দেশ

অধ্যক্ষ ফের দুই দিনের রিমান্ডে

ঢাকার ৮৪ ভাগ বহুতল ভবনই ত্রুটিপূর্র্ণ

পা হারানো রাসেলকে বাকি টাকা দেয়নি গ্রীনলাইন তীব্র ক্ষোভ হাইকোর্টের