এক আজব ঘোষণা, খেতে হবে পোকামাকড়!

রকমারি

| ২১ আগস্ট ২০১৭, সোমবার | সর্বশেষ আপডেট: ১২:৪১
সুইজারল্যান্ডের সুপারমার্কেট চেইন কুপ এক আজব ঘোষণা দিয়েছে৷ এ মাসের শেষ থেকে সুপারমার্কেটটির বেশকিছু শাখায় পাওয়া যাবে নানা রকম পোকামাকড় দিয়ে তৈরি ফাস্ট ফুড৷ মজার ব্যাপার হলো, খাদ্য নিরাপত্তা সংস্থাগুলো একে সমর্থনও দিচ্ছে৷
সুইজারল্যান্ডের দ্বিতীয় বৃহত্তম সুপারমার্কেট চেইন ‘কুপ'৷ আগস্টের শেষ নাগাদ মুরগি, গরু এবং শূকরের মাংসের পাশাপাশি পোকামাকড় দিয়ে তৈরি ফাস্টফুডও বাজারে ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছে তারা৷

সুইস স্টার্ট আপ কোম্পানি এসেনটোর উৎপাদন করা উচ্চ আমিষযুক্ত শূককীট দিয়ে তৈরি হবে এই খাবারগুলো৷ তবে আপাতত সারা দেশে নয়, শুধু জেনেভা, বার্ন ও জুরিখের বাছাই করা কিছু দোকানে পাওয়া যাবে এই খাবার৷

মে মাসে পোকামাকড় দিয়ে খাবার তৈরির বিধান রেখে পরিবর্তন হয় দেশটির খাদ্য নিরাপত্তা আইন৷ এরপরই এলো এমন ঘোষণা৷

ভাবছেন একটা পোকা ধরে তেলে ভেজে ফেললেই হলো? বিষয়টা মোটেও এতোটা সহজ না৷ সুইস নিরাপত্তা আইন অনুসারে মানুষের খাওয়ার উপযুক্ত করার জন্য কঠোর তত্ত্বাবধানের মধ্যে অন্তত চার প্রজন্ম ধরে বংশবিস্তার করাতে হয় এই পোকাগুলোকে৷

এসেনটোর সহপ্রতিষ্ঠাতা ক্রিস্টিয়ান ব্যার্টশ বলছেন, শূককীটের সাথে ভাত, গাজর, শাক, পেঁয়াজ এবং সামান্য মরিচ মেশালে যা হয়, তা সত্যিকার অর্থেই অসাধারণ এক অভিজ্ঞতা৷
‘ন্যূনতম পরিবেশ ঝুঁকি'

গত এক দশক ধরেই খাদ্য নিরাপত্তা কর্তৃপক্ষ পোকা-ভিত্তিক খাবারের উপকারি দিকগুলো বিষয়ে মানুষকে সচেতন করতে কাজ করে গেছেন৷

২০১৩ সালে জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি বিষয়ক সংস্থা এফএও-র এক গবেষণায় বলা হয়েছে, ‘‘পোকামাকড় পরিবেশের খুব কম ক্ষতি করে আমাদের খাবার জোগাতে পারে৷ জীবনযাত্রা ও প্রকৃতির উন্নয়নেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে৷ কিন্তু সাধারণ মানুষ এই দিকগুলো সম্পর্কে ভালোভাবে জানে না৷''

গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০৫০ সালের মধ্যে বিশ্বের জনসংখ্যা ৯০০ কোটিতে পৌঁছুবে৷ খাদ্যের চাহিদার সাথে তাল মেলাতে হলে উৎপাদনও এখনকার চেয়ে প্রায় দ্বিগুণ হতে হবে৷ গবেষকরা বলছেন, এই বাড়তি চাহিদা মেটাতে বিকল্প খাদ্যব্যবস্থা হতে পারে নানা ধরনের পোকামাকড়৷

প্রাথমিকভাবে আগস্টের ২১ তারিখে ক্রেতাদের জন্য এই ধরনের খাবার উন্মুক্ত করে দেবে কুপ৷ তারপর অপেক্ষা, কেমন সাড়া মেলে তা দেখার৷

সুত্র- ডয়চে ভ্যালে

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

ছাত্রদল সাধারণ সম্পাদক আকরাম ৮ দিনের রিমান্ডে

টসে জিতে ফিল্ডিংয়ে রংপুর

বাড়ি ফিরেছেন নিখোঁজ ব্যবসায়ী অনিরুদ্ধ রায়

শিক্ষার্থীদের মাথা ন্যাড়ার শর্তে এসএসসি’র ফরম পূরণ!

রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে দ্রুত চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হবে

একটি অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন গুরুত্বপূর্ণ

শিক্ষিকা-ছাত্রের যৌন সম্পর্ক, অতঃপর...

রাবি অপহৃত ছাত্রী ঢাকায় উদ্ধার

‘সমাবেশে জোর করে লোক আনা হয়েছে’

সমাবেশ মঞ্চে শেখ হাসিনা

যুদ্ধাপরাধের ২৯তম রায়ের আপেক্ষা

সিরিয়া ইস্যুতে আবারো রাশিয়ার ভেটো

হারিরির সৌদি আরব ত্যাগ

ইরাক ও ইসরায়েল সুন্দরী একসঙ্গে সেলফি তুলে বিপাকে

‘বিএনপিকে দূরে রেখে নির্বাচনের ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে’

‘আপনারা এটাকে পাল্টাপাল্টি ভাববেন কেন?’