আবরার হত্যায় অভিযুক্ত অনিককে পেটালেন কারাবন্দিরা

স্টাফ রিপোর্টার

অনলাইন ১৩ অক্টোবর ২০১৯, রোববার, ১২:০৮

আবরার ফাহাদ হত্যার আসামি অনিক সরকারকে কারাগারে প্রবেশ করতেই পিটিয়েছে অন্য কয়েদিরা। ডিবির হাতে গ্রেপ্তার রিমান্ড শেষে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয়ার পর কারাগারে নেয়া হয় অনিককে। এ সময় কারাগারে প্রবেশ করতেই উত্তেজিত কারাবান্দিরা হামলে পড়ে তার ওপর।
কারাগার সূত্রে জানা গেছে, আবরারকে নির্মমভাবে পিটিয়ে হত্যার ঘটনা জানার পর সারাদেশে তোলপাড় সৃষ্টি হয়। বিষয়টি নাড়া দেয় কারাগারে বন্দি থাকা কয়েদিদের মাঝেও। ক্ষুব্ধ হয়ে অনিককে কারাগারের সেলে পাওয়া মাত্রই পিটুনি শুরু করেন।
তবে অল্পের জন্য রেহাই পায় আবরার হত্যার ওই আসামি। কারারক্ষীরা অনেক চেষ্টা করে তাকে ক্ষুব্ধ কয়েদিদের কাছ থেকে রক্ষা করে অনত্র সরিয়ে নেন।

অনিক সরকারের বাড়ি রাজশাহীর মোহনপুর উপজেলার বড়ইকুড়ি গ্রামে। অনিক ওই গ্রামের বাসিন্দা ও কাপড় ব্যবসায়ী আনোয়ার হোসেনের ছেলে। তাদের গ্রামের বাড়ি উপজেলার কৃষ্ণপুরে হলেও ব্যবসায়িক কাজে পুরো পরিবার মোহনপুর উপজেলা সদরের বড়ইকুড়ি গ্রামে বসবাস করে। দুই ভাইয়ের মধ্যে অনিক ছোট। এ ছাড়া তাদের পেট্রল পাম্প এবং সারের ডিলারশিপের ব্যবসা রয়েছে।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

ahammad

২০১৯-১০-১৩ ০১:৩৮:০১

কারারখ্খীদের উচিৎ চিল তাকে ভালো করে মারতে দেওয়া সুযোগ। কারণ এই মানুষ রুপি জানোয়ার গত জীবনে অনেক ছাএ কেই পিটিয়েছে। ভালো করে মাইর খাইলে তার ভিতরে হয়ত মাইর খাওয়ার অনুভূতি জাগতো । অনশোছনা বোদ হতো।

Shamim

২০১৯-১০-১৩ ০১:১৬:২৯

ভালো। আরো মারা উচিৎ ছিল এই বদমায়েশকে

Kazi

২০১৯-১০-১২ ২৩:৪০:২১

কারাবন্দি অপরাধী । তারও সহ্য করতে পারেনি হত্যাকাণ্ড । কিভাবে নাড়া দিয়েছে দেশের মানুষকে তা অনুমেয়।

আপনার মতামত দিন

অনলাইন অন্যান্য খবর

ঐক্যফ্রন্টের সংবাদ সম্মেলন

ঢাকা সিটি নির্বাচনে ইভিএম বাতিলের আহ্বান

১৮ জানুয়ারি ২০২০

হঠাৎ জরুরি বৈঠকে ইসি

১৮ জানুয়ারি ২০২০

মির্জাগঞ্জে জমি নিয়ে সংঘর্ষ

মহিলাসহ আহত-২

১৮ জানুয়ারি ২০২০





অনলাইন সর্বাধিক পঠিত



একই পরিবারের ৩ জন নিহত

স্বামীর ঘরে যাওয়া হলো না পিয়াশার