পদযাত্রায় বাঁধা, বিকাল থেকে শিক্ষকদের অনশন

শিক্ষাঙ্গন

স্টাফ রিপোর্টার | ১৭ অক্টোবর ২০১৯, বৃহস্পতিবার | সর্বশেষ আপডেট: ৬:৫৭
ফাইল ফটো
এমপিও নীতিমালা সংশোধনের দাবিতে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাতের উদ্দ্যেশ্যে পদযাত্রা করতে গিয়ে পুলিশের বাঁধার মুখে পড়েছেন নন-এমপিওভুক্ত শিক্ষকরা। পরে ঢাকা কেন্দ্রীয় ঈদগাহের সামনে কিছুক্ষণ বসে  থেকে আবারও প্রেস ক্লাবের সামনে গিয়ে অবস্থান নেন তারা। আজ সকাল সাড়ে ১১টায় এ ঘটনার পর বিকাল থেকে অনশনে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন শিক্ষকরা।

এ বিষয়ে নন-এমপিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান শিক্ষক-কর্মচারি ফেডারেশনের সভাপতি অধ্যাপক গোলাম মাহমুদুন্নবী ডলার বলেন, আমরা সকাল সাড়ে ১১টায় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের উদ্দেশ্যে পদযাত্রা শুরু করি। জাতীয় ঈদগাহের সামনে গেলে পুলিশ আমাদের পদযাত্রায় বাঁধা দেয়। ফলে আমাদের শিক্ষকরা ঈদগাহের সামনে বসে প্রতিবাদ চালিয়ে যায়। পরে সেখান থেকে আমরা প্রেস ক্লাবের সামনের রাস্তায় এসে বসি।

তিনি আরও বলেন, পদযাত্রায় বাধা দেয়ায় শিক্ষকরা মনঃক্ষুন্ন হয়েছেন। আমরা প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ চাই।
বিকেল ৫টায় আমরা পরবর্তী কর্মসূচি হিসেবে আমরণ অনশন কর্মসূচির ঘোষণা করবো।

এদিকে আজ বৃহস্পতিবার সকাল থেকে আমরণ অনশন কর্মসূচি পালনের ঘোষণা দেয়া হলেও প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে তারা পদযাত্রা শুরু করার সিদ্ধান্ত নেন। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাত করে তারা নীতিমালার অসংঙ্গতি ও বৈষম্যসহ সার্বিক সকল বিষয় তুলে ধরতে  চেয়েছিলেন।

বৈষম্যপূর্ণ এমপিও নীতিমালা সংশোধন, স্তরভিত্তিক প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তির সিদ্ধান্ত বাতিল ও স্বীকৃতিপ্রাপ্ত সকল প্রতিষ্ঠানকে এমপিওভুক্তি করার দাবিতে গত তিনদিন থেকে ঢাকায় জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে সড়কের পাশে ফুটপাতে বসে শিক্ষক-কর্মচারিরা অবস্থান কর্মসূচি পালন করছেন।

উল্লেখ্য, সর্বশেষ ২০১০ সালে ১ হাজার ৬২৪টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত হয়েছিল। এরপর থেকে এমপিওভুক্তির দাবিতে শিক্ষক-কর্মচারিদের আন্দোলন চলছে।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

নতুন গ্রেডে প্রাথমিক শিক্ষকদের বেতন কমবে না- অর্থ সচিব

দ্বিতীয় সপ্তাহে ট্রাম্পের অভিশংসন তদন্তের শুনানি

স্কুল ভবন নির্মাণ করতে ৫০ কবর উচ্ছেদ

জবিতে চেয়ারম্যানের স্বেচ্ছাচারিতায় শিক্ষার্থীর শিক্ষাজীবন হুমকির মুখে

টমেটোর গহনা পরে বিয়ের পিঁড়িতে পাকিস্তানি তরুণী

৪৪৪৩ জন চিকিৎসক নিয়োগ

বিএনপি নেতা মীর নাসির ও ছেলে মীর হেলালের দণ্ড হাইকোর্টে বহাল

দেশে লবণের কোনো সংকট নেই, গুজবে বিভ্রান্ত না হওয়ার আহ্বান

দুই মাসে দেশে ৩৪ কোটি টাকার মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ ধ্বংস

আশুলিয়ায় পুলিশের ‘সোর্স’কে কুপিয়ে হত্যা

‘আপাতত সহনীয় মাত্রায় জরিমানা’

‘তারা টাকা বানিয়ে ফেলেছে’

পারভেজ মোশাররফের রাষ্ট্রদ্রোহের মামলার রায় ২৮ নভেম্বর

সেতুর নিচে বস্তা বস্তা পঁচা পিয়াজ

এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে পাকিস্তান ছাড়লেন নওয়াজ শরীফ

কূপের ভিতর বিক্ষোভকারী এমপিদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা