ফেনীতে বাঁধ ভেঙ্গে ১৫ গ্রাম প্লাবিত

ফেনী প্রতিনিধি

বাংলারজমিন ১৩ জুলাই ২০২০, সোমবার | সর্বশেষ আপডেট: ৮:১৭

ফেনীতে ভারি বর্ষন ও ভারত থেকে আসা উজানের পানির ঢলে ফেনীর মুহুরী (মুহুরী-কহুয়া-সিলোনীয়া) নদীর বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধের ৯ স্থানে ভেঙে ফুলগাজী ও পরশুরাম উপজেলার ১৫টি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। ফেনী-পরশুরাম আঞ্চলিক সড়ক পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। পানিতে তলিয়ে গেছে দুই উপজেলার বিস্তীর্ণ এলাকার ফসলি জমি ও রাস্তাঘাট। ভেসে গেছে কয়েক শতাধিক পুকুরে মাছ। পানিবন্দি হয়ে পড়েছে ১৫টি গ্রামের হাজারো মানুষ।

ফেনী পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী জহির উদ্দিন জানান, সোমবার সকাল ৬টায় মুহুরী নদীর পানি বিপদসীমার ১ মিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এর আগে রোববার রাতে নদীর পানি বিপদ সীমার ১.৩২ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হয়েছিলো। প্রবল পানির তোড়ে মুহুরী নদীর ফুলগাজী ও পরশুরাম অংশে অন্তত ৬টি স্থানে ভেঙ্গে যায়। এতে দুই উপজেলার বেশ কয়েকটি গ্রামের নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়।


ফুলগাজী সদর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম জানান, রোববার রাতে দিকে মুহুরী নদীর বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধের ফুলগাজীর উত্তর দৌলতপুরের ৩টি স্থানে ও কিসমত ঘনিয়া মোড়া গ্রামে ২টি স্থানে ভেঙ্গে যায়। এতে উত্তর দৌলতপুর, বৈরাগপুর, সাহাপাড়া, উত্তর বরইয়া, ঘনিয়া মোড়া, কিসমত ঘনিয়া মোড়া, পূর্ব ঘনিয়া মোড়াসহ অন্তত সাতটি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। অপরদিকে ফুলগাজী বাজারের পশ্চিম অংশে শ্রীপুর এলাকায় বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধের উপর দিয়ে পানি প্রবাহিত হয়ে ফুলগাজী উপজেলা সদরের প্রধান সড়কও তলিয়ে গেছে। এতে ওইসব এলাকার পাঁচশতাধিক পরিবার পানিবন্দি হয়ে পড়েছে।

পরশুরামের চিথলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. জসিম উদ্দিন জানান, মুহুরী নদীর চিথলিয়া অংশে বন্যা নিয়ন্ত্রন বাঁধের ৪টি স্থানে ভেঙ্গে ছয়টি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। রোববার রাতে দূর্গাপুরের কালাম মেম্বারের বাড়ির পাশে ও দক্ষিণ শালধর সাবেক চেয়ারম্যানের জহিরের বাড়ির পাশে বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধের দুইটি অংশ ভেঙ্গে দক্ষিণ শালধর, মালিপাথর, পাগলীরকুল, দুর্গাপুর, রতনপুর, রামপুর গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। পানিতে উত্তর ধনীকুন্ডা, মধ্যম ধনীকুন্ডা, উত্তর শালধর, রাজষপুর, নোয়াপুরসহ আরো বেশ কয়েকটি গ্রাম প্লাবিত হতে পারে বলেও জানান।

ফুলগাজী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম জানান, সোমবার সকালে ফেনী জেলা প্রশাসক মো. ওয়াহিদুজ্জামান বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ এলাকা পরিদর্শন করবেন। এসময় তিনি পানিবন্দি তিন শতাধিক মানুষের মাঝে শুকনা খাবার বিতরণ করবেন।

পরশুরাম উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইয়াসমিন আক্তার জানান, মুহুরী নদীর বাঁধের ভাঙ্গনকবলিত অংশগুলো মেরামতে পানি উন্নয়ন বোর্ডকে তাগাদা দেওয়া হয়েছে।

ফেনী পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী জহির উদ্দিন জানান, মুহুরী নদীর বাঁধের ভেঙ্গে যাওয়া অংশে পানি কিছুটা কমলে বাঁধ মেরামতে কাজ করা হবে। এছাড়া নতুন করে বাঁধের কোন অংশে যেন ভাঙ্গন না ধরে সে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

আপনার মতামত দিন

বাংলারজমিন অন্যান্য খবর

ফুফুর বাড়িতে মাংস দিতে গিয়ে লাশ হয়ে ফিরলো হাফেজ ফাহিম

১ আগস্ট ২০২০

ফুফুর বাড়িতে মাংস দিতে গিয়ে দুই ভাইয়ের একজন লাশ হয়ে বাড়িতে ফিরেছে । আরেক ভাইয়ের ...

নবীগঞ্জে পানিতে ডুবে দুই কিশোরীর মৃত্যু

১ আগস্ট ২০২০

নবীগঞ্জে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করতে গিয়ে হাওরের পানিতে ডুবে দুই কিশোরীর মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। উপজেলার ...

বাসাইলে বিদ্যুতস্পৃষ্টে নৌকাডুবি, পাঁচজনের মৃত্যু

৩১ জুলাই ২০২০

টাঙ্গাইলের বাসাইলে বিদ্যুতস্পৃষ্টে নৌকা ডুবে মা-ছেলে সহ পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে।  শুক্রবার (৩১জুলাই) বিকেল সাড়ে চারটায় ...

সাটুরিয়ায় ৫ কোটি টাকার মাছ বন্যার পানিতে ভেসে গেছে

৩১ জুলাই ২০২০

সাটুরিয়া উপজেলার বালিয়াটি জমিদার বাড়ির চারপাশের শতাধিক পুকুরের মাছ ভেসে গেছে। এতে ক্ষতিগ্রস্ত অর্ধশতাধিক মৎস্যচাষি ...

ঘুমধুমে বন্দুকযুদ্ধে রোহিঙ্গা মাদক ব্যবসায়ী নিহত

৩১ জুলাই ২০২০

বান্দরবান পার্বত্য জেলার নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার দুর্গম ঘুমধুম সীমান্তে পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে রোহিঙ্গা শাহ আলম (৪০) ...

ফুলবাড়ীতে মানবপাচার প্রতিরোধে মানববন্ধন

৩১ জুলাই ২০২০

‘প্র্রতিশ্রুতিবদ্ধ হয়ে ফ্রন্টলাইনে কাজ করি-মানবপাচার নির্মূল করি’- এই স্ল্লোগানকে ধারণ করে কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ীতে উপজেলা প্রশাসনের ...



বাংলারজমিন সর্বাধিক পঠিত