পরীক্ষা বাড়লেই শনাক্ত বাড়ে

স্টাফ রিপোর্টার

প্রথম পাতা ১১ আগস্ট ২০২০, মঙ্গলবার | সর্বশেষ আপডেট: ২:৪৩

দেশে করোনা শনাক্তের হার কমছে না। পরীক্ষা বাড়লেই রোগীর সংখ্যা বেড়ে যায়। মৃত্যুর সংখ্যাও দীর্ঘ হচ্ছে। শনাক্তের হার ২২ থেকে ৩২ শতাংশের মধ্যেই ওঠানামা করছে। অর্থাৎ প্রতি চারজন বা তিনজনে একজন করোনা রোগী শনাক্ত হচ্ছেন প্রতিদিন। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আরো ৩৯ জন মারা গেছেন। এ নিয়ে মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়ালো ৩ হাজার ৪৩৮ জন। নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন আরো ২ হাজার ৯০৭ জন।
এ পর্যন্ত দেশে মোট শনাক্ত হলেন ২ লাখ ৬০ হাজার ৫০৭ জন। ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ২ হাজার ৬৭ জন এবং এখন পর্যন্ত ১ লাখ ৫০ হাজার ৪৩৭ জন সুস্থ হয়েছেন। একদিনে করোনা সংক্রান্ত  ফোন কল এসেছে ৬৩ হাজার ৮৫টি এবং এ পর্যন্ত মোট কল এসেছে ১ কোটি ৮৫ লাখ ৮৭ হাজার ৭২৮টি। গতকাল করোনা নিয়ে নিয়মিত অনলাইন ব্রিফিংয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা এসব তথ্য জানান।
তিনি আরো জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ১২ হাজার ৮৫৫টি। পরীক্ষা করা হয়েছে ১২ হাজার ৮৪৯টি। এখন পর্যন্ত ১২ লাখ ৭৩ হাজার ১৬৮টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। নমুনা পরীক্ষার মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত হয়েছেন ২ হাজার ৯০৭ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ২২ দশমিক ৬২ শতাংশ। ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৫৭ দশমিক ৭৫ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৩২ শতাংশ। মৃত্যুবরণকারীদের মধ্যে ৩৫ জন পুরুষ এবং ৪ জন নারী। এ পর্যন্ত পুরুষ মৃত্যুবরণ করেছেন ২ হাজার ৭২১ জন এবং নারী ৭১৭ জন। ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেছেন ৩১ জন এবং বাসায় ৮ জন। ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যুবরণকারীদের বয়স বিশ্লেষণে দেখা যায়, ৮১ থেকে ৯০ বছরের মধ্যে ৪ জন, ৭১ থেকে ৮০ বছরের মধ্যে ৬ জন, ৬১ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে ১৩ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ১০ জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে ৩ জন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে একজন, ২১ থেকে ৩০ বছর একজন এবং শূন্য থেকে ১০ বছরের মধ্যে একজন রয়েছেন।
একদিনে ঢাকা বিভাগে ১২ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ৭ জন, খুলনা বিভাগে ৬ জন, রাজশাহী বিভাগে ৮ জন, ময়মনসিংহ বিভাগে ৩ জন, রংপুর বিভাগে একজন এবং বরিশাল বিভাগে ২ জন রয়েছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে রাখা হয়েছে ৮১৫ জনকে। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ১৮ হাজার ৯৮১ জন। ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশন থেকে ছাড়া পেয়েছেন ৭৭৪ জন, এখন পর্যন্ত ছাড়া পেয়েছেন ৩৮ হাজার ৫০১ জন। এখন পর্যন্ত আইসোলেশন করা হয়েছে ৫৭ হাজার ৪৮২ জনকে। প্রাতিষ্ঠানিক ও হোম কোয়ারেন্টিন মিলে ২৪ ঘণ্টায় কোয়ারেন্টিন করা হয়েছে ২ হাজার ৩৪৬ জনকে। কোয়ারেন্টিন থেকে গত ২৪ ঘণ্টায় ছাড়া পেয়েছেন ২ হাজার ৬০৪ জন, এখন পর্যন্ত ছাড়া পেয়েছেন ৪ লাখ ২ হাজার ২৪২ জন। এখন পর্যন্ত কোয়ারেন্টিন করা হয়েছে ৪ লাখ ৫৪ হাজার ৭২৪ জনকে।  এখন কোয়ারেন্টিনে আছেন ৫২ হাজার ৪৮২ জন।

আপনার মতামত দিন

প্রথম পাতা অন্যান্য খবর

মাদ্রাসা বন্ধ ঘোষণা, শিক্ষার্থীদের প্রত্যাখ্যান

অশান্ত হাটহাজারী ক্ষোভ, বিক্ষোভ

১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০

কোন পথে হেফাজত

১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০

ঘোষণা ছাড়া পিয়াজ রপ্তানি বন্ধ

ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় অনুতপ্ত

১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০

বাজারে হেরফের নেই

১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০

পশ্চিমবঙ্গেও ক্ষোভ

১৭ সেপ্টেম্বর ২০২০

পেট্রাপোল সীমান্ত কিংবা উত্তর চব্বিশ পরগনার  ঘোজাডাঙ্গা ল্যান্ডপোর্টে এখন সারি সারি ট্রাক দাঁড়িয়ে আছে টন ...

বাজারে ক্রেতা কম, দাম কমেনি

১৭ সেপ্টেম্বর ২০২০

করোনায় আরো ২১ জনের মৃত্যু শনাক্ত ১৬১৫

১৭ সেপ্টেম্বর ২০২০

দেশে করোনার কারণে প্রতিদিনই মৃত্যুর মিছিল লম্বা হচ্ছে। বাড়ছে মৃত্যুর হার। গত তিনদিন মৃত্যুর সংখ্যাটা ...



প্রথম পাতা সর্বাধিক পঠিত