দৃষ্টি প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীকে মারধরকারী ছাত্রলীগ নেতা বহিষ্কার

চবি প্রতিনিধি

শিক্ষাঙ্গন ২০ নভেম্বর ২০১৯, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ৫:১৮

বহিষ্কৃত ছাত্রলীগ নেতা
হাতে কনুই লাগায় শুক্কুর আলম নামে এক দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী ছাত্রকে মারধরের অভিযোগে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে (চবি)ছাত্রলীগ কর্মী মোরশেদুল আলম রিফাতকে ১ বছরের জন্য বহিষ্কার করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। গতকাল মঙ্গলবার বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ড. শিরীণ আখতার তার নির্বাহী ক্ষমতাবলে এ আদেশ দেন। গত ১৪ই নভেম্বর থেকে এ বহিষ্কারাদেশ কার্যকর হয়েছে বলেও জানা যায়। এর আগে গত ১১ই নভেম্বর অভিযুক্ত রিফাতকে তিন কার্যদিবসের মধ্যে ঘটনার কারণ দর্শাতে বলা হয়। যথাসময়ে কারণ দর্শাতে না পারায় তাকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ১ বছরের জন্য বহিষ্কারের সুপারিশ করেছিল প্রক্টরিয়াল বডি। আজ বুধবার দুপুরে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের বোর্ড অব হেলথ রেসিডেন্স অ্যান্ড ডিসিপ্লিনারি কমিটির সদস্য সচিব ও প্রক্টর অধ্যাপক এসএম মনিরুল হাসান। তিনি বলেন, এক দৃষ্টি প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীকে মারধরের ঘটনায় মোরশেদুলকে এক বছরের জন্য বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। উপাচার্য তার নির্বাহী ক্ষমতাবলে এ আদেশ দিয়েছেন।
বোর্ড অব হেলথ রেসিডেন্স অ্যান্ড ডিসিপ্লিনারি কমিটিতে পরবর্তী সভায় বিষয়টি রিপোর্ট করা হবে।' প্রসঙ্গত, গত ১০ই নভেম্বর রাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের সোহরাওয়ার্দী হলের সামনে দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী শিক্ষার্থী শুক্কুর আলমকে মারধর করেন শাখা ছাত্রলীগের বিজয় গ্রুপের কর্মী ও ব্যবস্থাপনা বিভাগের ৪র্থ বর্ষের শিক্ষার্থী মোরশেদুল আলম রিফাত। এ ঘটনায় ঐদিন রাতেই আন্দোলন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীরা। পরে প্রক্টরিয়াল বডির আশ্বাসে আন্দোলন স্থগিত করেন তারা।পরদিন প্রক্টর বরাবর লিখিত অভিযোগ দিলে অভিযোগের প্রেক্ষিতে তিন কর্মদিবসের মধ্যে অভিযুক্ত রিফাতকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়। এছাড়াও ক্যাম্পাসের কোথাও রিফাতকে দেখামাত্র গ্রেপ্তার করার নির্দেশ দেন প্রক্টর।

শিক্ষাঙ্গন অন্যান্য খবর





আপনার মতামত দিন

শিক্ষাঙ্গন সর্বাধিক পঠিত