বিএনপি শপথ নিলে জনগণের প্রত্যাশার বিরুদ্ধে যাবে: খসরু

দেশ বিদেশ

স্টাফ রিপোর্টার | ২১ এপ্রিল ২০১৯, রোববার
একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপির নির্বাচিতরা সংসদে শপথ নিলে তা জনগণ ও জাতির প্রত্যাশার বিরুদ্ধে যাবে বলে জানিয়েছেন দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী। তিনি বলেছেন, যে নির্বাচন দেশের মানুষ প্রত্যাখ্যান করেছে, বিশ্বের গণতন্ত্রকামী দেশগুলো প্রত্যাখ্যান করেছে, জাতিসংঘ থেকে যুক্তরাষ্ট্র ও অন্যান্যরা তদন্ত করতে বলেছে সেখানে আমাদের এমপিরা কীভাবে শপথ নেবেন। বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ও দুই কেন্দ্রীয় নেতা সৈয়দ মেহেদী আহমেদ রুমি ও হাবিব উন নবী খান সোহেলের মুক্তির দাবিতে গতকাল জাতীয় প্রেস ক্লাবে নাগরিক অধিকার আন্দোলন ফোরাম আয়োজিত প্রতিবাদ সভায় তিনি এসব বলেন। আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, ৩০শে ডিসেম্বর কোন নির্বাচনই হয়নি, বাংলাদেশের মানুষ ভোট দিতে পারেনি। ৩০শে ডিসেম্বর ভোটের আগের দিন ভোট চুরি হয়ে গেছে, আবার ভোটের দিনও চুরি হয়েছে। অন্যদিকে ফলাফল প্রকাশের সময়েও চুরি হয়েছে। এরপরেও যদি ওই সংসদে যাওয়া হয় তাহলে এটা জাতির সঙ্গে, জনগণের সঙ্গে, বাংলাদেশের মানুষের যে প্রত্যাশা তার বিরুদ্ধে যাওয়া হবে। তিনি বলেন, সংসদে শপখ গ্রহনের সঙ্গে কারাবন্দি খালেদা জিয়ার মুক্তির কোনো সম্পর্ক নেই। এ বিষয়গুলো পরিষ্কার হওয়া দরকার। এসব করে জাতিক আর বিভ্রান্ত করা যাবে না। বিএনপি নীতি-নির্ধারক ফোরামের অন্যতম এই সদস্য বলেন, সরকারের সামনে এ ধরনের বিভ্রান্ত ছড়ানো ছাড়া আর কোন উপায় নেই। তারা দেশটাকে এমন জায়গায় নিয়ে গেছে যে, এখন তাদেরকে সবসময় বিভ্রান্তি ছড়াতেই হবে। জনগণের মধ্যে যে রাগ-ক্ষোভ কাজ করছে সেটা লঘু চাপ থেকে উচ্চ চাপ এবং সেখান থেকে সুনামির পর্যায়ে না যায় সেজন্য সার্বক্ষণিক বিভ্রান্তি তৈরি করতেই হবে।
একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বগুড়া-৪ আসন থেকে নির্বাচিত বিএনপির মো. মোশাররফ হোসেন বলেন, প্রতিদিন ১০/১৫ চ্যানেল-মিডিয়া তাকে ফোন দিয়ে জানতে চায়- আপনারা নাকি সংসদে যাচ্ছেন? আপনারা নাকি শপথ নিচ্ছেন? কথা দিচ্ছি- দলের নির্দেশনার বাইরে কোন সিদ্ধান্ত নেয়া হবে না। খালেদা জিয়াকে কারাগারে রেখে কোনভাবে সংসদে যাবো না। এসময়ে তিনি খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে পুরান ঢাকার কেন্দ্রীয় কারাগারের সামনে অবস্থান কর্মসূচির দাবিও করেন। সংগঠনের উপদেষ্টা সাঈদ আহমেদ আসলামের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলমের পরিচালনায় প্রতিবাদ সভায় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু, কারাবন্দি সৈয়দ মেহেদি আহমেদ রুমির মেয়ে সৈয়দ ফাহিমা রুমী, ঢাকা মহানগরের ফরিদ উদ্দিন, কৃষক দলের খলিলুর রহমান ও ভিপি ইব্রাহিম প্রমুখ বক্তব্য দেন।




এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

প্রিয়তি ধর্ষণ চেষ্টা, তদন্তে ইন্টারপোল!

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীতে জাতীয় সংসদের বিশেষ আয়োজন

প্রার্থী হচ্ছেন না খালেদা জিয়া

সাকিব আবার শীর্ষে

দোষী ৬৭ জন ১৮ থেকে ২৩ তলা অবৈধ

নারী হতে বাংলাদেশির অস্ত্রোপচার গুজরাটে

সিমলায় আটকে আছে তদন্ত!

অনির্বাচিত সরকারকে গ্রহণ করার মূল্য দিচ্ছে জনগণ

ট্রেনের আগাম টিকিট বিক্রি শুরু অনলাইনে চরম ভোগান্তি

চাল আমদানিতে শুল্ক কর বাড়িয়ে দ্বিগুণ

বান্ধবীর বাসায় আশিকের মৃত্যু নানা রহস্য

সিলেটের ৫ গুণীজনকে রত্ন ফাউন্ডেশনের সংবর্ধনা

রোহিঙ্গাদের নিরাপদ প্রত্যাবাসনে বিশ্বাঙ্গনে একত্রে লড়বে দুই দেশ

অধ্যক্ষ ফের দুই দিনের রিমান্ডে

ঢাকার ৮৪ ভাগ বহুতল ভবনই ত্রুটিপূর্র্ণ

পা হারানো রাসেলকে বাকি টাকা দেয়নি গ্রীনলাইন তীব্র ক্ষোভ হাইকোর্টের