বিদেশি শ্রমিকদের সতর্ক করলেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী

মালয়েশিয়ায় সেই বাংলাদেশির ওয়ার্ক পারমিট বাতিল

মানবজমিন ডেস্ক

বিশ্বজমিন ১২ জুলাই ২০২০, রোববার | সর্বশেষ আপডেট: ৭:২৩

শ্রমিকদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করা নিয়ে আল জাজিরায় সাক্ষাৎকার দেয়া সেই বাংলাদেশির ওয়ার্ক পারমিট বাতিল করেছে মালয়েশিয়া। ফলে তিনি এখন অবৈধ অভিবাসী হিসেবে পরিগণিত হবেন। তাকে আটক করা গেলে দেশে ফেরত পাঠানো হবে। মালয়েশিয়া পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) আবদুল হামিদ বন্দর এ কথা জানিয়েছেন বলে খবর দিয়েছে অনলাইন মালয় মেইল। রিপোর্টে বলা হয়েছে, হারিয়ান মেট্রো আবদুল হামিদ বন্দরকে উদ্ধৃত করে বলেছে, বাংলাদেশি ২৫ বছর বয়সী ওই ব্যক্তির কাজের অনুমোদন বাতিল সংক্রান্ত তথ্য পুলিশকে অবহিত করেছে ইমিগ্রেশন ডিপার্টমেন্ট। এর ফলে ওই বাংলাদেশি এখন অবৈধ। তাকে দেশে ফেরত পাঠানো হবে। আবদুল হামিদ বলেছেন, এ জন্য তার আত্মসমর্পণ করা উচিত, যাতে তাকে আমরা তার দেশে ফেরত পাঠাতে পারি।

উল্লেখ্য, আল জাজিরার ‘১০১ ইস্ট’ প্রোগ্রামের একটি পর্বে দেখা যায় ওই বাংলাদেশিকে। তিনি সাম্প্রতিক লকডাউনের সময়ে অভিবাসী শ্রমিকদের প্রতি কর্তৃপক্ষের দুর্ব্যবহারের অভিযোগ করেন। গত ৩রা জুলাই ‘লকডআপ ইন মালয়েশিয়া’স লকডাউন’ শীর্ষক ওই পর্বটি প্রচার করে দোহাভিত্তি আল জাজিরা। এতে মালয়েশিয়ায় অভিবাসী শ্রমিকদের অধিকার লঙ্ঘনের জন্য কর্তৃপক্ষের সমালোচনা করে মানবাধিকার বিষয়ক গ্রুপগুলো। বলা হয়, রেড জোনে ঘেরাও দেয়ার সময় সেখানে শ্রমিকদের অধিকার মারাত্মকভাবে লঙ্ঘন করা হয়েছে। এমন খবর প্রকাশ করায় ভীষণ ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছেন মালয়েশিয়ার মন্ত্রীরা, ইমিগ্রেশন ডিপার্টমেন্ট এবং পুলিশ। প্রতিরক্ষামন্ত্রী ইসমাইল সাব্রি ইয়াকুব আল জাজিরাকে ক্ষমা চাওয়ার দাবি জানিয়েছেন। এর পর থেকেই কাতারভিত্তিক এই চ্যানেলের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ ও মানহানির তদন্ত করছে মালয়েশিয়া পুলিশ।
ওদিকে বিদেশিদের সতর্ক করেছেন ইমিগ্রেশন মহাপরিচালক খায়রুল দাইমি দাউদ। তিনি বলেছেন, মালয়েশিয়া সম্পর্কে নেতিবাচক মন্তব্যের কারণে কাজের অনুমোদন বাতিল হতে পারে। এর একদিন আগে তার ডিপার্টমেন্ট ওই অভিযুক্ত বাংলাদেশি সম্পর্কে বিস্তারিত প্রকাশ করে এবং তাকে গ্রেপ্তারে জনগণের সহায়তা কামনা করে। ওই বাংলাদেশির সম্পর্কে এভাবে ব্যক্তিগত তথ্য জনসমক্ষে প্রকাশ করায় উদ্বেগ দেখা দিয়েছে। ইমিগ্রেশন ডিপার্টমেন্টের ফেসবুকে পেজে এ জন্য বিদেশিভীতি এবং অভিবাসী বিরোধী সেন্টিমেন্ট তুঙ্গে উঠেছে। নাগরিক সমাজ এমন কর্মকান্ডের নিন্দা জানিয়েছেন। ওদিকে এ বিষয়ে তদন্তের জন্য বুকিত আমানে আল জাজিরার কমপক্ষে ৬ জন স্টাফকে তলব করা হয়েছিল ১০ই জুলাই।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

বাবুল চৌধুরী এইচ এম

২০২০-০৭-১৩ ০৭:৫৯:১১

প্রবলভাবে রাষ্ট্রীয় প্রাতিষ্ঠানিক বিরোধীতা করা বা যেকোনো বিষয়ে নৈতিবাচক বক্তব্য রাখা একশ্রেনীর বাঙ্গালীর অভ্যাসে পরিনত হয়েছে, অতি আবেগপ্রবণ হয়ে স্থান কাল পাত্র ভুলে এইসব বক্তব্য বা মন্তব্যের ফলে বিদেশে অন্যান্য প্রবাশীদের জন্য ও প্রবাসী জীবন এক কঠিন অবস্থায় পর্যবসিত হয়েছে, নিয়োগদাতা দেশের সরকার বা নিয়োগকর্তার বিরুদ্ধে যদি কোন অভিযোগ থাকে তাহলে সেখানকার কোন শ্রমিক অথবা মানবিক সংস্থার দৃষ্টিগোচর করা যেতে পারে যা অধিকাংশ ফলপ্রসূ হয় কিন্তু অন্যদেশের আভ্যন্তরীণ ব্যাপারে অযাচিত বক্তব্যের মাধ্যমে কোন সমাধান হতে পারেনা। তাই প্রবাসীদের এব্যাপারে ভবিষ্যতে আরও সতর্ক হতে হবে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক

২০২০-০৭-১২ ২০:৩১:২৯

মালয়েশিয়ার পুলিশ তাকে নির্যাতন করতে পারে।

এ কে এম মহীউদ্দীন

২০২০-০৭-১২ ১৭:৫৭:৩২

অনেক কারনে মালয়েশিয়াকে আমি পছন্দ করি। কিন্তু মালয়েশিয়ার এই সিদ্ধান্তটা অত্যন্ত দুঃখজনক।

এ কে এম মহীউদ্দীন

২০২০-০৭-১২ ১৭:৫৭:১২

অনেক কারনে মালয়েশিয়াকে আমি পছন্দ করি। কিন্তু মালয়েশিয়ার এই সিদ্ধান্তটা অত্যন্ত দুঃখজনক।

তপু

২০২০-০৭-১২ ০৪:৪৮:৪৪

বাংলাদেশ দূতাবাস নিজ উদ্যোগে তাকে দেশে আনতে পারে।মালয়েশিয়ার পুলিশ তাকে নির্যাতন করতে পারে।

আপনার মতামত দিন

বিশ্বজমিন অন্যান্য খবর



বিশ্বজমিন সর্বাধিক পঠিত