অভিশংসনের অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করলেন ট্রাম্পের আইনজীবীরা

মানবজমিন ডেস্ক

বিশ্বজমিন ১৯ জানুয়ারি ২০২০, রোববার | সর্বশেষ আপডেট: ৩:৫৩

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে চলমান অভিশংসন মামলায় প্রথম আনুষ্ঠানিক প্রতিক্রিয়া জমা দিয়েছে তার আইনজীবীরা। প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগগুলোকে গণতন্ত্রের উপর ‘বিপজ্জনক আক্রমণ’ হিসেবে আখ্যায়িত করেছে তারা। তাদের নথিপত্রে আরো বলা হয়েছে, ডেমোক্র্যাটরা সু¯পষ্ট অভিযোগ আনতে ব্যর্থ হয়েছে। এটা ২০২০ প্রেসিডেন্ট নির্বাচন বিঘ্নিত করার ‘নির্লজ্জ্ব’ চেষ্টা। ডেমোক্র্যাটরা তাদের যুক্তি সম্বলিত প্রথম নথিপত্র জমা দেয়ার পর প্রতিক্রিয়ায় এমনটি জানিয়েছে ট্রাম্পের আইনজীবী পক্ষ। এ খবর দিয়েছে বিবিসি।

খবরে বলা হয়, আগামী সপ্তাহে অভিশংসন বিচারকার্যের প্রথম শুনানি অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। এ নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে তৃতীয়বারের মতো কোনো প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে অভিশংসনের বিচারকার্য চলছে। এর আগে ডেমোক্র্যাট প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিন্টন ও তার আগে অপর এক ডেমোক্র্যাট প্রেসিডেন্ট অ্যান্ড্রিও জনসনের বিরুদ্ধে এমন মামলা চলেছিল।
উভয়েই নিম্নকক্ষে অভিশংসিত হলেও উচ্চকক্ষ সিনেটে খালাসি পেয়ে যান। ট্রাম্পও গত মাসে নিম্নকক্ষে অভিশংসিত হয়েছেন। তবে সিনেটে তার নিজদল রিপাবলিকান পার্টির দখলে সংখ্যাগরিষ্ঠ আসন। ধারণা করা হচ্ছে, সেখানে নিষ্কৃতি পেয়ে যাবেন তিনি। ১০০ আসনের সিনেটে  তাকে অভিশংসিত করতে অন্তত ৬৭ ভোট প্রয়োজন। কিন্তু সেখানে ডেমোক্র্যাটদের দখলে রয়েছে মাত্র ৪৭ আসন।

উল্লেখ্য,  ট্রাম্পের বিরুদ্ধে, ক্ষমতার অপব্যবহার ও কংগ্রেসের তদন্তে বাধা সৃষ্টির অভিযোগ এনেছে ডেমোক্র্যাটরা। তিনি সকল অভিযোগ অস্বীকার করেছেন ও অভিশংসনের মামলাটিকে ‘ধাপ্পাবাজি’ হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন।
শনিবার ডেমোক্র্যাটরা ট্রাম্পকে অভিশংসনের জন্য ১১১ পৃষ্ঠার নথিপত্র প্রদর্শন করেছে। তারা বলেছে, প্রেসিডেন্ট তাকে দেয়া আইন কার্যকরের শপথ ভঙ্গ করেছেন ও জনগণের আস্থার সঙ্গে প্রতারণা করেছেন। তার কার্যক্রমকে দেশটির প্রতিষ্ঠাতাদের ‘নিকৃষ্টতম দুঃস্বপ্ন’ বলে আখ্যায়িত করেছে তারা।

ডেমোক্র্যাটদের জবাবে ট্রাম্পের আইনজীবীরা একটি ছয় পৃষ্ঠার নথিপত্রে বলেছে, ডেমোক্র্যাটদের করা অভিযোগগুলো আমেরিকান জনগণের মুক্তভাবে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের অধিকারের ওপর বিপজ্জনক আক্রমণ। নথিপত্রে বলা হয়েছে, এটা ২০১৬ সালের নির্বাচনের ফলাফল ঘুরিয়ে দেয়ার এবং ২০২০ সালের নির্বাচন বিঘ্নিত করার নির্লজ্জ্ব ও অবৈধ চেষ্টা। আরো বলা হয়েছে, অভিশংসনের অভিযোগগুলোয় কোনো অপরাধ সংঘটিত হওয়া বা আইন লঙ্ঘনের নজির দেখাতে ব্যর্থ হয়েছে। এগুলো আইনবর্জিত একটি প্রক্রিয়ার ফলাফল, যেটিতে যথাযথ নিয়ম ও মৌলিক ন্যায্যতা মানা হয়নি। প্রেসিডেন্টের আইনজীবীরা আরো বলেন, ট্রাম্প সুনিশ্চিত ও অব্যর্থভাবে সকল অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করছেন।

আপনার মতামত দিন



বিশ্বজমিন অন্যান্য খবর

এক্সপ্রেস ট্রিবিউনের রিপোর্ট

বিমানবন্দর থেকে বৃটিশ এমপিকে ফেরত পাঠালো ভারত

১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০

জলবায়ু পরিবর্তনের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে

৮৫০৩৮.৪০ কোটি টাকার প্রতিশ্রুতি জেফ বেজোসের

১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০



বিশ্বজমিন সর্বাধিক পঠিত