এবার অর্ধেকে নেমে এসেছে কাজ ও বিক্রি

চিরিরবন্দর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি

বাংলারজমিন ৩১ জুলাই ২০২০, শুক্রবার

আসন্ন ঈদুল আজহাকে সামনে রেখে কামারপল্লীতে দিন দিন বাড়ছে ব্যস্ততা। গতবারের তুলনায় এবার অর্ধেকে নেমে এসেছে কাজ ও বিক্রি। ঈদুল আজহা এলেই কোরবানির পশুর মাংস কাটার সরঞ্জাম তৈরির কাজে ব্যস্ত সময় পার করে এবং বাড়তি আয় হয় কামার শিল্পীদের। গতবারের চেয়ে এবার বিক্রি তুলনামূলক কম। সংসার চালানোই দায় হয়ে দাঁড়িয়েছে কামার শিল্পীদের। অনেক কামার তাদের পেশা বদলানোর চেষ্টা করছেন বা করেছেন। কারণ হিসেবে করোনা দুর্যোগকে দায়ী করছেন তারা। ভাতির ফাসফুস আর হাতুড়ি পেটার টুং টাং শব্দে মুখর এখন কামারশালাগুলো।
হাঁপরে আগুনের শিখা আর  হাতুড়ির টুং টাং শব্দে মুখরিত হয়ে তৈরি হচ্ছে দা, বঁটি, ছুরি ও চাপাতি। কামাররা লোহা পুড়িয়ে লাল করে হাতুড়ি দ্বারা পিটিয়ে ছুরি, দা, বঁটি ও চাপাতি তৈরি করে বিভিন্ন হাটবাজারে বিক্রি করে থাকে। গ্রাম থেকে শহর, সবখানেই কামারদের এই ব্যস্ততা লক্ষণীয়। স্থায়ী কামারের দোকানের পাশাপাশি ঈদকে সামনে রেখে বিভিন্ন হাটবাজারে বসেছে অস্থায়ী কামারের দোকানও।
সরজমিন কামারপল্লী ঘুরে দেখা গেছে, ঈদুল আজহা আসন্ন হওয়ায় ব্যস্ত সময় পার করছেন কামাররা। কেউ দা, ছুরি, বঁটিসহ মাংস কাটার জন্য নানা ধরনের সরঞ্জাম তৈরিতে ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন। আবার কেউ সেগুলোকে ধারালো করছেন। আবার কেউ কেউ তা ধুয়ে মুছে বিক্রির জন্য আকর্ষণীয় করছেন। এ অবস্থার মধ্যে সাধারণ মানুষও আসছেন পুরনো সরঞ্জাম চকচকে কিংবা ধারালো করতে। এদের মধ্যে আবার কেউ নতুন করেই তৈরি করে নিচ্ছেন দা, ছুরি ও বঁটি। যার ফলে রাত-বিরাত বেড়েই চলছে কামারদের ব্যস্ততা। রাণীরবন্দরে কামারপল্লীতে আসা ক্রেতা ওবায়দুর রহমান, আনিছুর রহমান, নুরুল আলম বলেন, প্রতি বছরই কোরবানি দিচ্ছি। আগের প্রয়োজনীয় জিনিসগুলো শান দিতে এসেছি। অন্য সময়ের থেকে বর্তমানে কামাররা দাম একটু বেশি নিচ্ছেন। তবুও আমরা মেনে নিচ্ছি। চিরিরবন্দর উপজেলার রাণীরবন্দরে কামারপল্লীর আশিষ চন্দ্র রায়, রবীন্দ্র চন্দ্র রায় বলেন, বংশপরম্পরায় আমরা কামার পেশার সঙ্গে জড়িত। বছরের বেশির ভাগ সময়ই আমাদের অলস সময় কাটাতে হয়। পুরো বছরের মধ্যে কেবল কোরবানি ঈদেই একটু ভালো কাজ হয়। গত বছর কোরবানির পশু কাটতে ছোট বড় চাকু, ছোরা ও চাপাতির দাম বেশি ছিল। তবে এ বছর প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের কারণে এখনো তেমন কাজ হচ্ছে না। যা হয় তাতে পুষিয়ে ওঠা যায় না। নতুন জিনিস খুব কম লোকই কিনছেন। সবাই পুরাতন দা, ছুরি ও বঁটি শান দিয়ে নিচ্ছেন। তারা আরো জানান, এবার কাজের অর্ডার খুব কম। প্রতিদিন সকাল হতে রাত অবধি সরঞ্জাম তৈরির কাজ করছি। কিন্তু ক্রেতা না থাকায় সেগুলো অবিক্রীত থাকছে। একই কথা বলেন অন্যরাও। তাদের দাবি, কামারপল্লীতে ব্যস্ততা বাড়লেও করোনা দুর্যোগে কমেছে সরঞ্জাম বেচাকেনা। এ কারণে হাসি নেই কামারদের মুখে।

আপনার মতামত দিন

বাংলারজমিন অন্যান্য খবর

নারায়ণগঞ্জে করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে ১৩০

১৪ আগস্ট ২০২০

মরণঘাতি করোনাভাইরাসে নারায়ণগঞ্জে গত ২৪ ঘন্টায় আরও ২জন আক্রান্ত হয়েছে। নিহত দুইজন সিটি করপোরেশন এলাকার। ...

খুনের পর রাতে কাপড় পাল্টে ফার্মেসিতে দায়িত্বও পালন করেছিল শুভ

১৪ আগস্ট ২০২০

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে প্রেমিকার সঙ্গে হঠাৎ টানাপড়েনের কারণেই সাইফুল ইসলামকে হত্যার পরিকল্পনা করে তার বন্ধু শুভ। ...

আড়াইহাজারে বিকাশ এজেন্ট নিখোঁজ

১৪ আগস্ট ২০২০

আড়াইহাজারে নাজমুল (২৫) নামে এক বিকাশ এজেন্ট নিখোঁজ হয়েছেন। তিনি উপজেলার ছোট কাদিরদিয়া এলাকার বাশারের ...

ধামরাইয়ে স্কুলছাত্রকে হত্যার পানিতে ফেলে দেয়ার অভিযোগ দুই বন্ধু গ্রেপ্তার

১৪ আগস্ট ২০২০

ঢাকার ধামরাইয়ে লিখন হোসেন (১৫) নামে এক স্কুলছাত্রকে হত্যার পর পানিতে ফেলে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। ...

তাড়াশে পরিত্যক্ত বাসা থেকে মরদেহ উদ্ধার

১৪ আগস্ট ২০২০

সিরাজগঞ্জের তাড়াশে মৃত দেহ উদ্ধার করা হয়েছে। শুক্রবার সকালে উপজেলার দেশীগ্রাম ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ডের ...

চাঁদপুর-ঢাকা নৌপথে যাত্রী সংকটে ৫টি লঞ্চ বন্ধ

১৪ আগস্ট ২০২০

বৈশ্বিক করোনায় চাঁদপুর-ঢাকা নৌপথে যাত্রী সংকটে ৫টি লঞ্চের চলাচল বন্ধ রয়েছে। ধারণক্ষমতার চারভাগের একভাগ যাত্রীও ...

কোটচাঁদপুরে নিখোঁজ দুই ছাত্রের মরদেহ উদ্ধার

১৪ আগস্ট ২০২০

ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুরে পানিতে ডুবে নিখোঁজের ১৪ ঘণ্টা পর পুকুর থেকে জাকারিয়া হোসেন চঞ্চল (১০) ও ...

সরাইলে কিশোরের রহস্যজনক মৃত্যু

১৪ আগস্ট ২০২০

সরাইলে মো. সোহেল মিয়া (১৪) নামের এক কিশোরের রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। সোহেল পেশায় একজন অটোরিকশা ...

সৈয়দ আশরাফের সমাধিতে অশ্রুসজল ছোটবোন লিপি

১৪ আগস্ট ২০২০

রাজনীতিতে সততা আর শিষ্টতার অনিবার্য আইকন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও প্রেসিডিয়াম সদস্য, ...



বাংলারজমিন সর্বাধিক পঠিত



মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্র থেকে বিতাড়িত হয়ে

রাস্তায় সন্তান প্রসব