পশ্চিমবঙ্গে উল্কার গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে বিজেপি

বিশ্বজমিন

কলকাতা প্রতিনিধি | ২৩ মে ২০১৯, বৃহস্পতিবার | সর্বশেষ আপডেট: ৬:১৮
জয় পরাজয়ের এখনও অনেক দেরি। কিন্তু পশ্চিমবঙ্গের এখনকার ভোট ফলের চিত্রটি বুথ ফেরত জরিপের ইঙ্গিতকেই সমর্থন জানাচ্ছে। নির্বাচন কমিশন সূত্রে পাওয়া খবরে জানা গেছে, বেলা সাড়ে ১১টা পর্যন্ত যে প্রাথমিক ট্রেন্ড তাতে তৃণমূল কংগ্রেসের সঙ্গে বিজেপি অনেকটাই টক্কর দিচ্ছে। তৃণমূল কংগ্রেস যেখানে এগিয়ে ২৪টি আসনে সেখানে বিজেপি ১৭টি আসনে এগিয়ে । আর কংগ্রেস এগিয়ে ১টি আসনে। বামরা কোনও আসনেই এগিয়ে নেই বলে ইতিমধ্যেই স্পষ্ট হয়েছে। যত বেশি রাউন্ড গণনা এগিয়ে যাবে ততই প্রাথমিক ফলের এদিক ওদিক সম্ভাবনা থাকবে। তবে নির্বাচনী পর্যবেক্ষকদের মতে, ফলাফল যা-ই হোক না কেন, পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি উল্কার গতিতে এগিয়ে এসেছে।
এবারের ভোটের ট্রেন্ড থেকে জানা গেছে, তৃণমূল কংগ্রেস যেখানে শতাংশের হিসেবে ৪৫ শতাংশ ভোট পেয়েছে সেখানে বিজেপি ৩৯ শতাংশ ভোট পেয়ে দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছে। বাম ও কংগ্রেস রাজ্যে একেবারে প্রান্তিক অবস্থায় গিয়ে পৌঁছেছে। বামরা পেয়েছে মাত্র ৭ শতাংশ এবং কংগ্রেস পেয়েছে ৫ শতাংশ ভোট। অথচ পশ্চিমবঙ্গে গতবার বিজেপি মাত্র ২টি আসন পেয়েছিল। তৃণমূল কংগ্রেস পেয়েছিল ৩৪টি আসনে। অন্যদিকে কংগ্রেস পেয়েছিল ৪টি আসন এবং বামফ্রন্ট পেয়েছিল ২টি আসন। এবার রাজ্যে প্রবল মেরুকরণের রাজনীতির ফলেই বিজেপির উত্থানের সম্ভাবনার কথা আগেই বলা হয়েছিল। ইতিমধ্যেই কলকাতার মুরলীধর সেন লেনের বিজেপি অফিসের সামনে বিজেপি সমর্থক ও কর্মীদের জমায়েত ক্রমশ বাড়ছে। সমর্থকদের মধ্যে বিশেষভাবে তৈরি গেঞ্জি বিলি শুরু হয়ে গিয়েছে। এই গেঞ্জির সামনে মোদীর ছবি, পেছনে ছবি বিজেপির প্রতীক পদ্মফুলের। বিজেপি সূত্রের খবর, ফলের ক্ষেত্রে খানিকটা নিশ্চয়তা পাওয়া মাত্রই বিজেপি উৎসব করছে মিষ্টি বিলি করে। তবে রাজ্যের ভোট ফলের প্রাথমিক ট্রেন্ড থেকে জানা গেছে, তৃণমূল কংগ্রেসের প্রায় সব অভিনেতা ও অভিনেত্রী প্রাথীরা এগিয়ে চলেছেন জয়ের দিকে। একমাত্র ব্যতিক্রম আসানসোল কেন্দ্র। বুথ ফেরত জরিপে বলা হয়েছিল এই আসনে জিতবেন সুচিত্রা সেনের কন্যা মুনমুন সেন। কিন্তু প্রাথমিক ট্রেন্ড থেকে জানা গেছে, এই কেন্দ্র থেকে বিপুল ভোটে এগিয়ে রয়েছেন গতবারের এমপি ও গায়ক বাবুল সুপ্রিয়। হুগলি কেন্দ্রে বিজেপি প্রার্থী অভিনেত্রী লকেট চট্টোপাধ্রায় এগিয়ে রয়েছেন। তবে ঘাটালে এগিয়ে তৃণমূল কংগ্রেসের গতবারের বিজয়ী প্রার্থী, নায়ক দেব। বীরভূমে এগিয়ে অভিনেত্রী শতাব্দী রায়। অন্যদিকে এবার যে দুই অভিনেত্রী প্রার্থীর প্রতি আকর্ষণ ছিল সবচেয়ে বেশি সেই তৃণমূল কংগ্রেসের মিমি চক্রবর্তী এবং নুসরাত জাহান এগিয়ে রয়েছেন। মিমি প্রার্থী হয়েছেন যাদবপুর কেন্দ্রে এবং নুসরাত প্রার্থী হয়েছেন বসিরহাট কেন্দ্রে। তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভাইপো তৃণমূল যুব কংগ্রেসের প্রধান অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় বিপুল ভোটে এগিয়ে চলেছেন।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

‘নিজের সঙ্গে যুদ্ধে জিতেছি’

রেকর্ড ম্যান সাকিব

এই লিটনকেই দেখতে চায় বাংলাদেশ

মারা গেলেন মিসরের সাবেক প্রেসিডেন্ট মোরসি

বিরোধিতার মুখে ১৫ হাজার কোটি টাকার সম্পূরক বাজেট পাস

লাল-সবুজের ‘ফেরিওয়ালা’ বিলেতি নারী

‘যে’ কারণে রুবেল নয়, লিটন

স্বরূপে মোস্তাফিজ, ফর্ম জারি সাইফুদ্দিনের

ভাগ্নেকে ফিরে পেতে সোহেল তাজের সংবাদ সম্মেলন

বছরে বিশ্বজুড়ে আড়াই কোটি শরণার্থী পাড়ি দেন ২শ’ কোটি কিলোমিটার পথ

দুশ্চিন্তায় সঞ্চয়পত্রের গ্রাহকরা

‘গণপিটুনির ভয়ে পলাতক ছিলেন’

ব্যাংকে টাকা আছে, তবে লুটে খাওয়ার মতো টাকা নেই

‘রোল মডেল’ হতে চায় সিলেট বিএনপি

ভুল করেই পাসপোর্ট সঙ্গে নেননি পাইলট ফজল

দেশে ফিরতে রাজি ভূমধ্যসাগরে আটকা ৬৪ বাংলাদেশি