এসকে সিনহাকে মাজায় দড়ি বেঁধে টেনে দেশে আনা হবে

স্টাফ রিপোর্টার, মৌলভীবাজার ও রাজনগর প্রতিনিধি

এক্সক্লুসিভ ২৬ জানুয়ারি ২০২০, রোববার | সর্বশেষ আপডেট: ৮:৩৬

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ.ক.ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, সাবেক প্রধান বিচারপতি এসকে সিনহা কুলাঙ্গার, চোর ও বদমাইশ। তাকে বিদেশ থেকে মাজায় দড়ি লাগিয়ে ধরে টেনে দেশে আনা হবে। তাকে দেশে এনে বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড় করানো হবে। কোনো ভাবেই তাকে ছাড় দেয়া হবে না। গতকাল দুপুরে মৌলভীবাজার এম সাইফুর রহমার অডিটোরিয়ামে একসঙ্গে জেলার ৪টি উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনের উদ্বোধন এবং এ উপলক্ষে মুক্তিযোদ্ধাদের সঙ্গে মতবিনিময় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি। মন্ত্রী সাবেক প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের সমালোচনা করে বলেন, বঙ্গবন্ধু হত্যার পরিকল্পনার সঙ্গে জিয়া জড়িত ছিলেন। তিনি আরো বলেন- মুক্তিযোদ্ধা ভাতা ৩ মাসের পরিবর্তে এখন থেকে প্রত্যেক মুক্তিযোদ্ধাকে প্রতি মাসে মোবাইলফোনের মাধ্যমে দেয়া হবে। মন্ত্রী বলেন- উপজেলা পর্যায়ে মুক্তিযোদ্ধাদের বিনামূল্যে চিকিৎসার জন্য আমরা স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে অগ্রিম টাকা দিয়েছি।
কিন্তু এরপরেও আমাদের কাছে অভিযোগ আছে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে সরকারি হাসপাতালে মুক্তিযোদ্ধাদের চিকিৎসায় অবহেলা করা হচ্ছে। তাই আমরা এই বিষয়টি নিয়ে সতর্ক করে দিচ্ছি সংশ্লিষ্টদের, যেনো মুক্তিযোদ্ধাদের চিকিৎসায় অবহেলা না করা হয়। জেলা প্রশাসন ও স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের উদ্যোগে অয়োজিত সভায় সভাপতিত্ব করেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মল্লিকা দে।

মৌলভীবাজার-৩ আসনের সংসদ সদস্য নেছার আহমদ, মৌলভীবাজার-২ আসনের সংসদ সদস্য উপাধ্যক্ষ ড.  মো. আব্দুস শহীদ, সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য সৈয়দা জোহরা আলাউদ্দিন, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আজিজুর রহমান, পৌর মেয়র ফজলুর রহমান, উপজেলা চেয়ারম্যান কামাল হোসেন, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মিছবাহুর রহমান, যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী এম.এ রহিম সিআইপি, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট রাধা পদ দেব সজল, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য সাইফুর রহমান বাবুল, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক  ভিপি আব্দুল মালিক তরফদার সুয়েব উপস্থিত ছিলেন।

‘রাজনগরে হবে সৈয়দ মহসিন আলী চত্বর’
ওদিকে রাজনগর উপজেলার কলেজ পয়েন্ট এলাকায় প্রয়াত সমাজকল্যাণ মন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ মহসিন আলীর নামে একটি চত্বর নির্মাণের ঘোষণা দিয়েছেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ.ক.ম মোজাম্মেল হক। শুক্রবার সন্ধ্যায় কলেজ পয়েন্ট এলাকায় এক পথসভায় উপজেলার মুক্তিযোদ্ধারা এই দাবি করলে তিনি শিগগিরই এই চত্বর নির্মাণ করা হবে বলে আশ্বাস দেন।

পথসভায় মন্ত্রী আ.ক.ম মোজাম্মেল হক উপস্থিত মুক্তিযোদ্ধাদের উদ্দেশ্যে বলেন, তরুণ প্রজন্মকে আমাদের মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস ও মুক্তিযোদ্ধাদের বীরত্বের কথা জানাতে হবে। তাহলে তারা দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ হওয়ার পাশাপাশি নিজেদের যোগ্য মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে পারবে। পথসভায় আরো বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মিলন বখত, সাবেক উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার সজল চক্রবর্তী। এসময় উপস্থিত ছিলেন রাজনগর থানার ওসি আবুল হাসিম, জেলা আওয়ামী লীগের শ্রম বিষয়ক সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা রামলাল রাজভর, কৃষকলীগের সভাপতি মাহমুদুর রহমান, মনসুরনগর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি ফরজান আহমদ, উপজেলা যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক বদরুল ইসলাম, উপজেলা সেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক আকমল হোসেন, উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদির ফৌজি, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রুবেল আহমদ, রাজনগর সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি রাহি খান প্রমুখ।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Amir

২০২০-০১-২৬ ১১:০৩:৫৬

কুলাঙ্গার, চোর ও বদমাইশ। তাকে বিদেশ থেকে মাজায় দড়ি লাগিয়ে ধরে টেনে দেশে আনা হবে।...........শ্লীল ভাষায় কথা বলতে পয়সা খরচ হয় না ;আইন প্রয়োগকারী সংস্থাই দেখবে কাকে কিভাবে আনতে হবে! সরকারের জনপ্রিয়তা হ্রাসের জন্য আপনাদের মত অতি উতসাহী দু' এক জনই যথেষ্ট!

আপনার মতামত দিন



এক্সক্লুসিভ অন্যান্য খবর

৪৭ বছর পর ভাইবোনের মিলন

২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০

শিক্ষা-সংস্কৃতি অগ্রসরে

পরিচ্ছন্ন হবিগঞ্জ গড়তে চান জেলা প্রশাসক কামরুল হাসান

২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০

অস্তিত্ব হারাতে বসেছে ঝিনাইদহের জিকে সেচ প্রকল্পের খালগুলো

২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০

ঝিনাইদহের জিকে সেচ প্রকল্পের কার্যক্রম মুখ থুবড়ে পড়েছে। এই প্রকল্পের আওতায় ৮১৫ কিলোমিটার খালে বর্তমানে ...



এক্সক্লুসিভ সর্বাধিক পঠিত