গরু কচুরিপানা খেলে আমরা খেতে পারবো না কেন -পরিকল্পনামন্ত্রী

মানবজমিন ডেস্ক

শেষের পাতা ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০, মঙ্গলবার | সর্বশেষ আপডেট: ১০:৫৬

পরিকল্পনা মন্ত্রী এম এ মান্নান বলেছেন, গরু কচুরিপানা খেতে পারলে আমরা কেন পারবো না? সোমবার  দুপুরে এনইসি-২ সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে কৃষি গবেষণায় অবদান রাখায় দুজনের হাতে পুরস্কার তুলে দিয়ে তিনি
একথা বলেন। এ সময় পোস্ট হারভেস্ট কস্ট কমানোর জন্য গবেষণার সুপারিশ করেন মন্ত্রী। কৃষি গবেষণায় অবদান রাখার জন্য ড. এম এ রহীম এবং ড. শামসুল আলমকে সম্মাননা ক্রেস্ট তুলে দেন পরিকল্পনামন্ত্রী। খবর সময় টিভির।
মন্ত্রী বলেন, আর কচুরিপানা নিয়ে কিছু করার যায় কি-না। কচুরিপানার পাতা খাওয়া যায় না কোনো? গরু তো খায়। গরু খেতে পারলে আমরা খেতে পারব না কেন? এ বিষয়ে গবেষণারও তাগিদ দেন মন্ত্রী। তিনি বলেন, বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় রূপান্তর কৃষিতেই হয়েছে।
ওখান থেকে অন্যান্য ক্ষেত্রে ছড়িয়ে পড়েছে। এম এ মান্নান বলেন, পোস্ট হারভেস্ট লস্ট  কীভাবে কমানো যায়, এ বিষয়ে গবেষণা করুন। আমাদের প্রধানমন্ত্রী প্রায়ই ক্ষোভ প্রকাশ করেন, কেন বেশি গবেষণা হচ্ছে না। গবেষণার জন্য এ সরকার উন্মুখ হয়ে আছে। পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, দেশে আরও বেশি প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলতে বলেছেন প্রধানমন্ত্রী। কেউ কেউ বলেন, এত প্রতিষ্ঠান কেন? ১৬ কোটি মানুষের দেশ এটা। আনুপাতিক হিসাব করলে আমরা এখনো ওই পর্যায়ে যাইনি, যে লেভেলে পশ্চিমারা আছে। তাই প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, আরও বেশি প্রতিষ্ঠান গড়তে হবে। মান নিয়ে অনেকে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। প্রধানমন্ত্রীও করেন। তার ধারণা, চাপের মুখে মানোন্নয়ন হবে।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Mohammad

২০২০-০২-১৭ ২৩:২০:৪৪

এও শোনা বাকী ছিল

Mohammad

২০২০-০২-১৭ ২২:১২:৫৩

এও শোনা বাকী ছিল

ওমর ফারুক

২০২০-০২-১৭ ১৮:১৬:৩৮

মন্ত্রীর বক্তব্য প্রশংসনিয়, তাই অনুরোধ নিজে কচুরিপানা খেয়ে জনগনকে দেখিয়ে দিন যে কচুরিপানা মন্ত্রীদের খাদ্য।

কাজল

২০২০-০২-১৭ ১৪:০৯:০৬

ডিজিটাল ভোটে নির্বাচিত সরকারে মন্ত্রী হলে পাগল হয় নাকি পাগল ধরে মন্ত্রী বানায় সেটাই বুঝি না।

Mojib

২০২০-০২-১৮ ০১:৫৮:৩০

নতুন পাগলের আভিরবারব ,

Jewel

২০২০-০২-১৭ ১২:৫৩:৪১

জনাব গরুর খাবারে চোখ দিবেন না দয়া করে। এতে গরু মনে কষ্ট পাবে। এর চাইতে কিভাবে চাল, ডাল,পিঁয়াজ বেশি উৎপাদন করা যায় তাই নিয়ে ভাবুন।

Faruki

২০২০-০২-১৭ ১২:৪৯:৫৩

Let him do at first. Big stupid

Md. Fazlul hoque

২০২০-০২-১৭ ১২:০৫:৩৯

কচুরিপানার কোষের প্রাচীর সেলুলোজ দ্বারা গঠিত । মানুষের পরিপাক তন্ত্রের নিঃসৃত এনজাইম সেলুলোজের B-গ্লাইকোসাইড বন্ধন ভাংতে পারেনা, তাই মানুষ সেলুলোজ হজম করতে পারে না । অপরদিকে তৃনভোজী প্রাণী গরুর পরিপাক তন্ত্রের নিঃসৃত এনজাইম সেলুলোজের B-গ্লাইকোসাইড বন্ধন ভাংতে পারে, তাই গরু কচুরিপানা হজম করতে পারে ।

জাফর আহমেদ

২০২০-০২-১৭ ১১:৪৬:২৩

মন্ত্রী সাহেব আপনি আগে খেয়ে দেখেন , তার পর মানুষ কে কচুরিপানার স্বাদ গন্ধ কেমন বলেতে পারবেন। যত সব ....... মন্ত্রী।

abdul kadir

২০২০-০২-১৮ ০০:২৫:১৫

বাস্থবায়ন হোক কচুরিপানা খাওয়ার পরিকল্পনা। আসুন আমরা সকল জনতা একসাথে সুপারিশ করি মন্ত্রীদের প্রকাশ্যে কচুরিপানা কাওয়ার। আমরাও খাব তবে আপনাদের দেখে শেখার পরে।

আপনার মতামত দিন



শেষের পাতা অন্যান্য খবর

বড় সংকটে শ্রমবাজার

২৭ মার্চ ২০২০

করোনা ভাইরাস নিয়ে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল

দক্ষিণ এশিয়ায় বাড়ছে সংক্রমণ

২৭ মার্চ ২০২০

আতঙ্কের জনপদ নিউ ইয়র্ক

আরো চার বাংলাদেশির মৃত্যু

২৬ মার্চ ২০২০



শেষের পাতা সর্বাধিক পঠিত