ভারতের সংসদে বিল পাস

সন্দেহভাজনরাও সন্ত্রাসবাদী হিসেবে গণ্য হবে

ভারত

কলকাতা প্রতিনিধি | ২৫ জুলাই ২০১৯, বৃহস্পতিবার | সর্বশেষ আপডেট: ৬:১১
সন্দেহভাজনদেরও এবার থেকে সন্ত্রাসবাদী হিসেবে গণ্য করে ভারতের সংসদের একটি বিল পাস হয়েছে। বিরোধী দলগুলি বিলটি নিয়ে প্রবল আপত্তি জানানো সত্ত্বেও সরকার সংখ্যাধিক্যের জোরে সেটি পাস করিয়ে নিয়েছে। বুধবার সংসদে পাস হওয়া ‘বেআইনি কার্যকলাপ প্রতিরোধ আইন (ইউএপিএ) সংশোধনী বিল’ অনুযায়ী আগামী দিনে সন্দেহভাজন কাউকে   সন্ত্রাসবাদী গণ্য  করে গ্রেপ্তার করতে পারবে সরকার এবং সন্ত্রাসবাদী সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত না-থাকলেও কাউকে সন্ত্রাসবাদী ঘোষণা করা যাবে। এ ছাড়া বিলে বলা হয়েছে, আগামী দিনে যে কোনও রাজ্যের বাসিন্দার বাড়িতে তল্লাশি ও তার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার অধিকার থাকবে জাতীয় তদন্তকারী সংস্থা (এনআইএ)-র কাছে। এর জন্য আগের মতো সংশিষ্ট রাজ্যের পুলিশের অনুমতি লাগবে না। সংশোধনীর এই সব ধারা নিয়েই আপত্তি তুলেছিলেন বিরোধীরা। তাদের বক্তব্য, এই বিলের ফলে দেশকে পুলিশি রাষ্ট্রের দিকে আরও এক ধাপ ঠেলে দেওয়া হল। এদিন সংসদে বিলটির বিরোধীতা করে তৃণমূল কংগ্রেসের মহুয়া মৈত্র বলেছেন, এবার থেকে সরকার বিরোধিতা করলেই সন্ত্রাসবাদী বলা হবে। জাতীয় সুরক্ষা থেকে অন্য অনেক বিষয় নিয়ে কারও মতপার্থক্য থাকতেই পারে।

তা হলেই দেশদ্রোহী বলে চিহ্নিত করা হবে? হয় সরকারের সঙ্গে সুর মেলাও, না-হলেই দেশদ্রোহী, এই তত্ত্বে মানুষ বিশ্বাস করে না। সরকারের সঙ্গে ভিন্নমত হলেই কেউ দেশদ্রোহী নন। হতে পারে তিনি প্রবল ভাবে জাতীয়তাবাদী। বিরোধীরা বলেছেন, সরকার বিরোধিতায় মুখ খুললেই কাউকে ‘দেশ-বিরোধী’ হিসেবে চিহ্নিত করার একটি প্রবণতা তৈরি হয়েছে। আইন সংশোধনের ফলে ভবিষ্যতে কেউ সরকার-বিরোধিতা করলেই তাকে সন্ত্রাসবাদী অ্যাখ্যা দিয়ে গ্রেপ্তারের সুযোগ সরকারের হাতে এসেছে। এটা খুবই উদ্বেগজনক। বিরোধীদের আরও অভিযোগ, এটা আসলে বিরোধী স্বরকে স্তব্ধ করার কৌশল। মূলত ‘শহুরে নকশালপন্থীদের’ কথা ভেবেই আইনটি আনা হয়েছে । বিরোধীদের সমালোচনার জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বলেছেন, যারা শহরে বসে তত্ত্বকথা আউড়ে মাওবাদীদের সাহায্য করেন, তাদের বরদাস্ত করা হবে না। এদিন লোকসভায় ২৮৭ সাংসদের সমর্থনে বিলটি পাস হয়েছে। অধিকাংশ বিরোধী সাংসদ ওয়াক আউট করলেও, লোকসভায় উপস্থিত আট বিরোধী সাংসদ বিলের বিরোধিতা করেছেন।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

প্রত্যাবাসন চেষ্টা ব্যর্থতার জন্য বাংলাদেশকেই দুষছে মিয়ানমার

মোজাফফর আহমদ আর নেই

বিরোধী নেতার পদ নিয়ে জাপায় চাপান-উতোর

পাকিস্তানের সঙ্গে আলোচনায় বসতে ভারতকে ফ্রান্সের চাপ

তবুও ভালো নেই পুঁজিবাজার

ছাত্রদলের কাউন্সিল বেড়েছে তৃণমূলের কদর

রাঙ্গামাটিতে সেনা বাহিনীর অভিযানে শীর্ষ সন্ত্রাসী নিহত

রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের গুলিতে যুবলীগ নেতা নিহত, বিক্ষোভ, ভাঙচুর

ডেঙ্গু নিয়ে এপর্যন্ত হাসপাতালে ভর্তি ৬১,০০০

একই পরিবারের সবাই ডেঙ্গু রোগী

ভারত-পাকিস্তানকে সহায়তা করতে প্রস্তুত ট্রাম্প

মর্গ ব্যবস্থাপনা নিয়ে প্রশ্ন

খেলাপি ঋণের নতুন রেকর্ড

হঠাৎ বেড়েছে পিয়াজের দাম, স্বস্তি নেই সবজিতেও

সিলেটে কিং রতনের ‘ইয়াবাকন্যা’ নূপুর গ্রেপ্তার

বিএসএফের গুলিতে সাতক্ষীরা সীমান্তে ৫ বাংলাদেশি আহত