আসিফ নজরুলের প্রশ্ন

কিসের ঐক্যফ্রন্ট ? (অডিও)

প্রথম পাতা

স্টাফ রিপোর্টার | ২৫ মে ২০১৯, শনিবার | সর্বশেষ আপডেট: ৩:২৮
বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের লজ্জা থাকা উচিত বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের প্রফেসর ড. আসিফ নজরুল। তিনি বলেন, এত বড় একটা জঘন্য নির্বাচন হয়ে গেল, বাংলাদেশের প্রত্যেকটা মানুষ যার সাক্ষী। অথচ আমরা নির্বাচনের দিন বেলা ১১টার দিকে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে বলতে শুনলাম নির্বাচন সুষ্ঠু হচ্ছে। উনার লজ্জা হওয়া উচিত। আমরা বাংলাদেশের প্রত্যেকটা মানুষ নির্বাচনের দুই তিনদিন আগে থেকে জানি কি হচ্ছে। আর উনি জানেন না নির্বাচনে কি হচ্ছে? শনিবার সন্ধ্যায় সুপ্রিম কোর্ট মিলনায়তনে নাগরিক ঐক্যের আয়োজনে ইফতার মাহফিলে তিনি এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, আমরা দেখেছি আগেরকার দিনে দেশে কোনো হত্যাকাণ্ড হলে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রীর পদত্যাগ চাওয়া হতো। যখন একটা নির্বাচনে ব্যাপক কারচুপি হতো, যেমন মাগুরা মার্কা নির্বাচন। তখন পুরো সরকারের পদত্যাগ দাবি করা হতো। আমরা দেখতাম পত্রিকায় এরশাদের দুর্নীতি সম্পর্কে যা ইচ্ছা তাই লেখা যেতো। তারেক রহমান ও কোকো সম্পর্কে যা ইচ্ছা তাই লেখা যেতো। প্রায় প্রত্যেক সপ্তাহে রাজপথে বিরোধী দলের আন্দোলন হতো। এখন কি কেউ খেয়াল করে দেখেছেন এতো হত্যাকাণ্ড হয়, এতো গুম হয়। তারপরও কেউ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি করতে পারে? স্বরাষ্ট্র মন্ত্রীর পদত্যাগ দাবিকারী এই কথাটি বলার ক্ষমতা কারো নেই। এই কথাটা বলার পরিবেশ এখন নেই। শুধু একটা আসনে নয়, পুরো দেশের নির্বাচন আগের রাতে গুম হয়ে যায়। মানুষের কথা বলার সাহস থাকেনা। আমি ৫/৬ বছর আগে একটা লেখা লিখেছিলাম ‘গুম হয়ে যাচ্ছে গণতন্ত্র’। তখন কেউ কেউ হেসেছিলেন। এখন আমার মনে হয় গুম হয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। গুম হয়ে যাচ্ছে রাষ্ট্র। এই রাষ্ট্রের সত্ত্বা যেটা, বৈশিষ্ট যেটা এই রাষ্ট্রের চেতনা যেটা এর সমস্ত কিছু যদি লুন্ঠিত হয়ে যায়। তাহলে তো আর রাষ্ট্র থাকে না। আমরা সেই রকম একটা জায়গায় চলে গেছি। এই রকম একটা জায়গা থেকে ঐক্যফ্রন্টকে আরো অনেক শক্ত ভূমিকা পালন করতে হবে। অনেক বিস্তৃত ভূমিকা পালন করতে হবে। আমরা আপনাদের সমালোচনা করিনা, কিন্তু কিছু কিছু বিষয় আমাদের খুবই কষ্ট দেয়। এই রকম একটা জঘন্যতম নির্বাচন হল। আপনারা পরেরদিন একটা হরতালও ডাকতে পারলেন না। আজ পর্যন্ত একটা কর্মসূচি দিতে পারলেন না। আশ্চর্য লাগে এটা একটা পলিটিক্স? আমি সারাজীবন রাজনীতির উপর কাভার স্টোরি করেছি। এতো বড় একটা জঘন্য নির্বাচন, বাংলাদেশের প্রত্যেকটা মানুষ যার সাক্ষী। এটার প্রতিবাদ যদি না করতে পারে তাহলে কিসের ঐক্যফ্রন্ট। সরি, আমি আজ এভাবে কথা বলছি। আমরা নির্বাচনের দিন বেলা ১১টার দিকে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে বলতে শুনলাম নির্বাচন সুষ্ঠু হচ্ছে। উনার লজ্জা হওয়া উচিৎ। আমরা বাংলাদেশের প্রত্যেকটা মানুষ নির্বাচনের দুই তিন দিন আগে থেকে জানি কি হচ্ছে। আর উনি জানেন না নির্বাচনে কি হচ্ছে? উনি এখানে থাকলে ভালো হতো। উনি আসলে বলবেন আমি বলেছি লজ্জা হওয়া উচিৎ। এই রকম যদি বিরোধী দল হয় তাহলে বাংলাদেশে ভোটাধিকার আমরা কখনো ফিরে পাব না। সরকারের অনেক দোষ আছে। তাদের যতো দোষ থাকবে বিরোধী ঐক্যকে ততো স্মার্ট, ততো শক্ত এবং ততো ব্যাপক হতে হবে। বিরোধী দল যদি তাদের দায়িত্ব পালন করতে না পারে তাহলে আপনাদের কাছে আশা করার কিছু নেই।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

shanto

২০১৯-০৫-২৬ ০২:৪২:৪৮

আসিফ স্যার শ্রুদ্ধা রেখে বলছি, বলা সহজ কিন্তু এই প্রতিকুল পরিস্থতিতে নেতা বিহীন বিএনপির পক্ষে আর কিছু করা সম্ভব নয়। আপনার সাথে সহমত। আপনি জানেন বিএনপি কোন সংগ্রামের মধ্যদিয়ে সৃস্ট দল নয়। ক্ষমতায় বসে জিয়া দল গঠন করেছিলেন। জিয়া হয়ত ভাল ছিলেন, কিন্ত তার দলে কেউ ত্যাগী নেতা ছিলেননা। কমবেশী সবাই ক্ষমতা লোভীছিলেন। পল্টি খাওয়া লোকজন নিয়ে বিএনপি গঠন করেন। তার পুত্র তারেক মায়ের ক্ষমতা ব্যাবহার করে ধরাকে সরা জ্ঞান করেছিল। এটা মানুষ ভুলেনি। সেযদি রাহুল গান্ধীকে অনুসরন করত তাহলে বিএনপি আজ নেতা শূন্য হত না আর তার মা কেও জেলে পচে মরতে হতনা। নেতাশূন্য বিএনপি বা মি ফখরুল দিয়ে কিছু হবেনা। নতুন ত্যাগীনেতা দরকার। ভারতের দিকে তাকান ধর্মভিত্তিক রাজনীতিই ৩য় বিশ্বের জন্য পারফেক্ট।

ওস্তাদ গিরগির খাঁ।

২০১৯-০৫-২৬ ০০:০৪:০৫

জনাব শফিক কে বলছি- আপনি হিন্দুস্থানের নির্বাচনের উধারণ দিয়েছেন, তাহলে শুনুন আপনাকে ও আপনার মতো কথিত শান্তিপ্রিয় চেতনাধারীদেরকে বলছি, ইন্ডিয়ার আমজনতা আবারো মৌলবাদি মোদিকে বিপুল ভোটে নির্বাচিত করেছে এজন্যে যে, ধর্ম ছাড়া রাতনীতি , দেশের স্বার্থ, সমাজ কোন কিছুই চলতে পারে না। যেখানে ধর্মের আধিপত্য নেই সেখানে ব্যক্তি পুজা মূখ্য হয়ে যায়। যার উৎকৃষ্ঠ উধারণ বাংলাদেশ।

সফিক

২০১৯-০৫-২৫ ২২:০৮:৫৪

আসিফ স্যার, ভালো কথা বলেছেন। কিন্তু, কেন জনগন ওনাদের কথায় মাঠে নামে না, হরতাল, অবরোধ, হত্যা জালাও পোড়ায়ও এসব কি রাজ-নীতি হতেপারে, সদ্য সমাপ্ত ভারতের নির্বাচনের ফলাফল কে কংগ্রেস সুন্দরতম ভাষায় বরন করে নিয়েছেন, তা কি আপনি দেখেছেন, জনাব, বাংলার মানুষ শান্তিতে থাকতে চায়, তাতে দেশে কার ভোট কে দিলো এসবে তাদের মাথা ব্যাথা নে ই, কোন খারাপ ইঈিত করে দেশ কে অস্তীতিশীল করবেন না অনুরোধ রইলো,( আমরা পরিবার নিয়ে একটু শন্তিতে থাকতে চাই।)

younusur rahman

২০১৯-০৫-২৫ ২০:৫৩:৫৬

বাঁশের চেয়ে কঞ্চি বড়। শিক্ষকরা এমনিতেই নিজেদের পন্ডিত মনে করে আর ঢাবি হলেতো কথাই নাই। দলের মহাসচিব কি বলবে তার সমালচনা করে তুমি কি উদ্ধার করতে চাও? পাকনামি কারে কয় তা এই আসিফের কাছ থেকে শিক্ষা নেওয়া উচিত। বেটা রাজনীতির করেনা কিন্তু খালি অপ্রয়োজনীয় ফাও কথা বলতে উস্তাদ।

বাহাউদ্দীন বাবলু

২০১৯-০৫-২৫ ২০:০৪:১৪

ধন্যবাদ স্যারকে,আমার মনের কথাগুলো বলার জন্য।

Ruhul

২০১৯-০৫-২৫ ১৫:৪২:৪১

ক্ষমতা কেহই ছাড়তে চায় না ! বাংলাদেশের বর্তমান অবস্থার জন্য শুধু কি শেখ হাসিনা দায়ী ? বিরোধিতা দলের ভোল সিদ্ধান্ত , রাজনৈতিক অদুরদশিতা , এগুয়েমিতা দায়ী নয় কি ?

Ramizukhan

২০১৯-০৫-২৫ ১৪:২৯:২৮

জনাব , আপনার মন্তব্য বেশী দেরী হয়ে গেছে। যথা সময়ে বলা উচিত ছিল।

ওমর ফারুক

২০১৯-০৫-২৫ ১৩:৩১:২১

ডঃ আসিফ, মাঠে নামতে হবে। জনগনকে আহ্বান করতে হবে। তবেই জনগন ৭১ এর মত সজাগ হবে।

শামসুর রহমান উজ্জল

২০১৯-০৫-২৫ ১২:৫৪:১৮

ঘরে বসে একাডেমিক কথা বলে কোন লাভ নেই স্যার। সরাসরি মাঠে নেমে নেতৃত্ব দেন। নতুন ধারণার রাজনীতি শুরু হওয়া বড় প্রয়োজন।

Sayed Murrad

২০১৯-০৫-২৫ ১০:১০:৩৮

হক কথা এই সব ভদ্রলোক দিয়ে আমরা কি করব? ফাকরুল সাহেবকে দিয়ে দেশ কি করবে?

SAZZAD

২০১৯-০৫-২৫ ০৯:৪০:০৭

100% sotti

জাফর আহমেদ

২০১৯-০৫-২৫ ০৯:৩২:৪৮

ধন্যবাদ জনাব আসিফ নজরুল সাহেব। আপনার সাহসী বক্তব্যের জন্য। জনাব আপনার লজ্জা লাগবে কারণ আপনার লজ্জা আছে। আপনার কি মনে হয় আপনি যাদের বলেছেন তাদের গায়ে আপনার কথা গুলো লেগেছে? কারণ তারা নির্লজ্জ এবং বেশিরভাগ সরকারের দালাল।

Manirul Haque

২০১৯-০৫-২৫ ০৯:২২:০০

Thanks for being the voice of millions. Well said Dr. Asif.

jewel ahmed

২০১৯-০৫-২৫ ০৯:১০:১৭

আপনাকে অনেক অনেক ধন্যবাদ স্যার, হক কথা বলার জন্য।

Harun

২০১৯-০৫-২৫ ০৯:০৪:২৩

Great comments.

হাবিবুর রহমান

২০১৯-০৫-২৫ ০৮:২৪:৪০

আপনি রাজপথে নামুন এবং দেশবাসিকে আহ্বান জানান , মির্জা ফখরুলের মত অতি ভদ্রলোকের দরকার নাই।

আপনার মতামত দিন

আফগানিস্তানে দিনে গড়ে নিহত ৭৪

কুষ্টিয়ায় ২৪ ঘণ্টায় আরও ২৭ ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে

চাঁদাবাজির অভিযোগে সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আটক

ইমরান-মোদির সঙ্গে সাক্ষাত করবেন ট্রাম্প

চট্টগ্রাম নির্বাচন অফিসের কর্মচারিসহ আটক ৩

ইতালিতে বাংলাদেশী যুবকের সততা

সেই নবজাতকের স্থান হচ্ছে ছোটমনি নিবাসে

আপত্তিকর ভিডিও নিয়ে বিভ্রান্ত না হওয়ার অনুরোধ মেহজাবিনের

গাজীপুরে বাসচাপায় নিহত ২

পার্লামেন্ট স্থগিত নিয়ে বৃটিশ সুপ্রিম কোর্টের রায় আজ

৫ মাসের মধ্যে ইসরাইলে আজ আবার নির্বাচন

পাকিস্তানে ইসলাম অবমাননার অভিযোগে হিন্দু শিক্ষক গ্রেপ্তার, মন্দিরে হামলা

কেন সৌদি ও ইরানের মধ্যে এত দ্বন্দ্ব

বন্ধুদের ডেকে এনে প্রেমিকাকে গণধর্ষণ

‘আমাদের নাটকের গল্পে বেশ পরিবর্তন এসেছে’

প্রাচীরে মোটরসাইকেলের ধাক্কা, ইউপি সদস্য নিহত