এবার যা হবে রাস্তায় হবে: গয়েশ্বর

দেশ বিদেশ

স্টাফ রিপোর্টার | ৯ নভেম্বর ২০১৯, শনিবার
বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেছেন, নেতারা অনেক সময় নির্দেশ দিতে পারেন না। তাই বলে কর্মীদের বসে থাকলে চলবে না। ’৭১-এ নেতারা নির্দেশ দিতে পারেননি। তখন অখ্যাত একজন মেজর স্বাধীনতার ঘোষণা দিয়েছিলেন। কেউ প্রশ্ন করেনি- তুমি কে হে স্বাধীনতার ঘোষণা দেয়ার। সবাই তার ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গে যুদ্ধে নেমেছিল। সুতরাং আর প্রেস ক্লাবে নয়, যা হবে রাস্তায় হবে। গতকাল দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবের তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া হল রুমে তারেক পরিষদ ঢাকা মহানগর উত্তর আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।
গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, আদালতের মাধ্যমে নেত্রীর মুক্তি হবে না, এটা বুঝে গেছি। সুতরাং আপনাদের যদি প্রাণের দাবি হয় খালেদা জিয়ার মুক্তি, তাহলে আপনারা প্রস্তুত হোন- কারো আশা-ভরসার ওপর নির্ভর না করে। নেতা ডাকলো কি ডাকলো না সেটা দেখার দরকার নেই। আমার অধিকার আছে খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য পথে নামার। তিনি আরো বলেন, আমি বিশ্বাস করি, আমাদের নেতৃবৃন্দ কিংবা দল নিশ্চয়ই বিষয়টা বিবেচনায় রাখবেন। বিষয়টা আর দীর্ঘ সময় অপেক্ষা করার নয়, এখনই সিদ্ধান্ত নেয়ার সময়। দল ভুল করবে বলে আমি মনে করি না। আপনারা প্রস্তুত থাকেন। তারেক পরিষদ ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি সাহেদুল ইসলাম লরেন-এর সভাপতিত্বে সভায় আরও বক্তব্য রাখেন, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামুজ্জামান দুদু, যুগ্ম-মহাসচিব ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদ, নির্বাহী কমিটির সদস্য মেজর (অব.) মো. হানিফ, যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক মামুন হাসান, প্রমুখ।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

মানচিত্র নিয়ে উত্তেজনা, ভারতীয় সেনা প্রত্যাহার দাবি নেপালের

কাশ্মীরে গণধর্ষণের ডাক ভারতীয় সাবেক উচ্চপদস্থ সেনা কর্মকর্তার

রাজধানীতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ যুবক নিহত

ফরিদপুর থেকে সব রুটের বাস-ট্রাক চলাচল বন্ধ

দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী

কুমিল্লায় সড়ক দুর্ঘটনায় পুলিশ সদস্য নিহত

চিরিরবন্দরে ট্রাকচাপায় ২ যুবলীগকর্মী নিহত

‘এখনো ঘোরের মধ্যে আছি’

লবণ গুজব, ছুটছে মানুষ

এ কেমন ‘ক্লিন ইমেজ’!

দুই বাংলাদেশির অবস্থা সংকটাপন্ন

কালো তালিকাভুক্ত হচ্ছে অর্ধশতাধিক ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান

বাসের পর এবার ট্রাক ধর্মঘট

যারা গুজব ছড়াচ্ছে তাদের রক্ষা নেই

শতাধিক ফেসবুক আইডিতে কিশোর গ্যাং সক্রিয়

ঢাকার বাতাস দিল্লির চেয়েও দূষিত