ভারতের এস-৪০০ নিয়ে উদ্বিগ্ন পাকিস্তান

মানবজমিন ডেস্ক

বিশ্বজমিন ২৫ জানুয়ারি ২০২০, শনিবার

রুশ আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা এস-৪০০ ক্রয়ের যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভারত তার কঠোর সমালোচনা করেছে প্রতিদ্বন্দ্বী রাষ্ট্র পাকিস্তান। দেশটির দাবি, ভারতের এমন সিদ্ধান্ত এ অঞ্চলে একটি অপ্রয়োজনীয় অস্ত্র প্রতিযোগিতার সূচনা করবে। এ বছরের শুরুতেই ভারতে নিযুক্ত রাশিয়ার উপ-রাষ্ট্রদূত নিশ্চিত করেন যে, ভারতের জন্য ইতিমধ্যেই পাঁচটি এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা উৎপাদনের কাজ এরইমধ্যে শুরু করেছে রাশিয়া। এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা ক্রয় সংক্রান্ত ভারতীয় সিদ্ধান্তের সমালোচনা করে পাকিস্তান বলেছে, এটি দক্ষিণ এশিয়ার প্রতিরক্ষা এবং স্থিতিশীলতাকে ক্ষুণ্ন করবে। একইসঙ্গে এর কারণে নতুন করে অস্ত্র প্রতিযোগিতার সূচনা হবে বলেও দাবি করে দেশটি। পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র আইশা ফারুকি বলেন, এই সিদ্ধান্ত বাদ দিয়ে ভারতের উচিত আলোচনায় বসা। সমপ্রতি ভারত মধ্যপাল্লার পরমাণু ক্ষেপণাস্ত্র কে-৪’এর সফল পরীক্ষা চালিয়েছে। ক্ষেপণাস্ত্র প্রযুক্তিতে দেশটির পাকিস্তান থেকে বেশ এগিয়ে আছে।
উল্লেখ্য, ২০১৮ সালে পাঁচটি এস-৪০০ ব্যবস্থা ৫০০ কোটি ডলারে কেনার জন্য মস্কো-নয়াদিল্লি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। এ চুক্তি অনুযায়ী ২০২৫ সালের মধ্যে এ সব ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা ভারতের কাছে হস্তান্তর করতে হবে। অবশ্য এ চুক্তির কঠোর বিরোধিতা করছে যুক্তরাষ্ট্র। ওয়াশিংটন দাবি করছে, রুশ অস্ত্র নয় বরঞ্চ মার্কিন প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা ভারতের কেনা উচিত। তবে আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থাগুলোর মধ্যে সব থেকে আধুনিক ও কার্যকরী হিসেবে বিবেচিত হয় এস-৪০০। বিশ্বে এর সমকক্ষ কোনো প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা নেই। এস-৪০০ এর পর এখন এস-৫০০ উৎপাদনে যাচ্ছে রাশিয়া।

আপনার মতামত দিন



বিশ্বজমিন অন্যান্য খবর

এক্সপ্রেস ট্রিবিউনের রিপোর্ট

বিমানবন্দর থেকে বৃটিশ এমপিকে ফেরত পাঠালো ভারত

১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০

জলবায়ু পরিবর্তনের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে

৮৫০৩৮.৪০ কোটি টাকার প্রতিশ্রুতি জেফ বেজোসের

১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০



বিশ্বজমিন সর্বাধিক পঠিত