আদালতে জবানবন্দি

বন্ধুকে খুনের পর সন্তানদের নিয়ে লাশ গুম করে মানিক

দেশ বিদেশ

পঞ্চগড় প্রতিনিধি | ২২ নভেম্বর ২০১৯, শুক্রবার | সর্বশেষ আপডেট: ৮:৫৩
ব্যবসায়িক লেনদেনসহ স্ত্রীর প্রতি কুনজর ও অশালীন আচরণ করার জন্য তেঁতুলিয়া উপজেলার যুগীগছ গ্রামের মানিক নামের এক ব্যক্তি ব্যবসায়ী আব্দুর রবকে গলা কেটে হত্যা করে। রাত অনুমানিক এক থেকে দেড়টার দিকে মানিক ঘুমন্ত আব্দুর রবের বুক ও পেটে ছুরিকাঘাত করে। এতে রব জেগে উঠলে সঙ্গে সঙ্গে ছুরিটি দিয়ে তার গলা কেটে মাথা আলাদা করে ফেলে মানিক। এরপর স্ত্রী ও সন্তানকে ডেকে তুলে লাশ ও খণ্ডিত মাথার ব্যাগটি নিয়ে মোটরসাইকেলে করে মানিক ও তার ছেলে আমান তীরনইহাট ইউনিয়নের ব্রম্মতল গ্রামের ঝিকদহ ব্রিজের কাছে মাথাবিহীন লাশ ও আজিজনগর গ্রামের হাইওয়ের পাশে নুরুল ইসলাম চা বাগানে খণ্ডিত মাথাটি ফেলে দেয়। গত বুধবার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কামরুল হাসানের আদালতে ১৬৪ ধারায় দেয়া স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে হত্যাকাণ্ডের বর্ণনা দেয় মানিক (৪৮) । গতকাল বৃহস্পতিবার পঞ্চগড় পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ইউসুফ আলী তার সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত প্রেসব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানান। এ সময় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. নাঈমুল হাছান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) সুদর্শন কুমার রায় ও ডিবি পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রবিউল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন। পুলিশ সুপার বলেন, ক্লুলেস চাঞ্চল্যকর এই হত্যাকান্ডের মূল রহস্য ৩৪ দিনেই উদঘাটন ও জড়িতদের গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়েছে ডিবি পুলিশ।
এ ঘটনায় মানিক, তার স্ত্রী আফরোজা বেগম (৪৫) ও ছেলে আমান (২১) হত্যার দায় স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছে।
জবানবন্দিতে হত্যাকাণ্ডের বর্ণনা দিয়ে যুগীগছ গ্রামের আব্দুল মজিদের ছেলে মানিক জানায়, ব্যবসায়িক লেনদেন ও স্ত্রীর প্রতি কুনজর দেয়ার কারণে নোয়াখালী জেলার বেগমগঞ্জ উপজেলার লক্ষীনারায়ণপুর গ্রামের মৃত আলী করিমের ছেলে আব্দুর রবকে (৪৯) সে হত্যা করে। মানিকের স্ত্রী আব্দুর রবকে বাড়িতে আনতে নিষেধ করে। দীর্ঘদিন ধরে পাওনা ১১ লাখ টাকা মানিককে দিচ্ছিল না রব। আব্দুর রব গত ১৭ই অক্টোবর মানিকের ইসলামী ব্যাংকের হিসাবে ৯ লাখ ২৪ হাজার টাকা জমা  দেন। ওই দিনই মানিক তার ছেলে আমানকে নিয়ে পঞ্চগড়ে গিয়ে ইসলামী ব্যাংক থেকে টাকা উত্তোলন করে ন্যাশনাল ব্যাংকে নিজের হিসাবে জমা দেয়। ওই দিনই রব পঞ্চগড়ে আসেন। পঞ্চগড় মৌচাক হোটেলের সামনে মানিকের সঙ্গে আব্দুর রবের দেখা হয়। রাত আটটার দিকে পঞ্চগড় থেকে সে আব্দুর রবকে নিয়ে তার মটর সাইকেলে করে রাত অনুমান সাড়ে ১০টার দিকে বাড়িতে আসে। গল্পগুজবের পর তারা একই ঘরে একই বিছানায় অনুমান রাত সাড়ে ১১টার দিকে ঘুমিয়ে পড়ে। রাত অনুমান এক থেকে দেড়টার দিকে মানিক গলায় ছুরি দিয়ে রবকে হত্যা করে মস্তক আলাদা করে। মানিকের দেখানো তথ্যমতে ডিবি পুলিশ হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত ছুরি ও আব্দুর রবের ব্যবহৃত মোবাইল পুকুর থেকে উদ্ধার করে। লাশ বহনের কাজে ব্যবহৃত মটর সাইকেলটিকে জব্দ করা হয়। হত্যার ঘটনার সময় আসামির পরিহিত বস্ত্র উদ্ধার করে জব্দ করা হয়েছে। তেঁতুলিয়া থানা পুলিশ গত ১৮ই অক্টোবর সকালে তিরনইহাট ইউপির ব্রম্মতল গ্রামের ঝিকদহ ব্রিজের কাছ থেকে মস্তকবিহীন অজ্ঞাতনামা ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করে থানায় একটি হত্যা মামলা করে।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

রুম্পা হত্যা: সৈকতকে রিমান্ডে চাইবে পুলিশ

জম্মু-কাশ্মীরে ইন্টারনেট পুনঃপ্রতিষ্ঠা ও বন্দিদের মুক্তি দাবি মার্কিন কংগ্রেসে

গাজীপুরে চোর সন্দেহে পিটিয়ে যুবককে হত্যা

শাহ আমানতে যাত্রীর কাছ থেকে ২০ স্বর্ণবার উদ্ধার

বরকে আটকে রেখে অন্য যুবকের সঙ্গে বিয়ে

বিকালে চলচ্চিত্র শিল্পীদের পুরস্কার তুলে দেবেন প্রধানমন্ত্রী

আরও এক বালিকাকে ধর্ষণ শেষে পুড়িয়ে হত্যার অভিযোগ

অভিনেত্রী নওশাবার মামলার স্থগিতাদেশ আপিলেও বহাল

রাজধানীতে ৪৪ মাদক বিক্রেতা ও সেবনকারী গ্রেপ্তার

ভয়াবহ আগুনে দিল্লিতে নিহত কমপক্ষে ৪৩

বরিশালে ট্রিপল মার্ডারের ঘটনায় আটক ২

কায়রো থেকে রাজধানী সরাচ্ছে মিশর

পিরোজপুরে বাসচাপায় অটোরিকশার ৩ যাত্রী নিহত

স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যার পর স্বামীর আত্মহত্যা

সীমান্তের ৮২ কিলোমিটারে কাঁটাতারের বেড়া নির্মাণ করবে ভারত

যুদ্ধের দ্বারপ্রান্তে তুরস্ক ও গ্রিস!