নেত্রকোনায় গৃহবধূ গণধর্ষণের শিকার, আটক ৩

বাংলারজমিন

নেত্রকোনা প্রতিনিধি | ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, রোববার
আত্মীয়র বাড়িতে বেড়াতে গিয়ে নেত্রকোনায় আবারো গৃহবধূ গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার গভীর রাতে নেত্রকোনা সদর উপজেলার মদনপুর ইউনিয়নের পশ্চিম মদনপুর গ্রামে। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে শুক্রবার রাতে নেত্রকোনা মডেল থানা পুলিশ তিনজনকে আটক করেছে। এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, পার্শ্ববর্তী ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার কান্দার গ্রামের জনৈক ব্যক্তি মোটরসাইকেলে করে তার স্ত্রীকে নিয়ে গত বৃহস্পতিবার নেত্রকোনা সদর উপজেলার পশ্চিম মদনপুর গ্রামের জিলন আক্তারের বাড়িতে বেড়াতে আসেন। ওইদিন গভীর রাতে পশ্চিম মদনপুর গ্রামের ৮-১০ জন যুবক ওই বাড়িতে গিয়ে হানা দেয়। যুবকরা গৃহবধূর স্বামীকে মারধর করে গৃহবধূকে মোটর সাইকেলে উঠিয়ে নিয়ে যায়। পরে গৃহবধূকে গ্রামে একটি জঙ্গলে নিয়ে যুবকরা তার ওপর অমানুষিক নির্যাতন চালায় এবং পালাক্রমে ধর্ষণ করে। পরে আত্মীয় স্বজন শুক্রবার সকালে আহত গৃহবধূকে উদ্ধার করে নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।
নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালে পুলিশ প্রহরায় গৃহবধূ চিকিৎসাধীন আছেন। খবর পেয়ে শুক্রবার রাতে নেত্রকোনা মডেল থানা পুলিশ ওই এলাকায় অভিযান চালিয়ে ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে সালমান, আকাশ ও রফিকুল ইসলামকে আটক করেছে। নেত্রকোনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মুহাম্মদ ফখরুজ্জামান জুয়েল শনিবার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এ ছাড়া গত ঈদুল আযহার ছুটিতে জেলার কলমাকান্দায় বেড়াতে যাবার পথে অপর এক গৃহবধূ সদর উপজেলার চল্লিশা ইউনিয়নের রাজেন্দ্রপুরে গণধর্ষণের শিকার হন। ওই ঘটনায় নেত্রকোনা মডেল থানায় মামলা হলেও পুলিশ শনিবার পর্যন্ত মামলার তিন আসামি রাজেন্দ্রপুর এলাকার এনামুল হক সম্রাট (২৭), মো. জিহান(২৭) ও মো. রাসেলকে (৩০) গ্রেপ্তার করতে পরেনি।
নেত্রকোনা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. তাজুল ইসলাম খান বলেন, গৃহবধূ ধর্ষণের কথা শুনেছি। ঘটনায় জড়িত সন্দেহে তিনজনকে আটক করা হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। এ ব্যাপারে থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।


এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

সন্ত্রাস-সাম্প্রদায়িকতা রুখে দেয়ার শপথ বুয়েটে

সোহরাওয়ার্দীতে সমাবেশ করবে ঐক্যফ্রন্ট

সেই বড় ভাই কারা

ফের আলোচনায় আবদুল হাই বাচ্চু

অভিযান অব্যাহত থাকবে

মাটি কেনায় নয়ছয়ের পাঁয়তারা

ইন্টারগেশন সেলে মুুখোমুখি হচ্ছেন সম্রাট-আরমান

সড়কের দুই পাশে ট্রাক বাস রেখে চাঁদাবাজি করা হয় : শামীম ওসমান

কোনো উদ্যোগেই দাম কমছে না পিয়াজের

তদন্ত প্রতিবেদন ২০শে নভেম্বর

বিএনপি সরকারের রেল বন্ধের সিদ্ধান্ত ছিল দেশের জন্য আত্মঘাতী

প্রেমের টানে জৈন্তাপুরে ভারতীয় খাসিয়া নারী হুলুস্থুল

এবার তহবিল চায় রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক

আইনজীবীর হাতে হাতকড়া বিচারক অবরুদ্ধ এজলাস ভাঙচুর

চট্টগ্রামে গতি পেলো মেট্রোরেল

বরগুনায় রিফাত হত্যার প্রধান আসামির জামিন নামঞ্জুর