‘আমি ফিট, জোর করে আমাকে বাদ দেয়া হয়েছে’

ক্রিকেট বিশ্বকাপ-২০১৯

স্পোর্টস ডেস্ক | ১০ জুন ২০১৯, সোমবার | সর্বশেষ আপডেট: ১:৩১
বিশ্বকাপ শুরুর মাসখানেক আগে নিয়মিত অধিনায়ক আসগর আফগানকে অধিনায়কত্ব থেকে সরিয়ে দিয়ে বিতর্কের জন্ম দিয়েছিল আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ড। এবার মোহাম্মদ শাহজাদকে স্কোয়াড থেকে বাদ দেয়া নিয়ে সৃষ্টি হয়েছে নতুন বিতর্ক।  শাহজাদ জানিয়েছেন ফিট থাকার পরও আফগান ক্রিকেট বোর্ড তাকে জোর করে বাদ দিয়েছে। বিশ্বকাপ শুরু হওয়ার আগে পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচে হাঁটুর ইনজুরিতে পড়েন শাহজাদ। ব্যথার তীব্রতা বেড়ে যাওয়ায় ওই ম্যাচে আর ব্যাটিংই করতে পারেননি তিনি। এরপরও বিশ্বকাপে আফগানিস্তানের হয়ে দুই ম্যাচ খেলেছেন এই ক্রিকেটার। কিন্তু ভালো পারফরম্যান্স করতে পারেননি। পরে শাহজাদের ইনজুরির খবর জানিয়ে তাকে দল থেকে বাদ দেয় আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ড। শাহজাদের বদলি হিসেবে ইকরাম আলি খিলকে দলে ডাকা হয়।
শনিবার নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচও খেলেন এই ক্রিকেটার। কিন্তু সেই ম্যাচে দলের হয়ে আশানুরূপ পারফরম্যান্স করতে পারেননি তিনি। ২২ বল খেলে মাত্র ২ রান করেন এই উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান। শাহজাদ আজই ইংল্যান্ড থেকে দেশে ফিরবেন। তবে দেশে ফেরার আগে আফগানিস্তানের সংবাদ মাধ্যমকে এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান বলেন, ‘ইনজুরি নিয়ে আমার কোনো সমস্যা নেই। আমি সম্পূর্ণ ফিট আছি। কিন্তু আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ড কোনো পরামর্শ না করেই আমাকে জোর করে দল থেকে বাদ দিলো।’

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

আবরার ইস্যুতে বিবৃতি দেয়ায় জাতিসংঘ দূতকে তলব

বুয়েটে ভর্তি পরীক্ষা আজ কাল থেকে ফের আন্দোলন

পুলিশের বাধায় ঐক্যফ্রন্টের র‌্যালি পণ্ড

সঞ্চয়পত্র বিক্রি কমছে ব্যাংক খাতে সরকারের ঋণ বাড়ছে

মাহিমের চোখের সামনেই মাকে কেড়ে নিল ঘাতক ভ্যান

রাজীবের দুই ভাইকে ১০ লাখ টাকা দেয়ার নির্দেশ

শেখ হাসিনার অ্যাকশন শুরু হয়ে গেছে : কাদের

এবছর ভারতের চেয়ে বেশি দ্রুত বাড়বে বাংলাদেশের অর্থনীতি: বিশ্বব্যাংক

‘আবরার তখন মাগো মাগো বলে চিৎকার করছিলো’

মেজর হাফিজের জামিন

দুর্যোগ মোকাবিলায় বাংলাদেশ রোল মডেল

পুরো ক্যাম্প নিয়ন্ত্রণ নয়, কাঁটাতারের বেড়া নির্মাণ করবে সেনাবাহিনী

আমার ছেলে নির্দোষ

আবরারের ভাইকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সহযোগিতা দিতে প্রস্তুত: আইনমন্ত্রী

‘নকল করে ফার্স্ট ক্লাস ফার্স্ট হয়ে কোনো লাভ হবে না’

ক্যানসারে এক বছরে দেড় লাখের বেশি আক্রান্ত মৃত্যু এক লাখ ৮ হাজার