ভারতে ২০ জনের অধিক ব্যক্তি মিলে এক মেয়েকে ধর্ষণ

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৭, সোমবার
ভারতে এক বিশ্ববিদ্যালয় প্রাঙ্গণের পাশে ২০ জনের বেশি ব্যক্তি মিলে ধর্ষণ করেছে এক মেয়েকে। ঝাড়খণ্ড রাজ্যের এক বিশ্ববিদ্যালয় প্রাঙ্গণের পাশে এই নৃশংস ঘটনা ঘটে। সন্দেহভাজন ধর্ষণকারীদের বয়স ১৮ থেকে ২২ বছরের মধ্যে। এখন পর্যন্ত ১৬ ধর্ষণকারীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বাকিদের খোঁজে তদন্ত অব্যাহত রয়েছে। এ খবর দিয়েছে দ্য ইন্ডিপেনডেন্ট। পুলিশের বরাতে দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের এক খবরে বলা হয়, গ্রেপ্তারকৃতদের মধ্যে ৭ জন সরাসরি ধর্ষণের সঙ্গে জড়িত ছিল। বাকিরা সহায়তা প্রদান করেছে। ইন্ডিপেনডেন্টের খবরে বলা হয়, ধর্ষণের শিকার হওয়া ওই মেয়ে তার প্রেমিকের সঙ্গে মোটরসাইকেলে চড়ে বাড়িতে ফিরছিলেন। তবে পথিমধ্যে একটি জনশূন্য জায়গায় তাদের পথ আটকে দাঁড়ায় ৬ ছেলে। ওই মেয়ের সঙ্গে সমপর্কে জড়ানোর দায়ে প্রেমিকের ওপর হামলা চালায় তারা। কারণ এই মেয়েটি উপজাতি সমপ্রদায়ের। হামলাকারীরা মারধর করে ওই ছেলের কাছ থেকে তার মোবাইলফোন ও ৫ হাজার রুপি নিয়ে যায়। এরপর হামলাকারীরা আরো কয়েকজন বন্ধুকে ডেকে এনে ওই প্রেমিক-প্রেমিকাকে ছুরি দিয়ে আঘাত করার ভয় দেখিয়ে কাপড় খুলতে বলে। তারা প্রেমিককে জোর করে তার প্রেমিকাকে বারংবার ধর্ষণ করতে বাধ্য করে। আর একসময় নিজেরাও সেই কু-কর্মে মেতে ওঠে।
পরে ঘটনার প্রমাণ মুছে ফেলতে তারা ধর্ষিতাকে পার্শ্ববর্তী একটি পুকুরে গোসল করায়। সংশ্লিষ্ট এলাকার পুলিশ সুপার জানিয়েছেন, আমরা ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্ত ১৬ জনকে আটক করেছি। তাদের ব্যবহৃত মোবাইলফোন উদ্ধার করা হয়েছে। আটককারীরা ধর্ষণে তাদের সম্পৃক্ততার কথা স্বীকার করেছে।

 
এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন