খালেদা জিয়া মুক্ত না হওয়া পর্যন্ত ঐক্য থাকবে, আন্দোলন চলবে- আ স ম রব

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার | ১০ জুন ২০১৯, সোমবার, ৭:২৯
বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া মুক্ত না হওয়া পর্যন্ত জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের ঐক্য থাকবে, আন্দোলনও চলবে বলে মন্তব্য করেছেন জেএসডি সভাপতি আ স ম আবদুর রব।

 আজ বিকাল ৪ টায় রজধানীর উত্তরায় জেএসডি সভাপতি আ স ম আবদুর রবের বাসায় এক বৈঠকে বসেন ফ্রন্টের নেতারা। সন্ধ্যা ৬ টায় বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের কাছে তিনি এ কথা বলেন। তিনি বলেন, হাজার হাজার নেতাকর্মী কারাগারে, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া কারাগারে। আমাদের ঘুম নেই। তাদেরকে মুক্ত ও গণতন্ত্রের মুক্তি না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন সংগ্রাম ও ঐক্য অব্যহত থাকবে। তিনি আরো বলেন, আমরা জনগণের কাছে যে প্রতিশ্রুতি নিয়ে ঐক্য গঠন করেছিলাম তা এখনো পর্যন্ত পূরণ করতে পারিনি। আপনারা নিশ্চিত থাকেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ঐক্যবদ্ধ আছে এবং আমাদের ঐক্য আরো শক্তিশালী করে জনগণের দাবি আদায় করা হবে।

রব বলেন, আপনার জনগণের অংশ, আমাদের অংশ। আপনারা সবসময় পজেটিভ নিউজ করবেন। এমন কোন নিউজ করবেন না, যেটাতে জাতির ক্ষতি হয় এবং জাতীয় ঐক্য ক্ষতিগ্রস্ত হয়। তিনি বলেন, আজ আমরা পরবর্তী কর্মসূচি নির্ধারণের জন্য যে সভায় বসেছিলাম সে বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। আমাদের নেতা ড. কামাল হোসেন অসুস্থ তাই তিনি আজকের সভায় উপস্থিত হতে পারেননি। তিনি সুস্থ হলে আমরা তার নেতৃত্বে পরবর্তীতে পূর্নাঙ্গ সভা করে সেখানেই আমাদের করণীয় বিষয় সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবো।

আ স ম আবদুর রবের সভাপতিত্বে বৈঠকে আরো উপস্থিত ছিলেন, বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ড.  আবদুল মঈন খান, জেএসডি সহ সভাপতি তানিয়া রব, সাধারণ সম্পাদক আবদুল মালেক রতন, শহিদ উদ্দীন আল মাহমুদ স্বপন, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী, সাধারণ সম্পাদক হাবীবুর রহমান তালুকদার বীর প্রতীক, ইকবাল সিদ্দিকী, গণফোরাম নির্বাহী সভাপতি অধ্যাপক আবু সায়ইদ, অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক ড. রেজা কিবরিয়া, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ট্রাস্টি ডা.  জাফরুল্লাহ চৌধুরী, নাগরিক ঐক্যের কেন্দ্রীয় নেতা মমিনুল ইসলাম, ডা. জাহিদ।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Kazi

২০১৯-০৬-১১ ০৩:১০:০৯

It means there will be no unity after khaleda Zia released.

আপনার মতামত দিন

ব্যাংক নোটের আদলে টোকেন ব্যবহার দণ্ডনীয়

পুলিশ এতদিন কি করছিল?

সিরিজ বোমা হামলা: ৫ জেএমবি সদস্যের কারাদণ্ড

কুষ্টিয়ায় মাদক মামলায় ৫ জনের যাবজ্জীবন

বিচারকদের ফেসবুক ব্যবহারে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশনা

পাষণ্ড ছেলে...

যমুনায় নৌকা ডুবি, নিহত ১

ফাইনালে অনিশ্চিত রশিদ খান

ঢাবিতে ছাত্রদল-ছাত্রলীগের অবস্থান, স্লোগান, উত্তেজনা

আগস্টে ইন্টারনেট সংযোগ বেড়েছে ২০ লাখ: বিটিআরসি

সৌদি আরবে হামলা থামানোর প্রস্তাব হুতির, সমর্থন জাতিসংঘের

‘জাবিতে ভিসিবিরোধী আন্দোলন, সাবেক ভিসির এজেন্ডা’

জাবি’র ভর্তি পরীক্ষা শুরু, ২০ কোটি টাকার ফরম বিক্রি

পরিস্কার পরিচ্ছন্নতাকর্মীদের মানবেতর জীবন যাপন

‘দেশটা জুয়াড়িদের দেশ হয়ে গেছে’

মাকে বাঁচাতে সন্তানের আকুতি