মেজরটিলায় যুবকের ‘আত্মহত্যা’, রহস্য

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, সিলেট থেকে | ১৯ এপ্রিল ২০১৯, শুক্রবার
সিলেট শহরতলির মেজরটিলার ইসলামপুরে সুহেল মিয়া নামের এক যুবকের আত্মহত্যার বিষয়টি মেনে নিতে পারছেন না তার পরিবার। ছেলেকে হারিয়ে দিশাহারা হয়ে পড়েছেন স্ত্রী তাসলিমা, পিতা আব্দুল লতিফ ও মাতা রিমা বেগমসহ পরিবারের সদস্যরা। সুহেলের মৃত্যুকে রহস্যজনক উল্লেখ করে হত্যার সন্দেহ করছেন তারা। মামলারও প্রস্তুতি নিচ্ছেন। ছেলেকে হত্যা করা হতে পারে-এমন ধারণার বিষয়টি পিতা লতিফ থানা পুলিশকে শুরুতেই অবগত করেন। কিন্তু পুলিশ প্রাথমিক ধারণা থেকে আত্মহত্যার ঘটনায় ইউডি মামলা নেয়। এখন অপেক্ষা করছে ময়নাতদন্ত প্রতিবেদনের। প্রতিবেদন পেলে সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে শাহপরান থানার এসআই এনায়েত জানিয়েছেন। জানা গেছে, দক্ষিণ ইসলামপুর মুসলিম নগরের বাসিন্দা আব্দুল লতিফের দুই ছেলের মধ্যে ছোট ছেলে সুহেল মিয়া ইসলামপুর টেক্সটাইল মিলস এলাকার একটি বাসায় ভাড়া থাকতেন। দুই কন্যা সন্তানের জনক পেশায় মাছ বাজারের শ্রমিক সুহেল ১১ই এপ্রিল বিকালে তার নিজ বাসায় আত্মহত্যা করেন বলে জানতে পারেন তার পরিবার। খবর পেয়ে পুলিশ ঘরের তীরের সঙ্গে নিজের শার্ট দিয়ে গলায় ফাঁস লাগানো লাশ উদ্ধার করে। লাশের পা মাটি থেকে সামান্য উপরে ছিল এবং পাশে খাট ও চেয়ার রাখা ছিল। পরদিন লাশের ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করে পুলিশ। কিন্তু শুরু থেকেই আত্মহত্যার বিষয়টি মেনে নিতে পারেনি তার পরিবার। সুহেলের পিতা আব্দুল লতিফ জানান, তিনি একজন মাছ ব্যবসায়ী। তার ছেলে ইসলামপুর বাজারে মাছ কাটতো। স্থানীয় এক যুবকের সঙ্গে তার ভাবছিল। ঘটনার পর তাকে পাওয়া যাচ্ছে না। আত্মহত্যার কোনো কারণ নেই উল্লেখ করে তিনি জানান, সুহেলের ঘরের সঙ্গে আরো ঘর রয়েছে। ঘটনার সময় কেউ কি টের পেলো না। তার শরীরেও আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।
 তিনি বলেন, ওইদিন তার স্ত্রী তাসলিমা পিতার বাড়ি থেকে ফিরে বাসার দরজা বন্ধ দেখেন। এর আগে পার্শ্ববর্তী বাসিন্দারা দরজা খোলার চেষ্টা করেন বলে তারা জানিয়েছেন।
কিন্তু সুহেলের মা খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে দরজা ধাক্কা দিতেই খুলে গেল। এসব কারণে আমরা ধারণা করছি তাকে হত্যা করে লাশ ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে। তিনি আদালতে মামলা করার প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে জানান। শাহপরান থানার এসআই তদন্তকারী কর্মকর্তা এনায়েত জানান, প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে সুহেল আত্মহত্যা করেছে। ময়নাতদন্তে হত্যা প্রমাণিত হলে অবশ্যই মামলা নেয়া হবে।




এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

রাঙ্গামাটিতে সন্ত্রাসীদের গুলিতে সেনাসদস্য নিহত

ঈদে সড়কেই প্রাণ গেল ২২৪ জনের

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন আদৌ শুরু হচ্ছে কি?

কুমিল্লায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৮

এখনো উচ্চ ঝুঁকি ২৪ ঘণ্টায় ১৭০৬ রোগী ভর্তি

পার্বত্য চট্টগ্রাম ভারতের অবিচ্ছেদ্য অংশ

ডেঙ্গুর প্রজননস্থলে কতটা যেতে পারছেন মশক নিধন কর্মীরা?

বৈঠকের পর চামড়া বিক্রিতে সম্মত আড়তদাররা

জনগণকে সতর্ক পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকার পরামর্শ

ছিনতাইকারীর হাতে খুন হন কলেজছাত্র রাব্বী

শিক্ষিকাকে গণধর্ষণের পর হত্যা

শহিদুল আলমের মামলা স্থগিতই থাকবে

ডেঙ্গুর ভয়ে স্কুলে যাওয়া বন্ধ তবুও...

রক্ত পরীক্ষার রিপোর্ট নিয়ে ঢামেকে সংঘর্ষ, আহত ২৫

টার্গেট রাজনৈতিক সম্পর্ক দৃঢ়করণ

ইউজিসি প্রফেসর হলেন ডা. এবিএম আব্দুল্লাহ