মুসলিমরা ডোনাট খায় না গুজবের নেপথ্যে

রকমারি

| ৮ জুলাই ২০১৭, শনিবার | সর্বশেষ আপডেট: ৩:০৫
সোশ্যাল মিডিয়ায় আবারও এই বলে মিথ্যে গুজব ছড়ানো হচ্ছে যে মুসলিমরা 'ডোনাট' খায় না। আর এই গুজব ছড়াচ্ছে মুসলিমরাই। কেন তারা এই কাজ করছেন?
মূলত ইসলামবিদ্বেষী ব্যঙ্গ-বিদ্রুপের জবাব দিতে তারা এই রসিকতা বেছে নিয়েছেন।
২০১৪ সালে প্রথম সোশ্যাল মিডিয়ায় গুজব ছড়ানো হয় যে 'ডোনাট' হালাল নয়, কাজেই এটি মুসলিমদের খাওয়া নিষেধ। টুইটারে গত তিন বছর ধরে এই গুজব ছড়ানো হয়।২০১৬ সালে কিছু মসজিদের বাইরে শুকরের মাংস রেখে যাওয়ার ঘটনার পর একই গুজব ছড়ানো হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়।
একজন তখন টুইটারে মজা করে লেখেন, "ডোনাট হারাম। দয়া করে আমাদের মসজিদের বাইরে গাদা গাদা ডোনাট রেখে যাবেন না, আমরা এটা ঘেন্না করি।"তবে এই রসিকতা বুঝতে না পেরে অনেকেই বিভ্রান্ত হয়েছেন। একজন টুইটারে প্রশ্ন করেন, "ডোনাট হারাম হলো কিভাবে?"
কিন্তু এর পর টুইটারে আরও পোস্ট ছড়িয়ে দেয়া হয় ডোনাট ইসলামে নিষিদ্ধ এমন কথা বলে।এবছর ডোনাট নিয়ে এই গুজব আবার নতুন করে ছড়াতে থাকে সাংবাদিক মেহেদী হাসান এটি টুইট করার পর।
তিনি লিখেন, "আমার অনেকদিনের বিশ্বাস, আমরা যদি 'ডোনাট হারাম' এমন গুজব ছড়িয়ে দিতে পারি তাহলে আমাদের লোকে এখন থেকে ডোনাট দিয়ে আক্রমণ করবে।"
আরেকজন এর উত্তরে মজা করে অনলাইনে লেখেন, "আমি স্টারবাকস, টাকিস, পিজ্জা, কুকি, আইফোন, প্লেস্টেশন ফোর সবকিছু ঘৃণা করি। দয়া করে আমাকে এসব দিয়ে অপমান করার চেষ্টা করো।"

সুত্রঃ বিবিসি বাংলা
এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ায় 'সুপার ম্যালেরিয়া', বিশ্বজুড়ে হুমকি

টয়লেট থেকে যুবকের অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার

চট্টগ্রামে কমছে চালের দাম, ফুঁসছেন ব্যবসায়ীরা

৪’শ বোতল ফেনসিডিলসহ আটক ৩

যাত্রাবাড়িতে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১

ইন্টারপোলের সম্মেলনে যোগ দিতে চীনে গেলেন আইজিপি

ঢাবি অধিভুক্ত ৭ টি কলেজের মাস্টার্স পরীক্ষা স্থগিত

‘মিয়ানমারের কোন উসকানিতে বাংলাদেশ সাড়া দেবে না’

সার্ক সম্মেলন নিয়ে এবারও অনিশ্চয়তা!

মিয়ানমারের দুই সাংবাদিক জামিনে মুক্ত

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে বসছে টেলিটকের বুথ, সিম বিক্রি নয়

আন্তর্জাতিকভাবে নিষিদ্ধ অস্ত্র ব্যবহার করছে মিয়ানমার

বিদ্যালয়ে ছাদের পলেস্তারা খসে ১০ ছাত্রী আহত

ব্যালাস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের ‘সফল’ পরীক্ষা চালালো ইরান

ফুলবাড়ীয়ায় স্যুটকেস থেকে অজ্ঞাত ব্যক্তির লাশ উদ্ধার

নতুনদেরকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছেন নিউরো সার্জন বিশেষজ্ঞরা