ট্রাম্পের ভিডিও সরিয়ে দিয়েছে টুইটার, ফেসবুক

মানবজমিন ডেস্ক

বিশ্বজমিন ৬ জুন ২০২০, শনিবার | সর্বশেষ আপডেট: ৬:৩৮

পুলিশি নির্যাতনে নিহত আফ্রিকান বংশোদ্ভূত মার্কিনি জর্জ ফ্লয়েডের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে প্রকাশ করা প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের ভিডিও সরিয়ে দিয়েছে টুইটার ও ফেসবুক কর্তৃপক্ষ। ডিজিটাল মিলেনিয়াম কপিরাইট এক্ট লঙ্ঘনের অভিযোগে ওই ভিডিও সরিয়ে নেয়া হয়েছে বলে জানানো হয়েছে। ভিডিওটি পোস্ট করেছিল প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের নির্বাচনী প্রচারণা টিম। এ খবর দিয়েছে অনলাইন ডয়চে ভেলে। এতে বলা হয়, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প শুক্রবার সামাজিক মিডিয়ায় দেয়া পোস্টের মাধ্যমে আবার বিতর্ক উসকে দিয়েছেন। এবার কপিরাইট ইস্যুতে জর্জ ফ্লয়েডের প্রতি শ্রদ্ধা প্রদর্শনের একটি ভিডিও অকার্যকর করে রেখেছে টুইটার, ইন্সটাগ্রাম ও ফেসবুক। ওই ভিডিও পোস্টে দেখানো হয়েছে, জর্জ ফ্লয়েডের মৃত্যুর পর সহিংস বিক্ষোভের ভিডিও ফুটেজ ও ছবি। একই সঙ্গে ব্যাকগ্রাউন্ডে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে বক্তব্য রাখতে দেখা যায়।

ফল হিসেবে বেশ কিছু অভিযোগ করা হয়েছে। টুইটার কর্তৃপক্ষের একজন প্রতিনিধি বলেছেন, কপিরাইট আছে এমন ব্যক্তি ও কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে আমাকের কাছে অভিযোগ এসেছে। আমরা বৈধ কপিরাইট অভিযোগের প্রেক্ষিতে ব্যবস্থা নিয়েছি।
উল্লেখ্য, জর্জ ফ্লয়েডের কাঁধ ৯ মিনিট পুলিশ কর্মকর্তারা হাঁটু গেঁড়ে সজোরে চেপে ধরে রাখে। এ সময় তিনি নিশ^াস নেয়ার জন্য অনুনয় করলেও তাতে সাড়া দেয় নি পুলিশ। এতে তিনি মারা যান। এ ঘটনায় যুক্তরাষ্ট্রে বর্ণবাদবিরোধী এবং পুলিশি নৃশংসতার প্রতিবাদে যুক্তরাষ্ট্র সহ বিশে^র বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ হয়। এ নিয়ে ধারাবাহিকভাবে টুইট করেছেন ট্রাম্প। তবে এবার তিনি কপিরাইটের আওতায় পড়েছেন। ইন্সটাগ্রামের মালিকও ফেসবুক। তারা বলেছে, ভিডিও ধারণকারীর ডিজিটাল মিলেনিয়াম কপিরাইট এক্টের অধীনে অভিযোগের প্রেক্ষিতে ট্রাম্পের ওই ভিডিওটি সরিয়ে নেয়া হয়েছে। ভিডিওটি সরিয়ে নেয়ার জন্য টুইটার কর্তৃপক্ষের সমালোচনা করেছেন ট্রাম্প। তিনি টুইটারে বলেছেন, উগ্রপন্থি বাম ঘরানার ডেমোক্রেটদের পক্ষে কাজ করছে তারা। তারা একপক্ষের হয়ে কাজ করছে, যা বেআইনি।

আপনার মতামত দিন

বিশ্বজমিন অন্যান্য খবর

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তথ্য

একদিনে রেকর্ড সংক্রমণ

৫ জুলাই ২০২০



বিশ্বজমিন সর্বাধিক পঠিত