পিজি হাসপাতালে নেওয়া হলো এ টি এম শামসুজ্জামানকে

বিনোদন

স্টাফ রিপোর্টার | ১৬ জুন ২০১৯, রোববার
বরেণ্য অভিনেতা এ টি এম শামসুজ্জামান টানা ৫০ দিন নিজ এলাকা গেন্ডারিয়ার আজগর আলী হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। আজ দুপুরে শাহবাগের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে নেওয়া হলো তাকে। আজ বেলা দুইটায় তাঁকে নতুন ঠিকানায় নেওয়া হয়। আজ থেকে তিনি থাকবেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের কেবিনে। এটি এম শামসুজ্জামানের মেজ মেয়ে কোয়েল বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, বাবা আগের চেয়ে বাবা ভালো আছেন। চিকিৎসকরা প্রয়োজনীয় চিকিৎসা দিয়েই নিয়মানুযায়ী ছাড়পত্র দিয়েছেন। তবে স্বাভাবিক জীবনে ফেরার জন্য তাঁকে আরও অনেক দিন অপেক্ষা করতে হবে।
চিকিৎসকের আওতায় কিছুদিন থাকতে হবে। তাই বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (পিজি)-তে নেওয়া হয়েছে বাবাকে। এখন বাবা স্বাভাবিক খাবার খাচ্ছেন।

কেবলমাত্র নার্সিং সেবার জন্য তাঁকে আমরা এখানে এনেছি। বাসার কিছু অবকাঠামোগত পরিবর্তনও করতে হবে। বাসার পরিবেশ ঠিক করে কিছুদিন পর তাকে বাসায় নেওয়া হবে। উল্লেখ্য, গত ২৬ শে এপ্রিল রাতে বাসায় অসুস্থ হয়ে পড়েন এ টি এম শামসুজ্জামান। সেদিন খুব শ্বাসকষ্ট হচ্ছিল তার। রাতে তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ টি এম শামসুজ্জামানের অন্ত্রে প্যাঁচ লেগেছিল বলে জানান ডাক্তার। সেখান থেকে আন্ত্রিক প্রতিবন্ধকতা। খাবার, তরল, পাকস্থলীর অ্যাসিড বা গ্যাস বাধাপ্রাপ্ত হয় এবং অন্ত্রের ওপর চাপ বেড়ে যায়। ফলে বিভিন্ন উপসর্গ দেখা দেয়। এসব সারাতেই অস্ত্রোপচার করা হয়। সেখান থেকে আরো কিছু জটিলতা হয়েছিল তাঁর।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

যানবাহনের অসুস্থ প্রতিযোগিতা বন্ধ করতে হবে

ক্রিকেটারদের ধর্মঘট ষড়যন্ত্রের অংশ

যেভাবে কোটিপতি ‘পলিথিন তবারক’

কীভাবে ভিআইপি লাউঞ্জ ব্যবহার করতেন সম্রাট?

ক্রিকেটারদের আন্দোলনে ফিকা’র সমর্থন

দুদকের আট কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অনুসন্ধান শুরু

ইডেন টেস্টে উপস্থিত থাকবেন শেখ হাসিনা

‘আমার মনে হয় বোর্ডের সবাই ব্যর্থ’

বিশ্বনাথে পংকি খান ও ফারুককে নিয়ে জল্পনা

পদ্মা সেতুর ১৫তম স্প্যান বসলো

ব্রেক্সিট চুক্তি পাস করাতে জনসনের শেষ প্রচেষ্টা

এনু-রূপণের ৩৫ কোটি টাকার অবৈধ সম্পদ

মাদক-দুর্নীতি-চাঁদাবাজি ও অনুপ্রবেশকারীদের বিষয়ে জিরো টলারেন্স: যুবলীগ

সাদাতের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি

বায়তুল মোকাররমে হেফাজতের বিক্ষোভ

বাংলাদেশ উন্নয়নের মডেল: আইনমন্ত্রী