‘ক্ষেত্রটা ইতিমধ্যে নষ্ট করে ফেলা হয়েছে’

বিনোদন

এন আই বুলবুল | ৯ অক্টোবর ২০১৯, বুধবার
শারদীয় দুর্গাপূজা উৎসবে অংশ নিতে পাবনায় স্বপরিবারে অবস্থান করছেন জনপ্রিয় অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী। প্রতি বছরই এ উৎসবে পরিবারের সবাইকে নিয়ে দেশের বাড়ি আসার চেষ্টা করেন তিনি। এ অভিনেতা বলেন, পরিবারের সবার সঙ্গে উৎসবে অংশ নিতে ভালো লাগে। পরিবারের আনন্দ অন্য কোনো কিছুতে পাওয়া যায় না। বরাবরই ভালো-মন্দ মিলিয়ে সময়টা কাটছে। এখন আমার যে বয়স এতে হৈ-হুল্লোড় মানায় না। শৈশব-কৈশোর জীবন থেকে ঝরে গেলে সবকিছুই ছকেবাঁধা হয়ে যায়। আমার অবস্থা তেমনই।
এরপরও শিশু-কিশোররা যখন আনন্দে মেতে ওঠে তখন পুরনো দিনের স্মৃতিতে ডুবে থাকতে ভালো লাগে। ছেলে শুদ্ধ এবং আরো যেসব শিশু আছে তাদের সঙ্গে সময় কাটিয়েছি গতকাল দশমীর দিন। শিশুদের হাসিমুখে মিশে আছে পূজার আনন্দ। সেই আনন্দের ছোঁয়া কিছুটা হলেও ভাগাভাগি করে নেওয়ার চেষ্টা করেছি। ঢাকায় ফিরে এ অভিনেতা আবারো শুটিংয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়বেন বলে জানান। সম্প্রতি এনটিভিতে প্রচার শুরু হয়েছে তার অভিনীত ধারাবাহিক নাটক ‘শহরালী’। এটি রচনা ও পরিচালনা করেছেন এজাজ মুন্না। ধারাবাহিকটি প্রসঙ্গে জানতে চাইলে এ অভিনেতা বলেন, অন্যরকম গল্পের একটি নাটক এটি। এতে আমার চরিত্রটিও দারুণ। তাই এতে অভিনয় করছি। নাটকে দেখা যাচ্ছে, শহরালী গ্রামের বেকার যুবক। বন্ধুর সন্ধানে প্রথম ঢাকা শহরে এসে বিপদে পড়েছে সে। বন্ধুর ঠিকানাসহ সব হারিয়ে এখন দিশেহারা। কোনো উপায় খুঁজে না পেয়ে বেঁচে থাকার সংগ্রামে নামতে হয়েছে তাকে। সিকিউরিটি গার্ডের চাকরি করার ফাঁকে বন্ধুকে খুঁজতে থাকে সে। চঞ্চল চৌধুরী ছোটপর্দার বাইরে বড় পর্দায়ও কাজ  করেন। তার অভিনীত সর্বশেষ মুক্তিপ্রাপ্ত চলচ্চিত্র হলো ‘দেবী’। দর্শক মহলে এটি দারুণ প্রশংসিত হয়। বর্তমানে তার হাতে আছে গিয়াস উদ্দিন সেলিমের ‘পাপ-পূন্য’ শিরোনামের একটি চলচ্চিত্র। ছবিটির কাজ এখন শেষের দিকে। এর আগে এ নির্মাতার ‘মনপুরা’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করে চঞ্চল দারুণ সাড়া ফেলেন দর্শকের মাঝে। ২০০৯ সালে এটি মুক্তি পায়। এ নির্মাতার সঙ্গে কাজের অভিজ্ঞতা কেমন? এ প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, সেলিম ভাইয়ের সঙ্গে আমার প্রথম কাজ ‘এনেছি সূর্যের হাসি’ নামের একটি সিরিয়ালে। গুরুত্বপূর্ণ কোনো চরিত্রে সেবারই প্রথম অভিনয় করি। এটা ২০০৫ সালের কথা। এরপর ২০০৭ পর্যন্ত তার প্রায় সব কাজ করা হয়েছে। তার সঙ্গে সিনেমার শুরু ২০০৭ সালে। মাঝে অনেক দিন কাজ করা হয়নি। দীর্ঘ ১২ বছর পর আবার তার সঙ্গে চলচ্চিত্রে কাজ করতে পেরে ভালো লাগছে। এ চলচ্চিত্রের কাজের অভিজ্ঞতাও দারুণ। তবে সেটি প্রকাশের এখনো সময় হয়নি। পৃথিবীব্যাপী ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মের একটা আধিপত্য শুরু হয়েছে। বিষয়টিকে চঞ্চল চৌধুরী কীভাবে দেখছেন? তিনি বলেন, এটা সময়ের দাবি। সময়ের প্রয়োজনে অনেক কিছুই আসবে। কিন্তু সেগুলো কীভাবে ব্যবহার করবেন, তা বোঝা জরুরি। ইউটিউবে অবাধ স্বাধীনতা আছে। যে কেউ ইচ্ছা করলেই যে কোনো কনটেন্ট দিতে পারে। সুতরাং এই ক্ষেত্রটা নষ্ট করার জন্য মানুষের অসৎ ইচ্ছাই যথেষ্ট। আর ক্ষেত্রটা ইতিমধ্যে নষ্ট করে ফেলা হয়েছে। আগে ইউটিউবে ভালো নাটক প্রকাশ করা হতো। এখন যাচ্ছেতাই নাটক প্রকাশ করা হচ্ছে। কিছু কিছু ইউটিউব চ্যানেলের লাখ লাখ সাবস্ক্রাইবার। সেখানে যে কোনো কিছু দিলেই লাখ লাখ ভিউ হয়। যার ইউটিউব চ্যানেল আছে, সে যা খুশি করছে। আবার বুস্টের মাধ্যমে মানহীন নাটকেরও লাখ লাখ ভিউ করানো হয়। তাতে দর্শক বিভ্রান্ত হয়। তারা ভাবে, এই নাটকের লাখ লাখ ভিউ, তার মানে এটা ভালো নাটক হতে পারে। এ রকম বেশি দিন হলে দেখা যাবে, সস্তা নাটকই স্ট্যান্ডার্ড মনে করবে দর্শকেরা।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

১০ দিনের রিমান্ডে ক্যাসিনো সম্রাট

ঢাকা কলেজ ছাড়লেন আবরারের ভাই

আবরার হত্যাকাণ্ড নিয়ে কূটনীতিকদের মন্তব্য ‘অহেতুক’

চার্জশিটভুক্তরা স্থায়ী বহিষ্কার না হওয়া পর্যন্ত ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন

নবম ওয়েজ বোর্ডের গেজেট কেন অবৈধ নয়

আরেক আসামি গ্রেপ্তার

পিয়াজের ফের সেঞ্চুরি

তাদের ছাতা খোঁজা হচ্ছে

যেন একেকটি টর্চার সেল

লাখ কোটি টাকায় আরো দুই মেট্রোরেল প্রকল্প অনুমোদন

কীন ব্রিজ নিয়ে নাটকীয়তা

মেয়াদ শেষেও আলোর মুখ দেখেনি যুবদলের পূর্ণাঙ্গ কমিটি

বাবার কোলেই ঘুমন্ত তুহিনকে জবাই করে চাচা

বড়পুকুরিয়া খনির সাবেক ৭ এমডিসহ ২৩ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে পরোয়ানা

এমপিও নীতিমালা সংশোধনের দাবিতে শিক্ষকদের গণঅবস্থান

মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ