অস্ট্রেলিয়ায় সেই বাংলাদেশী যুবতীর ৪২ বছরের জেল

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ৫ জুন ২০১৯, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ১০:৫৫
সেই বাংলাদেশী মোমেনা সোমাকে সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে ৪২ বছরের জেল দিয়েছে অস্ট্রেলিয়া। তিনি স্টুডেন্ট ভিসায় ২০১৮ সালে অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার এক সপ্তাহের মধ্যে তাকে আশ্রয়দাতাকে ছুরিকাঘাত করে হত্যা চেষ্টার অভিযোগে অভিযুক্ত হয়েছেন। এ অভিযোগে বুধবার তাকে ওই শাস্তি দিয়েছে আদালত। এ খবর দিয়েছে অনলাইন টিভি নিউজিল্যান্ড।

তিনি ২০১৮ সালে অস্ট্রেলিয়ায় যান। সেখানে মেলবোর্নে একটি বাড়িতে অতিথি হয়ে আশ্রয় নেন। ৯ই ফেব্রুয়ারি সেই বাড়ির মালিকের ৫ বছর বয়সী মেয়ের ওপর ছুরি নিয়ে আক্রমণ চালানোর চেষ্টা করেন। কিন্তু মালিক রজার সিঙ্গারাভেলু তার মেয়েকে ধাক্কা দিয়ে পাশে সরিয়ে দিয়ে তাকে রক্ষা করেন।
ফলে মোমেনা সোমা ছুরিকাঘাত করেন তার কাঁধে।

ঘটনার সময় সোমার বয়স ছিল ২৪ বছর। এ নিয়ে অনেকদিন ধরে অস্ট্রেলিয়ায় মামলা চলছে। বুধবার মামলার রায় দেন বিচারপতি লেসলি অ্যান টেইলর। তিনি ওই হামলাকে জঘন্য ও কাপুরুষোচিত বলে আখ্যায়িত করেন এবং সোমাকে ৪২ বছরের জেল দেন। এর মধ্যে ৩১ বছর ৬ মাসের মধ্যে তিনি কোনো প্যারোল সুবিধা পাবেন না। অর্থাৎ ৩১ বছর ৬ মাস তাকে জেলে থাকতেই হবে।

মোমেনা সোমা ভাষাতত্ত্ববিদ্যায় মাস্টার্স করতে যান লা ট্রোবে ইউনিভার্সিটিতে। কিন্তু অস্ট্রেলিয়ায় পৌঁছানোর পর কারো ওপর হামলা চালানোর চেষ্টা করছিলেন বলে রিপোর্টে বলা হয়েছে। এ বিষয়ে মোমেনা পুলিশকে বলেছেন, তিনি অস্ট্রেলিয়ায় যাওয়ার পর অন্য একটি পরিবারের সঙ্গে অবস্থান করছিলেন কয়েক দিন। সেখানেই তিনি একটি বালিশ নিয়ে ছুরিকাঘাতের প্রাকটিস করেছেন।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

বিশ্লেষক হিসেবে প্রতিবন্ধী শিশুদের খুঁজছে বৃটিশ গুপ্তচর সংস্থা

পর্নো ব্যবসা এত বিপুল হয়ে উঠলো কীভাবে : পর্ব ১

‘সেগুলোতে কাজ করার আগ্রহ পাই না’

পদ হারালেন ওমর ফারুক

১০ বছর আমার চেহারা ভালো ছিলো এখন খারাপ হয়েছে: ওমর ফারুক চৌধুরী

যুবলীগের প্রস্তুতি কমিটি গঠন

সিঙ্গাপুরে রাজার হালে ক্যাসিনো ডন সাঈদ

মোহাম্মদপুরের সুলতানের পতন

ঢাবি অ্যালামনাই এসোসিয়েশনে কেন যেতেন জি কে শামীম

সম্রাটের অস্ত্র ভাণ্ডারের খোঁজ মিলেছে

পাক-ভারত সীমান্তে গুলির লড়াই

মেননের বক্তব্যে তোলপাড়

ঢাবিতে ফের ছাত্রদলের ওপর হামলা

খালেদা জিয়াকে দেখতে যাবেন ঐক্যফ্রন্ট নেতারা

মন্ত্রী হলে কি এ কথা বলতেন?

অবৈধ উপায়ে নির্বাচনে জয়ীদের কোনো বৈধতা থাকে না