প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে পাপনের বৈঠক

বোর্ডকে ক্রিকেটারদের চিঠি

স্পোর্টস রিপোর্টার

প্রথম পাতা ২৪ অক্টোবর ২০১৯, বৃহস্পতিবার | সর্বশেষ আপডেট: ৫:৫৯

দিনভর নাটকীয়তা। নানা আলোচনা। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে ক্রিকেট বোর্ড প্রেসিডেন্ট নাজমুল হাসান পাপনের সাক্ষাৎ। বিসিবিতে ক্রিকেটারদের জন্য বোর্ড কর্তাদের অপেক্ষা। ওদিকে, গুলশানে ক্রিকেটারদের দীর্ঘ বৈঠক। ১৩ দফা দাবি জানিয়ে বোর্ডকে চিঠি। অবশেষে রাতে ক্রিকেটার-বিসিবি বৈঠক। এ রিপোর্ট লেখার সময় পর্যন্ত অবশ্য সে বৈঠক সম্পর্কে বিস্তারিত কিছু জানা যায়নি।
এর আগে গুলশানে ক্রিকেটারদের ১৩ দফা দাবি সম্পর্কে সাংবাদিকদের জানান ব্যারিস্টার মোস্তাফিজুর রহমান। সুপ্রিম কোর্টের এ আইনজীবী এদিন ক্রিকেটারদের মুখপাত্র হিসেবে সংবাদ সম্মেলনে এসেছিলেন। ক্রিকেটারদের নতুন দুটি দাবির মধ্যে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হলো- বোর্ডের লাভের ভাগ দিতে হবে ক্রিকেটারদের। সেই সঙ্গে নারী ক্রিকেট দলকেও দিতে হবে ন্যায্য ভাগ।

সোমবার খেলোয়াড়দের ১১ দফা দাবির পরিপ্রেক্ষিতে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন সংবাদ সম্মেলন করেছিলেন মঙ্গলবার। সেখানে সাকিব-তামিমদের ধর্মঘটকে ক্রিকেট ধ্বংসের ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে উল্লেখ করেন বিসিবি বস। এরই পরিপ্রেক্ষিতে গুলশানে বুধবার সন্ধ্যায় সংবাদ সম্মেলন করেন ক্রিকেটাররা। সেখানে ক্রিকেটারদের মুখপাত্র ব্যারিস্টার মোস্তাফিজুর রহমান ১৩ দফা দাবি পেশের পাশাপাশি জানান, বোর্ডের সঙ্গে আলোচনায় বসতে রাজি ক্রিকেটাররা। এই সংবাদ সম্মেলন শেষে বোর্ড সভাপতির সঙ্গে ক্রিকেটাররা সাক্ষাৎ করতে পারেন জানিয়ে তিনি বলেন, ক্রিকেটারদের আন্দোলন কোনো ষড়যন্ত্র নয়।

এইআন্দোলন তাদের দাবি আদায়ের স্বপক্ষে। ক্রিকেটাররা বিশ্বাস করেন আপনাদের মাধ্যমে জনগণকে নিয়ে তাদের দাবি আদায় করা সম্ভব। এই দাবিগুলোর ব্যাপারে বোর্ডে সুস্পষ্ট ধারণা পেলে তারা ক্রিকেটে ফিরে আসবে। তারা আলোচনায় বসবে। এটা ওদের পেশা। ক্রিকেট থেকে দূরে থাকলেই তো ক্ষতি। বোর্ড স্পষ্ট করলে তারা ক্রিকেটে ফিরে আসবে। বোর্ডের সঙ্গে আলোচনার পর বোর্ড সভাপতির সঙ্গে কথা বলবেন তারা, যদি সময় থাকে।

এর আগে ক্রিকেটারদের ১১ দফা দাবি-দাওয়া নিয়ে সৃষ্ট ধর্মঘট নিরসনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন পাপন। এ সময় সঙ্গে ছিলেন বোর্ড পরিচালক ও কোয়াবের (ক্রিকেটার ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ) সভাপতি নাঈমুর রহমান দুর্জয়। চলমান ইস্যু নিয়েই প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা হয়েছে তাদের। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা শেষে বেলা সাড়ে ৩টার দিকে বিসিবিতে আসেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান ও নাঈমুর রহমান দুর্জয়। গণভবন থেকে বেরিয়ে যাওয়ার সময় পাপন বলেন, ‘আমরা খেলোয়াড়দের সব দাবি দাওয়া মেনে নেওয়ার জন্য প্রস্তুত আছি। কিন্তু তাদের সঙ্গে যোগাযোগের পরেও ফোন ধরছে না। ‘আমরা বলছি, সবগুলো দাবি মানার মতো, এটা কোনো সমস্যাই না। আসলেই শেষ। তারপরও আমরা যোগাযোগ করছি, তারা ফোন ধরছে না। ওরা কোনো যোগাযোগ করছে না। তাহলে করবটা কী বলেন?’ সম্মেলন করে বিসিবির কাছে ১৩টি দাবি পেশ করেন।

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাতের বিষয়ে জানতে চাইলে বিসিবি সভাপতি বলেন, ‘উনি তো সবই জানেন। গত পরশুদিনও উনার সাথে ছিলাম। কাল সকালে মাশরাফি এসেছিল। এখন আমি উনাকে জাস্ট জানাতে আসলাম আপডেট।’

আপনার মতামত দিন

প্রথম পাতা অন্যান্য খবর

ঢাকা সিটিতে ভোট ১লা ফেব্রুয়ারি

পিছু হটলো নির্বাচন কমিশন

১৯ জানুয়ারি ২০২০

মিয়ানমারের অনীহা

ভেস্তে যেতে বসেছে ত্রিদেশীয় উদ্যোগ

১৯ জানুয়ারি ২০২০

ভাড়ায় মিলে মামলার বাদী!

১৯ জানুয়ারি ২০২০

১৬ দিনে এসেছেন ১৬১০ বাংলাদেশি

সৌদি থেকে ফেরার মিছিল

১৮ জানুয়ারি ২০২০

অনিশ্চয়তায় ভোটাররা

১৮ জানুয়ারি ২০২০





প্রথম পাতা সর্বাধিক পঠিত