‘টাকা দিয়ে ছাত্র প্রতিনিধি এর নাম কি রাজনীতি’

শেষের পাতা

ইবি প্রতিনিধি | ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার | সর্বশেষ আপডেট: ১১:৩১
ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো ছাত্রলীগের কমিটি বাতিলের দাবিতে গণস্বাক্ষর কর্মসূচি পালন করেছেন নেতাকর্মীরা। গতকাল লাগাতার আন্দোলনের ৫ম দিন পার করলেন পদবঞ্চিতরা। সকাল থেকে বিক্ষোভ মিছিল, প্রতিবাদ সভা ও গণস্বাক্ষর কর্মসূচি পালন করেছেন তারা। সাধারণ সম্পাদককে বহিষ্কারের দাবি জানান তারা। সকাল ১০টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটক থেকে পদবঞ্চিতরা বিক্ষোভ মিছিল বের করেন। মিছিল ও সংক্ষিপ্ত সমাবেশ শেষে ঝাল চত্বরে গণস্বাক্ষর সংগ্রহ করেন তারা। সাবেক নেতা শিশির ইসলাম বাবু, মাসুদ, লালন ও আরাফাতের নেতৃত্বে তিন শতাধিক কর্মী বিক্ষোভে অংশ নেন। পরে তারা ভিসি ড. রাশিদ আসকারীর কাছে একই দাবিতে সাক্ষাৎ করতে যান।
সেখানে তারা ভিসিকে আবারো ৪৮ ঘণ্টা সময় বেঁধে দেন। এর মধ্যে শাখা ছাত্রলীগ সম্পাদক রাকিবুল ইসলাম রাকিবকে বহিষ্কার না করলে ক্যাম্পাস অচল করে দেয়ার হুমকি দেন নেতারা। এদিকে গণস্বাক্ষর চলাকালে বিক্ষোভ সমাবেশ অব্যাহত রাখেন তারা।

এ সময় রাকিবের নামে অর্থ দিয়ে নেতা হওয়া, নিয়োগ বাণিজ্য, নারী কেলেঙ্কারিসহ বিভিন্ন অভিযোগ তুলে ধরেন তারা। সাদা কাপড়ে গণস্বাক্ষরে কর্মীরা প্রশাসন ও সাবেক প্রক্টর মাহবুবর রহমানের মাধ্যমে রাকিব নেতা হয়েছে বলে লিখিত অভিযোগ করেন। একই সঙ্গে প্রশাসন থেকে টাকা নিয়েই সে নেতা হয়েছে বলেও বেশ কয়েকজন কর্মী অভিযোগ দিয়ে স্বাক্ষর করে। অন্য এক ছাত্রলীগ কর্মী লিখেন, ‘টাকা দিয়ে ছাত্র প্রতিনিধি, এর নাম কি ছাত্র রাজনীতি?’ এ ধরনের প্রায় ৩ শতাধিক মন্তব্য ও স্বাক্ষর দেন নেতাকর্মীরা।

এ বিষয়ে ভিসি ড. রাশিদ আসকারী মানবজমিনকে বলেন, ‘ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে তার বিরুদ্ধে আমরা কোনো সিদ্ধান্ত নিতে পারবো না। তবে বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন সাধারণ ছাত্র হিসেবে তার নিয়োগ-বাণিজ্যে জড়িত থাকার প্রমাণ পাওয়া গেলে আমরা ব্যবস্থা নেবো। আমি পরিবহন শাখায় তলব করেছি, ড্রাইভার নিয়োগ কেন্দ্রিক কোনো বিজ্ঞপ্তি আছে কি না? তারা রিপোর্ট দিলে আমরা পরবর্তী পদক্ষেপ নেবো।’



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

সন্ত্রাস-সাম্প্রদায়িকতা রুখে দেয়ার শপথ বুয়েটে

সোহরাওয়ার্দীতে সমাবেশ করবে ঐক্যফ্রন্ট

সেই বড় ভাই কারা

ফের আলোচনায় আবদুল হাই বাচ্চু

অভিযান অব্যাহত থাকবে

মাটি কেনায় নয়ছয়ের পাঁয়তারা

ইন্টারগেশন সেলে মুুখোমুখি হচ্ছেন সম্রাট-আরমান

সড়কের দুই পাশে ট্রাক বাস রেখে চাঁদাবাজি করা হয় : শামীম ওসমান

কোনো উদ্যোগেই দাম কমছে না পিয়াজের

তদন্ত প্রতিবেদন ২০শে নভেম্বর

বিএনপি সরকারের রেল বন্ধের সিদ্ধান্ত ছিল দেশের জন্য আত্মঘাতী

প্রেমের টানে জৈন্তাপুরে ভারতীয় খাসিয়া নারী হুলুস্থুল

এবার তহবিল চায় রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক

আইনজীবীর হাতে হাতকড়া বিচারক অবরুদ্ধ এজলাস ভাঙচুর

চট্টগ্রামে গতি পেলো মেট্রোরেল

বরগুনায় রিফাত হত্যার প্রধান আসামির জামিন নামঞ্জুর