পাকিস্তানের প্রশংসা করলেন ভারতের রাজনীতিক শারদ পাওয়ার

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯, রোববার | সর্বশেষ আপডেট: ৬:৪৬
কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে ভারত-পাকিস্তান যখন উত্তেজনা তুঙ্গে তখন পাকিস্তানের ভূয়সী প্রশংসা করলেন ভারতের ন্যাশনালিস্ট কংগ্রেস পার্টির (এনসিপি) প্রধান শারদ পাওয়ার। তিনি বলেছেন, ভারত সরকার রাজনৈতিক উদ্দেশ্য সাধনের জন্য পাকিস্তানের বিষয়ে মিথ্যাচার করছে। এ খবর দিয়েছে অনলাইন জি নিউজ। এতে বলা হয়, বর্ষীয়ান এই রাজনীতিক বলেছেন, আমি পাকিস্তান সফর করেছি। সেখানে তাদের আতিথেয়তা গ্রহণ করেছি। পাকিস্তানি জনগণ অসুখী বলে মিথ্যা কথা বলা হচ্ছে। ভারতের বর্তমান সরকার নিজেদের রাজনৈতিক সুবিধা আদায়ের জন্য মিথ্যা ছড়িয়ে দিচ্ছে পাকিস্তান সম্পর্কে।

মুম্বইয়ে এনসিপির প্রধান কার্যালয়ে সংখ্যালঘুদের একটি বিশেষ অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখছিলেন শারদ পাওয়ার।
এ সময় তিনি পিটিয়ে মানুষ মেরে ফেলা, সংবিধান থেকে ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিল করা নিয়ে কথা বলেন। অনুচ্ছেদ ৩৭০ বাতিল করার মধ্য দিয়ে ভারত কাশ্মীরের স্বায়ত্তশাসন বাতিল করে। এই অনুচ্ছেদ বাতিল করার জন্য ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের সমালোচনা করেছেন শারদ পাওয়ার। তিনি বলেছেন, এই অনুচ্ছেদের মাধ্যমে জম্মু ও কাশ্মীরের জনগণকে বিশেষ কিছু ক্ষমতা দেয়া হয়েছিল। কিন্তু তা বাতিল করে সরকার এমন বার্তা দিতে চায় যে, তারা সংখ্যালঘু সম্প্রদায় অধ্যুষিত রাজ্যের বিরোধী। সরকারের এই উদ্যোগে কাশ্মীর উপত্যকায় আরো সন্ত্রাস সৃষ্টি করবে বলে মন্তব্য করেন শারদ পাওয়ার।

এ সময় তিনি পিটিয়ে মানুষ মেরে ফেলার ইস্যু উত্থাপন করেন। তিনি উল্লেখ করেন, জাতীয়তার নামে বিশেষ একটি সম্প্রদায়কে (মুসলিম) টার্গেট করা হচ্ছে। শারদ পাওয়ারের ভাষায়, কিছু মানুষ জাতীয়তাবাদের প্রকাশ ঘটানোর চেষ্টা করছে। আমি বলি, আমি একজন ভারতীয়। আমি মনে করি, একজন ভারতীয়ের জন্য এটা খুব প্রয়োজনীয় নয় যে, তাকে দিয়ে এমন কিছু বলানোর চেষ্টা করতে হবে, যাতে প্রমাণ হয় তিনি ভারতীয় নাগরিক। এ সময় বিজেপির নাম উল্লেখ না করে শারদ পাওয়ার বলেন, নিজেদের রাজনৈতিক স্বার্থের কথা মাথায় রেখে অপ্রয়োজনীয়ভাবে একটি রাজনৈতিক দল ইস্যুটিকে সামনে ঠেলে দিচ্ছে। এখানে উল্লেখ্য, আসামে এনআরসি নিয়ে ব্যাপক বিতর্ক আছে। ওই রাজ্যের বিজেপি নেতারাও এর বিরুদ্ধে ক্ষোভ ঝেড়েছেন। ওদিকে সম্প্রতি ভারতে পিটিয়ে বেশ কয়েকজন মুসলিমকে হত্যা করা হয়েছে। তার আগে তাদের কাউকে কাউকে ‘জয় শ্রীরাম’ স্লোগান দিতে বাধ্য করা হয়েছে।  

মহারাষ্ট্রে এবার বন্যায় মারাত্মক ক্ষতি হয়েছে। কিন্তু বন্যাদুর্গত এলাকা সফরে না যাওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফদনবিসের কড়া সমালোচনা করেছেন এনসিপি প্রধান শারদ পাওয়ার। তিনি অভিযোগ করেন, বন্যাদুর্গত এলাকা সফরে না গিয়ে এ দু’জন তাদের ওপর অর্পিত দায়িত্বের অবহেলা করেছেন। ওদিকে গত কয়েক দিনে দল থেকে পদত্যাগ করেছেন এনসিপির বেশ কয়েকজন সিনিয়র নেতা। এর প্রেক্ষিতে আগামী ১৭ই সেপ্টেম্বর থেকে মহারাষ্ট্রে সফরে যাওয়ার কথা রয়েছে শারদ পাওয়ারের।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

সুন্দরবনে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ৪ বনদস্যু নিহত

শায়েস্তাগঞ্জে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় যুবক নিহত

নবীনগর পৌরসভায় আওয়ামী লীগ প্রার্থী জয়ী

লক্ষ্মীপুরে দু’দল ডাকাতের ‘গোলাগুলি’তে একজন নিহত

যেভাবে ভারতের ওপর নির্ভরশীলতার ইতি টানতে চায় নেপাল

শায়েস্তাগঞ্জে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ডাকাত নিহত

মুখোমুখি তুরস্ক ও সিরিয়ার সেনাবাহিনী?

৪৩ জনের তালিকা শ’ শ’ কোটি টাকা পাচারের তথ্য

দলবেঁধে বিদেশ ভ্রমণ

টাকার মান কমানোর উদ্যোগ যা ভাবছেন বিশ্লেষকরা

ছাত্ররাজনীতি বন্ধ হওয়া উচিত

দুদক চেয়ারম্যানের পদত্যাগ করা উচিত

গণভবনে আবরারের বাবা-মা, দ্রুত বিচারের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

চার বড় ভাইকে নিয়ে সিলেটে নানা জল্পনা

ড. ইউনূসের গ্রেপ্তারি পরোয়ানা স্থগিত

পরিবেশ রক্ষা করেই সুন্দরবন এলাকায় উন্নয়ন হচ্ছে- সালমান এফ রহমান