গ্যাসের দাম বাড়িয়ে জুলুম চালাচ্ছে সরকার

শেষের পাতা

স্টাফ রিপোর্টার | ১৩ জুলাই ২০১৯, শনিবার | সর্বশেষ আপডেট: ১২:৩৬
গ্যাসের দাম বাড়িয়ে জনগণের ওপর সরকার জুলুম চালাচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদ ও বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে গতকাল সকালে রাজধানীর নয়াপল্টনে জাতীয়তাবাদী মহিলা দলের বিক্ষোভ মিছিল শেষ এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশে তিনি এ মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, জনগণ আওয়ামী দুঃশাসনের কারণে তাদেরকে ঘৃণা করে। এই ঘৃণার প্রতিশোধ হিসেবে গ্যাসের দাম বাড়িয়ে জনগণের ওপর জুলুম চালাচ্ছে সরকার। দেশের সম্পদ লুট এবং জনগণের রক্ত চুষতে একের পর এক গণবিরোধী সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে যাচ্ছে এই সরকার। তিনি বলেন, অবৈধ অর্থ উপার্জন করে সরকারের লোকজন আঙ্গুল ফুলে কলাগাছ হয়ে যাচ্ছে। তাদেরকে এই অনৈতিক সুযোগ করে দিচ্ছে সরকার। বর্তমান মধ্যরাতের ভোটের সরকার জনগণের ভোটে বিশ্বাসী না হওয়ার কারণে তারা জনগণ নয়, বরং নিজেদের সুখ-স্বাচ্ছন্দ্যের নীতিতেই বিশ্বাস করে।
তিনি বলেন, গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধি গণবিরোধী সিদ্ধান্ত।

এই সিদ্ধান্ত বাতিল করা না হলে জনগণের আন্দোলন ও ক্ষোভে-বিক্ষোভে বিএনপি শামিল হতে দৃঢ় অঙ্গীকারাবদ্ধ। প্রধানমন্ত্রীর সমালোচনা করে রিজভী আহমেদ বলেন, যুগে যুগে স্বৈরাচারী শাসকদের জুলুমের শাসনকে ডিঙ্গিয়ে সেরা স্বৈরশাসকের ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়েছেন শেখ হাসিনা। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীসহ প্রশাসন যন্ত্র ও দলীয় সন্ত্রাসীদের ওপর ভর করে দেশে ভয়াবহ নব্য বাকশালী দুঃশাসন জারি রাখা হয়েছে। তিনি বলেন, খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে দেশের জনগণ যাতে সরকারের জুলুমের শাসনের বিরুদ্ধে সোচ্চার হতে না পারে, সে জন্য তাকে মিথ্যা মামলায় সাজা দিয়ে কারাগারে রাখা হয়েছে। সব বিরোধী দলকে নিশ্চিহ্ন করার লক্ষ্যে একদলীয় বাকশালী শাসন প্রতিষ্ঠা করতে মরিয়া হয়ে উঠেছে। কিন্তু জনগণ আওয়ামী শাসকগোষ্ঠীর লালিত অলিক-অবাস্তব স্বপ্ন কোনোদিনই বাস্তবায়িত হতে দেবে না।

এর আগে সকাল ১০টায় মহিলা দলের নেতাকর্মীদের একটি বিক্ষোভ মিছিল বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে শুরু হয়। মিছিলটি নাইটিঙ্গেল মোড় ঘুরে আবারও নয়াপল্টন কার্যালয়ের সামনে গিয়ে শেষ হয়। এতে নেতৃত্ব দেন, বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। মিছিলে জাতীয়তাবাদী মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাস, সাধারণ সম্পাদক সুলতানা আহমেদ, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ মহিলা দল সভানেত্রী রাজিয়া আলিম, উত্তরের সভানেত্রী পেয়ারা মোস্তফা, সাধারণ সম্পাদক আমেনা বেগম, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক তাহমিনা শাহীন, মিলি জাকারিয়া, কেন্দ্রীয় মহিলা দলের শিক্ষাবিষয়ক সম্পাদক মিনা বেগম মিনি, স্বনির্ভর বিষয়ক সম্পাদক জেসমিন জাহান, সহ-দপ্তর সম্পাদক গুলশান আরা মিতা প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

রেনু হত্যায় প্রধান আসামি হৃদয় গ্রেপ্তার

মা হত্যার বিচার চেয়ে রাজপথে তুবা

সেদিন যা ঘটেছিল বাড্ডার স্কুলে

বরিস জনসন বৃটেনের নতুন প্রধানমন্ত্রী

সড়কে পৌনে ৫ লাখ ফিটনেসবিহীন গাড়ি

জাপার বিবাদ প্রকাশ্যে

পরিস্থিতি অস্থিতিশীল করতেই মানুষ হত্যা করা হচ্ছে

ডেঙ্গু শনাক্তে ডায়াগনস্টিক সেন্টারে ভিড়

আক্তারকে মারধর নূর লাঞ্ছিত

ট্রাম্পের বক্তব্য নিয়ে উত্তপ্ত ভারতের রাজনীতি

সুযোগসন্ধানীরা যেন ফায়দা লুটতে না পারে -প্রেসিডেন্ট হামিদ

প্রধানমন্ত্রীর চোখে অস্ত্রোপচার

আশুগঞ্জে আলোচনায় ৬%, টার্গেট ৩৮ কোটি টাকা

নিখোঁজ ৩.৭০ কোটি হিন্দু বাংলাদেশি ভারতেই

কারাগারে এনামুল বাছির

সিলেটে তোলপাড় খালা-বোনঝির ‘ইয়াবা মিশন’