‘ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান’ ও ‘সংখ্যালঘু’র সম্পদে নজর কলাপাড়া পৌর কৃষকলীগের সভাপতির

স্টাফ রিপোর্টার

বাংলারজমিন ৯ জুলাই ২০২০, বৃহস্পতিবার

পটুয়াখালী জেলার কলাপাড়া উপজেলার পৌর কৃষকলীগ সভাপতি এসএম মরতুল্লা সৌরভ সিকদার ওরফে মনু এর অত্যাচারে অতিষ্ট এলাকার হিন্দু ও মুসলিম উভয় সম্প্রদায়। দলীয় ক্ষমতার অপব্যবহার করে মসজিদ, মাদরাসা, সংখ্যালঘু মানুষের জমি দখল ও চাঁদাবাজির অভিযোগে একাধিক মামলার আসামী সৌরভ। অভিযোগ রয়েছে, বায়োজ্যেষ্ঠসহ বিভিন্ন বয়সী মানুষকে শারীরিক নির্যাতন, সাধারণ মানুষের প্রাপ্য টাকা না দেয়া, মাদক ও অনৈতিক কর্মকান্ডের সঙ্গে যুক্ত সে।
অনুসন্ধানে জানা যায়, পটুয়াখালী জেলার কলাপাড়া উপজেলার টিয়াখালী ইউনিয়নে হাজী ওয়াজেদ আলী মাস্টারবাড়ী জামে মসজিদ অবস্থিত। এই মসজিদের জমিতে ২০১৭ সালের দিকে লোভাতুর দৃষ্টি পড়ে সৌরভ সিকদার ওরফে মনু । স্থানীয় গুন্ডাপান্ডাদের সঙ্গে নিয়ে মসজিদের জায়গা দখল করে সৌরভ। মসজিদ কর্তৃপক্ষের সর্বশেষ জমির রেকর্ড (বিএস পর্চা) সহ সকল দালিলিক প্রমানাদি থাকলেও আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে সৌরভ তার পেশী শক্তির বলে কোনো ধরণের দালিলিক প্রমাণ ব্যতিরেকে মসজিদের প্রায় ৫৬ শতাংশ জমি দখল করে মাছের ঘের করে।
এছাড়াও মসজিদ কর্তৃপক্ষ সৌরভের বিরুদ্ধে কোর্টে ১০লাখ টাকার চাঁদাবাজির মামলা দায়ের করে।
মামলা নং (সি,আর৫৯৮/২০১৯)। যা আদালতে চলমান আছে। এছাড়াও সৌরভের নামে ভায়োলেশন মামলা চলমান রয়েছে। যার মামলা নং (১১/২০১৯)। আদালত মসজিদের ওই জায়গাতে সকল প্রকার অনুপ্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দিলেও আদালতের আদেশ অমান্য করে দলীয় ক্ষমতার অপব্যবহার করে সৌরভ সিকদার ওরফে মনু সেখানে মাছ চাষ করে যাচ্ছে। এ বিষয়ে মসজিদ কমিটির সভাপতি মতি তালুকদার বলেন, ‘সৌরভ দলীয় ক্ষমতার অপব্যবহার করছেন, সেই সঙ্গে মসজিদের জায়গা দখল করার মতো ধৃষ্টতা দেখিয়ে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানছেন এ বিষয়ে তার উপযুক্ত শাস্তি হওয়া উচিত। দলের ভাবমূর্তিও ক্ষুন্ন করার কারণে তাকে দল থেকেও বহিস্কার করা উচিত।’ কলাপাড়া উপজেলায় টিয়াখালী ইউনিয়নে পরিমল গং এর স্থাবর সম্পত্তি। বাবা কালিকান্তের ক্রয়সূত্রে পাওয়া জমি ৭০ বছর ধরে ভোগ দখলে থাকলেও ১০ বছর আগে নজর পরে সৌরভ সিকদার এর বাবা সানু সিকদার গং এর। ৭০ বছর ধরে ভোগদখলকৃত জমির সীমানা ভেঙ্গে গুড়িয়ে দেয় সানু সিকদার এর ছেলে সৌরভ সিকদার। জমিতে ঘর তুলতে গেলে বাধা প্রদান করে। ২০১১ সাল থেকে সৌরভের বাবা-চাচার বিরুদ্ধে আদালতের শরনাপন্ন হয় ভূক্তভোগী এই পরিবার। মামলা চললেও হামলার ভয়ে ভুক্তভোগী পরিবার নীরবে নিভৃতে ভয় নিয়ে জীবন যাপন করছে। এদিকে মামলা পরিচালনা করতে গিয়ে খেটে খাওয়া পরিবারটি এখন নিঃস্ব প্রায়। এ বিষয়ে পরিমল হাওলাদার বলেন, ‘৭০ বছর ধরে আমরা আমাদের জমি ভোগ দখল করলেও সৌরভ আমাদের জীবনকে অতিষ্ট করে তুলছে। আমরা আমাদের ন্যায্যা ভোগদখলকৃত জমিতে ঘর তুলতে প্রশাসনের সহযোগিতা চাই। জাতির পিতার আওয়ামী লীগ থেকেও এই ভূমিদস্যুদের বহিস্কার চাই।’
কলাপাড়া পৌরসভার একমাত্র ফাযিল মাদরাসার নাম ‘খেপুপাড়া নেসারুদ্দিন ফাযিল মাদরাসা’। এ মাদরাসার জমিতেও নজর পড়েছে সৌরভ সিকদারের। জমিতে বিভিন্ন মানুষের নামে সাইনবোর্ড ঝুলিয়ে দেয়। এছাড়া প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকদের রামদা উচিতে দিনেদুপুরে প্রকাশ্যে লাঞ্ছিত করার প্রতিবাদে অতীতে শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন প্রতিবাদ কর্মসূচি পালন করে। এই মাদরাসার প্রতিষ্ঠাতা সুপারেনটেনডেন্ট ছিলেন মাও. সাইদুর রহমান। তার স্ত্রী নুরজাহান সিকদার এর জমিরসঙ্গে খেপুপাড়া নেসারুদ্দিন ফাযিল মাদরাসার স্থাবর সম্পত্তির এওয়াজ বদল হয়। এওয়াজ বদলের পর ১৯৫৩ সাল থেকে বাড়িঘর নির্মাণ করে বসবাস করছে তারা। নির্ধারিত জায়গায় ২টি দুই তলা বিল্ডিং ভবন, ১টি টিনসেট দোতলা ভবন, ইটের বাঁধানো পুকুর ঘাট ও কবরস্থান। ১টি মসজিদ ১টি মডেল মাদরাসা ও ১টি হাফেজী মাদরাসা রয়েছে যা কলাপাড়া পৌরসভা কর্তৃক অনুমোদিত। সাম্প্রতিক সময়ে মাদরাসা ক্যাম্পাসের অংশে ওয়ারিশগণ ঘর তুলতে গেলে দিনদুপুরে অশ্রাব্য ভাষায় গালাগালি মারধর ও হত্যার হুমকি দিয়ে কাজ বন্ধ করে দেয় সৌরভ। এ বিষয়ে ভুক্তভোগী পরিবারের সদস্য মনিবুর রহমান বলেন, ‘খেপুপাড়া নেসারুদ্দিন ফাযিল মাদরাসা থেকে এওয়াজবদল সূত্রে পাওয়া আমাদের জমিত ৬৫ বছরের ও বেশি সময় ধরে ভোগ দখল করে আসছি। জমি থেকে মসজিদ, মাদরাসায় জমি দান করেছি, সেই মাদরাসায় ও ওয়ারিশ গণের দান করা জমিতে কোনো কাগজপত্র না থাকলেও পেশী শক্তির বলে কাজে বাধা প্রদান করে সৌরভ সিকদার। এবং তার খামারে বিদেশী গরু কেনার জন্য চাঁদা দাবি করে অন্যথায় জীবননাশের হুমকি দেয়। আমরা এবিষয়ে প্রশাসনের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করছি।’

কলাপাড়া উপজেলা লালুয়া ইউনিয়নের একটি দাখিল মাদরাসার সুপারেনটেনডেন্ট মাও. আবদুল আউয়ালের গায়ে প্রকাশ্য দিবালোকে মারধর করেন সৌরভ। ভুক্তভোগী নিজের নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে থানায় কোনো অভিযোগ পর্যন্ত করেননি। এমন ঘটনা ঘটেছে ৭০ বছর বয়সী কলাপাড়ার কলেজরোড এলাকার আবদুল মাজেদ তালুকদার ক্ষেত্রেও। তার গায়ে কেন হাত তুলেছেন সৌরভ তা তিনি আজও জানেন না। তিনি নিরাপত্তাহীনতার কথা চিন্তা করে, কোথাও অভিযোগ না করে বিষয়টি চেপে যান। মিরন সিকদার পাওনা টাকা চাইতে গেলে তাকেও মারধর করে সৌরভ। সৌরভ সিকদারের বোন উম্মে তাহমিমা বিথী সংরক্ষিত নারী আসনের কমিশনার হওয়ায় তার ক্ষমতাকেও কাজে লাগানোর অভিযোগ রয়েছে। নেশায় আসক্ত সৌরভ নিজের এ কাজ করতে একদল নেশাখোর উঠতি বয়সী কিশোরদের কাজে লাগায়।
এ বিষয়ে এসএম মরতুল্লা সৌরভ ওরফে মনু সিকদার বলেন, তার বিরুদ্ধে অভিযোগ কেউ করতেই পারে কিন্তু সেগুলোর সত্যতা নেই। সামাজিকভাবে তাকে হেয় করতে অনেকে তার বিরুদ্ধে অভিযোগ করে। এছাড়া মারধরের বিষয়টি তিনি অস্বীকার করেন। জমি দখলের বিষয়টি সত্য নয় বরং সেগুলো তাদের পৈত্রিক সূত্রে পাওয়া। অন্যের হয়ে জমি দখল করতে যাওয়া প্রসঙ্গে তিনি বলেন, তার বোন কাউন্সিলর, তাই ‘ভূক্তভোগীরা’ তার কাছে আসে। তবে এলাকাবাসীর অভিযোগ, তিনি যে দলিলপত্রের কথা বলেন, সেগুলো জাল।

আপনার মতামত দিন

বাংলারজমিন অন্যান্য খবর

ফুফুর বাড়িতে মাংস দিতে গিয়ে লাশ হয়ে ফিরলো হাফেজ ফাহিম

১ আগস্ট ২০২০

ফুফুর বাড়িতে মাংস দিতে গিয়ে দুই ভাইয়ের একজন লাশ হয়ে বাড়িতে ফিরেছে । আরেক ভাইয়ের ...

নবীগঞ্জে পানিতে ডুবে দুই কিশোরীর মৃত্যু

১ আগস্ট ২০২০

নবীগঞ্জে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করতে গিয়ে হাওরের পানিতে ডুবে দুই কিশোরীর মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। উপজেলার ...

বাসাইলে বিদ্যুতস্পৃষ্টে নৌকাডুবি, পাঁচজনের মৃত্যু

৩১ জুলাই ২০২০

টাঙ্গাইলের বাসাইলে বিদ্যুতস্পৃষ্টে নৌকা ডুবে মা-ছেলে সহ পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে।  শুক্রবার (৩১জুলাই) বিকেল সাড়ে চারটায় ...

সাটুরিয়ায় ৫ কোটি টাকার মাছ বন্যার পানিতে ভেসে গেছে

৩১ জুলাই ২০২০

সাটুরিয়া উপজেলার বালিয়াটি জমিদার বাড়ির চারপাশের শতাধিক পুকুরের মাছ ভেসে গেছে। এতে ক্ষতিগ্রস্ত অর্ধশতাধিক মৎস্যচাষি ...

ঘুমধুমে বন্দুকযুদ্ধে রোহিঙ্গা মাদক ব্যবসায়ী নিহত

৩১ জুলাই ২০২০

বান্দরবান পার্বত্য জেলার নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার দুর্গম ঘুমধুম সীমান্তে পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে রোহিঙ্গা শাহ আলম (৪০) ...

ফুলবাড়ীতে মানবপাচার প্রতিরোধে মানববন্ধন

৩১ জুলাই ২০২০

‘প্র্রতিশ্রুতিবদ্ধ হয়ে ফ্রন্টলাইনে কাজ করি-মানবপাচার নির্মূল করি’- এই স্ল্লোগানকে ধারণ করে কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ীতে উপজেলা প্রশাসনের ...



বাংলারজমিন সর্বাধিক পঠিত