মালিতে আদিবাসী অধ্যুষিত গ্রামে বন্দুকধারীদের হামলায় নিহত ৯৫

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১১ জুন ২০১৯, মঙ্গলবার
মালির মধ্যাঞ্চলে আদিবাসী গোষ্ঠী ‘ডগন’ অধ্যুষিত এক গ্রামে বন্দুকধারীদের হামলায় অন্তত ৯৫ জন নিহত হয়েছেন। হত্যার পর পুড়িয়ে দেয়া হয়েছে তাদের মৃতদেহ। রোববার সাঙ্গা শহরের নিকটবর্তী গ্রাম সোবানে-কৌ’তে এ ঘটনা ঘটে। এ খবর দিয়েছে ফ্রান্স টুয়েন্টি ফোর ও বিবিসি।
স্থানীয় কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে খবরে বলা হয়, অন্তত ৯৫ জনকে হত্যার পর তাদের মৃতদেহ পুড়িয়ে দেয়া হয়েছে। মৃতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে। মৃতদের দেহ উদ্ধারের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।
উল্লেখ্য, মালিতে সামপ্রতিক মাসগুলোতে তীব্র আকার ধারণ করেছে বিভিন্ন দলের হামলা। এর মধ্যে কিছু হামলা চালিয়েছে জিহাদিরা আর কিছু হামলা হয়েছে আদিবাসীদের দু’পক্ষের মধ্যে। বিশেষ করে শিকারি গোষ্ঠী ডগন ও যাযাবর পশুপালক গোষ্ঠী ফুলানিদের মধ্যে প্রায়ই হামলা ও পাল্টা হামলার ঘটনা ঘটে।
নিকটবর্তী বাংকাস শহরের মেয়র মৌলায়ে গুয়িন্দো বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে বলেন, রোববার সন্ধ্যার পরপর ফুলানিরা সোবানে কৌ গ্রামে হামলা চালায়।
এদিকে, স্থানীয় এক কর্মকর্তা বার্তা সংস্থা এএফপিকে জানান, এখন পর্যন্ত আমরা ৯৫ জন বেসামরিকের মৃত্যু নিশ্চিত করতে পেরেছি। তবে, আমরা আরো নিহতের জন্য খোঁজ অব্যাহত রেখেছি।
উল্লেখ্য, ২০১২ সালে মালির উত্তরাঞ্চলে ইসলামি জঙ্গিদের উত্থান ঘটে। এরপর থেকে সেখানে এসব আদিবাসী দলগুলোর মধ্যে হামলার ঘটনা বৃদ্ধি পেয়েছে। এই অঞ্চলেই চলতি বছরের মার্চ মাসে ডগনদের হামলায় মারা যায় ১৩০ জন ফুলানি। পূর্বে দু’পক্ষের মধ্যে বিভিন্ন সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষর হলেও কোনো পক্ষই চুক্তি মেনে চলেনি। জঙ্গিবাদের উত্থানের সঙ্গে ওই অঞ্চলে সরকারের নিয়ন্ত্রণ হ্রাস পায়। এতে করে বাড়ে অস্ত্রের সহজলভ্যতা। আর তার সঙ্গে বাড়ে সহিংসতাও। উভয়পক্ষই অপরপক্ষকে উত্তেজনা বৃদ্ধির জন্য দোষারোপ করে আসছে।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Alamu

২০১৯-০৬-১৩ ০২:৪৭:৩৬

Era muslim bolen na kano?

আপনার মতামত দিন

সাইফউদ্দিনকে ছাড়াই কী খেলতে হবে?

রবিন হুডের শহরে বড় আশায় মাশরাফি

হঠাৎ বদলে গেল আয়াজের জীবন

পায়রা বিদ্যুৎকেন্দ্রে সংঘর্ষ চীনা শ্রমিক নিহত

আসামি সিরাজকে রিমান্ড শেষে কারাগারে প্রেরণ

৩০ লাখ শহীদকে চিহ্নিত করার পরিকল্পনা নেয়া হচ্ছে: সংসদে প্রধানমন্ত্রী

শাজাহান খানের ভাইয়ের কাছে হারলেন নৌকার প্রার্থী

আন্দোলনে উত্তাল বুয়েট

কর্তৃত্ববাদী শাসনের অনিশ্চিত গন্তব্যে বাংলাদেশ

বাজেট নিয়ে অনেক প্রশ্নের উত্তর চান রুমিন ফারহানা

মসজিদে ঘোষণা দিয়েও ভোটার আনা যাচ্ছে না

২ স্কুলছাত্রীসহ ৫ কিশোরী ধর্ষিত

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য হলেন টুকু-সেলিমা

সরকার কৌশল করে খালেদা জিয়াকে জামিন দিচ্ছে না: মির্জা ফখরুল

দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গকারীদের শাস্তি দেয়া হবে: কাদের

আমলা-কোহলির মধুর লড়াই