জুতা চুরির মামলা

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১৮ নভেম্বর ২০১৯, সোমবার
স্বর্ণালঙ্কার বা টাকা চুরি-ডাকাতির অভিযোগে মামলা হওয়ার ঘটনা অহরহই ঘটছে। এমন ধারার সঙ্গে সবাই কমবেশি পরিচিত। কিন্তু ভারতের চেন্নাইয়ে সেক্রেটারিয়েট কলোনির পুলিশ শনিবার বিস্মিত হয়ে যায়। এর কারণ, এক ব্যবসায়ী তাদের কাছে গিয়েছিলেন জুতা চুরি যাওয়ার মামলা করতে। ওই ব্যবসায়ীর কমপক্ষে ১০ জোড়া জুতা চুরি গেছে। এর মূল্য কমপক্ষে ৭৬ হাজার রুপি। তাই তিনি মামলা করতে গিয়েছেন। ব্যবসায়ির নাম আবদুল হাফিজ।
তিনি কিলপাউকে দিওয়ান বাহাদুর শানমুগাম স্ট্রিটের একজন বাসিন্দা। পুলিশে হাজির হয়ে অভিযোগ দিয়েছেন যে, তার জুতাগুলো ব্রান্ডের এবং খুব দামী। শনিবার তিনি ঘুম থেকে উঠে দেখেন জুতা নেই। অথচ তিনি বাড়িতে। বাসার মূল দরজা তালা দেয়া। দোতলা এই বাসায়ই প্রবেশপথের কাছে ছিল তার ১০ জোড়া জুতা। এর মধ্যে রয়েছে জুতা এবং স্যান্ডেল। কিন্তু সকাল সাড়ে ৯টা থেকে সাড়ে দশটার মধ্যে এসব হাওয়া হয়ে যায়। আবদুল হাফিজ সন্দেহজনক কাউকে চলাফেরা করতেও দেখেন নি। ঘর থেকে বের হতে গিয়ে তিনি দেখেন জুতা, স্যান্ডেল কিছুই নেই।

অভিযোগে তিনি সন্দেহের আঙ্গুল তুলেছেন তার প্রতিবেশীদের দিকে। তারা হলেন ব্যাচেলরদের একটি গ্রুপ। তারা হাফিজের পাশেই বাড়ি ভাড়া নিয়েছেন। এ ছাড়া সন্দেহের মধ্যে রয়েছে তার গৃহকর্মীরাও। জবাবে পুলিশ বলেছে, তারা রোববার এ বিষয়ে কোনো কাজ করতে পারেন নি। আজ সোমবার ওইসব ব্যাচেলর যখন তাদের আবাসনে ফিরবেন তখন তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। এ ছাড়া ওই বাসার সিসিটিভি ফুটেজও চেক করে দেখছে পুলিশ।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

সম্পর্ক ছিল মারিনি

কেন চাপের মুখে অর্থনীতি

গাম্বিয়ার প্রতি নৈতিক সমর্থন ১৪ সদস্যের বাংলাদেশ দল শুনানি পর্যবেক্ষণে

কতজন কিনতে পারছে টিসিবি’র পিয়াজ

চলচ্চিত্র সমাজকে সংস্কার করতে পারে

জমকালো আয়োজনে পর্দা উঠলো বঙ্গবন্ধু বিপিএল’র

বাদলের শূন্য আসন নিয়ে মহাজোটে টানাপড়েন

সচিবালয়ের আশেপাশে হর্ন বাজালে এক মাসের জেল

শুদ্ধি অভিযানে নাম আসা কাউকে ছাড় নয়

আলোচনায় মোহনের ‘মঙ্গল আসর’

ছাগলনাইয়ায় আওয়ামী লীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষে নিহত ১

স্বর্ণালঙ্কারের লোভেই বরিশালে তিন খুন

দিবারাত্রির টেস্টের প্রস্তাব পাকিস্তানের!

পদ হারানো রাব্বানী চান নুরের পদত্যাগ

হাইডেলবার্গে আলী রীয়াজের অনুষ্ঠানে বাধা

গৃহবধূর চুল কর্তন: উল্লাপাড়া আওয়ামী লীগ নেতার বিরুদ্ধে কী অ্যাকশন নেয়া হয়েছে, জানতে চান হাইকোর্ট