মেডিকেলে ভর্তি ৫ নম্বর কাটার সিদ্ধান্ত স্থগিত

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার | ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৭, বুধবার
২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষে এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষায় দ্বিতীয়বার অংশগ্রহণকারীদের প্রাপ্ত নম্বর থেকে ৫ নম্বর কেটে নেয়ার সিদ্ধান্ত স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট। ফলে চলতি বছরের ভর্তি পরীক্ষায় পরীক্ষার্থীদের ৫ নম্বর কাটা যাবে না বলে জানান আইনজীবীরা। একই সঙ্গে নম্বর কেটে নেয়ার সিদ্ধান্ত কেন অবৈধ ও বেআইনি ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন আদালত। আগামী চার সপ্তাহের মধ্যে স্বাস্থ্য সচিব, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক, পরিচালক, মেডিকেল অ্যান্ড ডেন্টাল কাউন্সিলের চেয়ারম্যান ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসিকে ওই রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে। এ সংক্রান্ত রিটের শুনানি শেষে হাইকোর্টের বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. জাহাঙ্গীর হোসেনের সমন্বয়ে গঠিত অবকাশকালীন বেঞ্চ রুলসহ এই আদেশ দেন। আদালতে রিট আবেদনের পক্ষে অ্যাডভোকেট ইউনুছ আলী আকন্দ নিজেই শুনানি করেন।
অপরদিকে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। তার সঙ্গে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল শশাঙ্ক শেখর সরকার। দ্বিতীয়বার এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারীদের প্রাপ্ত নম্বর থেকে মেধা তালিকা তৈরির সময় ৫ নম্বর কেটে নেয়ার সিদ্ধান্তকে বেআইনি ঘোষণার নির্দেশনা চেয়ে গত ২৭শে আগস্ট হাইকোর্টে রিটটি করেছিলেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ইউনুছ আলী আকন্দ। রিট আবেদনে বলা হয়েছিল, দ্বিতীয়বার ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারীদের ৫ নম্বর কর্তন করার সিদ্ধান্ত মৌলিক অধিকারের পরিপন্থি। গত ২১শে আগস্টের পত্রিকায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ওই বিজ্ঞপ্তির ৬ নম্বর কলামে বলা হয়, ২০১৭-২০১৮ শিক্ষাবর্ষে এমবিবিএস/বিডিএস ভর্তি পরীক্ষায় পূর্ববর্তী বছরের এইচএসসি উত্তীর্ণদের পরীক্ষার্থীদের সর্বমোট নম্বর থেকে ৫ নম্বর কর্তন করে মেধা তালিকা তৈরি করা হবে। অধিদপ্তরের এ সিদ্ধান্তের সমালোচনাও করেন আদালত। আদালত বলেন, হঠাৎ করে এমন একটি সিদ্ধান্ত নেয়া উচিত হয়নি। সিদ্ধান্ত এক বছর আগে নেয়া উচিত ছিল। নীতিমালা করে কারো সুযোগ সৃষ্টি করে দেয়া হয়, আবার কাউকে কাউকে বাদ দেয়ার জন্য নীতিমালা করা হয়।
উল্লেখ্য, আগামী ৬ই অক্টোবর মেডিকেলের ও ১০ই নভেম্বর ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে প্রকাশিত বার্ষিক হেলথ বুলেটিন-২০১৬ অনুসারে বর্তমানে দেশে মোট মেডিকেল কলেজের সংখ্যা ১০৪টি। এর মধ্যে সরকারিভাবে ৩৬টি (৩০টি স্বাস্থ্য অধিদপ্তর ও ৬টি বাংলাদেশ আর্মড ফোর্সেস দ্বারা পরিচালিত) ও ৬৮টি বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় পরিচালিত হয়। এখানে মোট আসন সংখ্যা ৯ হাজার ৯৫৭ (সরকারি ৩ হাজার ৮১২ ও বেসরকারি ৬ হাজার ১৪৫)। অন্যদিকে সরকারি ৯টি (১টি ডেন্টাল কলেজ ও ৮টি ইউনিট) ও ২৫টি বেসরকারিসহ মোট ডেন্টাল কলেজ/ইউনিটের সংখ্যা ৩৪টি। সরকারি ডেন্টাল কলেজ ও ইউনিটে আসন সংখ্যা যথাক্রমে ৫৩২ ও ১ হাজার ৩৮৫।


 

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

জঙ্গি হামলায় আরেক অর্থ সরবরাহকারী গ্রেপ্তার

কুমিল্লার টার্গেট ১২৯

সৌদি আরবে ২৪ হাজার অবৈধ অভিবাসী গ্রেপ্তার

আওয়ামী লীগের আমলেই সংখ্যালঘুরা নিরাপত্তাহীনতায় থাকে : ফখরুল

‘হাসপাতালে বিল পরিশোধে ব্যর্থ হলে মরদেহ আটকে রাখা যাবে না’

৭ই মার্চকে জাতীয় ঐতিহাসিক দিবস ঘোষণা কেন নয় : হাইকোর্ট

রোহিঙ্গা সঙ্কট সমাধানে চীনের তিন দফা প্রস্তাব

সিএনজি অটোরিকশার ৪৮ঘন্টার ধর্মঘট

শাহজালালে ৩ কোটি টাকা মূল্যের স্বর্ণসহ আটক ১

দীপিকার মাথা কাটলে পুরস্কার ১০ কোটি রুপি!

কেন সৌদি আরব ও ইরান পরস্পরের প্রতিপক্ষ?

বন্দুকের নলের মুখেও ক্ষমতা ছাড়তে রাজি নন মুগাবে

‘পুরুষের চেয়ে নারীরা বেশি যৌন নিপীড়ক’

মা ও ছেলেকে কুপিয়ে হত্যা করলো যুবক

কানাডার উন্নয়নমন্ত্রী আসছেন মঙ্গলবার

ব্যক্তির নামে সেনানিবাসের নামকরণ মঙ্গলজনক হবে না: মওদুদ