মোকাব্বিরের বিষয়ে সিদ্ধান্ত আজ

দেশ বিদেশ

স্টাফ রিপোর্টার | ১৯ এপ্রিল ২০১৯, শুক্রবার | সর্বশেষ আপডেট: ১০:০২
দলীয় সিদ্ধান্ত অমান্য করে এমপি হিসেবে শপথ গ্রহণ করায় মোকাব্বির খানের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক পদক্ষেপ নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে গণফোরাম। তবে কী ধরনের সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়া হবে সে বিষয়ে আজ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছেন দলটির শীর্ষ নেতারা। দলটির সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মোহসিন মন্টু মানবজমিনকে বলেন, শুক্রবার আমরা দলীয় মিটিং করব। সেখানে মোকাব্বির খানের বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে। আমরা নির্বাচন বয়কট করেছি। এই সংসদের এমপি হিসেবে শপথ গ্রহন না করার জন্য নির্বাচিত এমপিদের বলেছি। কিন্তু এর আগে একজন দলের সিদ্ধান্ত অমান্য করে সংসদ সদস্য হিসেবে শপথ গ্রহণ করায় তাকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। তবে অপর সদস্য একইভাবে সংসদ সদস্য হিসেবে শপথ গ্রহণ করায় তার বিরুদ্ধে একই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে কিনা সেটা শুক্রবারের মিটিংয়ে সিদ্ধান্ত হবে।
দলটির কার্যকরি সভাপতি অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী মানবজমিনকে বলেন, মোকাব্বির খান শপথ গ্রহণ করে জাতির সঙ্গে বেঈমানি করেছেন। জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী হিসেবে বিজয়ী হয়ে দল ও জোটের সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে শপথ গ্রহণ করে দলকে বিব্রতকর অবস্থায় ফেলেছেন। তার বিষয়ে এখনো দলের পক্ষ থেকে কোন সিদ্ধান্ত চুড়ান্ত করা হয়নি। তবে দলের শীর্ষ নেতাদের মিটিং আছে। সেখানে তার বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে। সিলেট-২ (বিশ্বনাথ ও ওসমানীনগর) আসন থেকে ২০১৮ সালের ৩০শে জানুয়ারির নির্বাচনে ঊদীয়মান সূর্য্য প্রতীকে নির্বাচন করেন মোকাব্বির খান। তিনি জাতীয় পার্টির প্রার্থী ইয়াহ্ইয়া চৌধুরীকে পরাজিত করে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট থেকে সিলেট-২ আসনে নিখোঁজ বিএনপি নেতা ইলিয়াস আলীর স্ত্রী তাহসিনা রুশদীর লুনাকে মনোনয়ন দেয়া হয়। পরবর্তীতে মোকাব্বির খান ঐক্যফ্রন্ট প্রার্থী লুনাকে সমর্থন দিয়ে লন্ডনে তার কর্মস্থলে চলে যান। কিন্তু নির্বাচনকালীন প্রচারণার চলার সময় লুনার প্রার্থিতা বাতিল করা হয়। ফলে ঐক্যফ্রন্ট মোকাব্বির খানকে সমর্থন দেয়।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

রাঙ্গামাটিতে সন্ত্রাসীদের গুলিতে সেনাসদস্য নিহত

ঈদে সড়কেই প্রাণ গেল ২২৪ জনের

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন আদৌ শুরু হচ্ছে কি?

কুমিল্লায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৮

এখনো উচ্চ ঝুঁকি ২৪ ঘণ্টায় ১৭০৬ রোগী ভর্তি

পার্বত্য চট্টগ্রাম ভারতের অবিচ্ছেদ্য অংশ

ডেঙ্গুর প্রজননস্থলে কতটা যেতে পারছেন মশক নিধন কর্মীরা?

বৈঠকের পর চামড়া বিক্রিতে সম্মত আড়তদাররা

জনগণকে সতর্ক পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকার পরামর্শ

ছিনতাইকারীর হাতে খুন হন কলেজছাত্র রাব্বী

শিক্ষিকাকে গণধর্ষণের পর হত্যা

শহিদুল আলমের মামলা স্থগিতই থাকবে

ডেঙ্গুর ভয়ে স্কুলে যাওয়া বন্ধ তবুও...

রক্ত পরীক্ষার রিপোর্ট নিয়ে ঢামেকে সংঘর্ষ, আহত ২৫

টার্গেট রাজনৈতিক সম্পর্ক দৃঢ়করণ

ইউজিসি প্রফেসর হলেন ডা. এবিএম আব্দুল্লাহ