হিজবুল্লাহর সুরঙ্গ খোঁড়া থামাতে লেবানন সেন্সর বসাচ্ছে ইসরায়েল

মানবজমিন ডেস্ক

বিশ্বজমিন ২০ জানুয়ারি ২০২০, সোমবার | সর্বশেষ আপডেট: ১১:৫২

ইসরায়েল গত বছর নিজ সীমান্তে পরিচালনা করেছিলো অপারেশন নর্দার্ন শিল্ড। এটির উদ্দেশ্য ছিলো সীমান্তে লেবানিজ সশস্ত্র দল হিজবুল্লাহর খোঁড়া সুরঙ্গ চিহ্নিত ও ধ্বংস করা। এসব সুরঙ্গ ব্যাবহার করে সশস্ত্র দলটি অনেক দিন ধরেই ইসরায়েলের অভ্যন্তরে হামলা চালিয়ে আসছিলো। নর্দার্ন শিল্ড অপারেশন চলাকালীন অন্তত ছয়টি এমন গোপন সুরঙ্গ ধ্বংস করে ইসরায়েল। তবে এখনো ঝুঁকি রয়ে গেছে হিজবুল্লাহর নতুন করে সুরঙ্গ খননের। তাই সে ঝুঁকি মোকাবেলায় লেবাননের সঙ্গে থাকা সীমান্তে সেন্সর স্থাপন করছে। এরফলে ওই অঞ্চলে কোনো খোঁড়াখুঁড়ি হলে তা সঙ্গে সঙ্গে ইসরায়েলি সীমান্তরক্ষি বাহিনীকে সতর্ক করে দেবে।

হিজবুল্লাহর সুরঙ্গ খনন রোধে নেয়া নতুন এক পরিকল্পনা ঘোষণা করেন ইসরায়েলি ডিফেন্স ফোর্স বা আইডিএফের মুখপাত্র ব্রিগেডিয়ার-জেনারেল হিদাই জিলবারম্যান। তিনি জানান, এই সেন্সর স্থাপিত হলে সীমান্ত এলাকার সকল শব্দই বিশ্লেষণ করা সম্ভব হবে।
ফলে নতুন করে কোনো সুরঙ্গ খোলা হলে তা সঙ্গে সঙ্গে ইসরায়েলি বাহিনীকে সতর্ক করে দিতে পারবে।

জিলবারম্যান জানিয়েছেন, রোববার শুরু হওয়া এই সেন্সর বসানোর কাজ শেষ হতে কয়েক মাস সময় লাগবে। গোয়েন্দা তথ্য, বাজেট ও পরিস্থিতির ওপর ভিত্তি করে এ বছরের পুরো সময়টাই এর পেছনে ব্যয় হতে পারে বলে জানিয়েছেন তিনি। তবে এ জন্য কোনো অতিরিক্ত সেনা মোতায়েনের প্রয়োজন পড়বে না বলেও নিশ্চিত করা হয়েছে।

আপনার মতামত দিন



বিশ্বজমিন অন্যান্য খবর

প্রেসিডেন্টকে সোনিয়া গান্ধী

অমিত শাহকে বরখাস্ত করুন

২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০

ট্রাম্পের কড়া সমালোচনায় বার্নি স্যান্ডার্স

দিল্লি সহিংসতায় মার্কিন রাজনীতিকদের গভীর উদ্বেগ

২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০



বিশ্বজমিন সর্বাধিক পঠিত