২৩ বছর পর মুক্ত মর্জিনা

বাংলারজমিন

বাগেরহাট প্রতিনিধি | ১২ জুন ২০১৯, বুধবার
হত্যা মামলায় ২৩ বছর সাজা ভোগের পরে মুক্তি পেয়েছে মর্জিনা বেগম (৫২)। দীর্ঘ কারাভোগের পর মুক্ত হয়ে বাড়ি ফেরার সময় তাকে একটি সেলাই মেশিন প্রদান করেছে কারা কর্তৃপক্ষ। গতকাল দুপুরে জেলা কারাগার গেটে ওই নারীর হাতে সেলাই মেশিন তুলে দেন জেল সুপার গোলাম দস্তগীর। এসময় জেলার এসএম মহিউদ্দিন হায়দার, সমাজসেবা অধিদপ্তরের প্রবেশন অফিসার এসএম নাজমুস সাকিবসহ জেলা কারাগারের অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। মর্জিনা বেগম মোরেলগঞ্জ উপজেলার গুয়াবাড়িয়া গ্রামের সাহেব আলী শেখের স্ত্রী। জেলা কারাগার সূত্রে জানা যায়, ১৯৯৬ সালের ২০শে জুলাই স্বামীর বাড়িতে নিজ সতীনকে হত্যা করে মর্জিনা বেগম। ওইদিনই পুলিশ মর্জিনাকে গ্রেপ্তার করে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়। পরে মামলার সাক্ষী-প্রমাণ শেষে আদালত মর্জিনাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দেন। যশোর কারাগারে ১০ বছর এবং বাগেরহাট কারাগারে অবশিষ্ট ১৩ বছর কাটে মর্জিনা বেগমের। ভালো আচরণের জন্য ৭ বছর সাজা কমিয়ে গতকাল দুপুরে মর্জিনাকে মুক্তি দেয় কর্তৃপক্ষ।
মর্জিনা বলেন, জীবনের বেশির ভাগ সময় কারাগারে কাটিয়েছি। এখানে স্যারদের কথামতো চলেছি। আজ মুক্ত হয়ে বাড়ি ফিরে যাচ্ছি। আমি যে সেলাই মেশিনটা পেয়েছি সেটা দিয়ে বাড়ির সামনে একটি দোকান দেওয়ার চেষ্টা করবো।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

সিলেটে বিএনপির সমাবেশ যথা সময়ে হবে : ডা. জাহিদ

ক্লাবগুলো কলঙ্কিত করলো যারা

আচমকা দৃশ্যপট বদলে গেল

প্রধানমন্ত্রী বলে গেছেন অভিযান অব্যাহত রাখতে

মোল্লা আবু কাওছার বিদেশে

ব্যাংক হিসাব জব্দ শামীমের অ্যাকাউন্টে ৩০০ কোটি টাকা

ক্যাসিনোপাড়ার শতাধিক বিদেশি লাপাত্তা

প্রতি রাতে উড়তো কোটি কোটি টাকা

ঢাবিতে ছাত্রদলের ওপর ছাত্রলীগের হামলা

নারায়ণগঞ্জে নব্য জেএমবি’র দুই সদস্যসহ গ্রেপ্তার ৩

নেতাকর্মীদের আগ্রহ নেই

যুবলীগের দপ্তর সম্পাদক নজরদারিতে

আফগানিস্তানে জঙ্গি ঘাঁটিতে সেনা অভিযানে বাংলাদেশি গ্রেপ্তার

ফু ওয়াং ক্লাবে পুলিশের অভিযান

ভারতে দেহব্যবসায় বাধ্য করানো ৮ বাংলাদেশি যুবতীকে উদ্ধার

গোল্ডেন ড্রাগন বারে চলছে পুলিশের অভিযান