বাংলার নবজাগরণের প্রত্যাশায়

লাখো দর্শকের প্রশংসায় ইস্পাহানি মির্জাপুর বাংলাবিদ

এক্সক্লুসিভ

| ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭, বৃহস্পতিবার
আমরাই একমাত্র জাতি যারা মাতৃভাষার অধিকারের জন্যে রক্ত দিয়েছি। অথচ প্রমিত বাংলার চর্চা ও ব্যবহারে বাংলা একাডেমি, বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্র এবং হাতেগোনা কিছু সংবাদপত্র ছাড়া সাধারণ মানুষের মাঝে আর কারো ভূমিকা সেভাবে চোখে পড়ে না। মানুষের কাছে শুদ্ধ বাংলা ভাষা চর্চার গুরুত্ব কেবলই যেন ফেব্রুয়ারির মাতৃভাষা দিবস কেন্দ্রিক হয়ে পড়েছে। শতকরা ৯৯ ভাগ মানুষের ব্যবহার্য বাংলা ভাষার দেশেও দিবসগুলো চলে গেলে শুদ্ধ বাংলা চর্চা বিষয়ক আলোচনা বা উদ্যোগ অনেকাংশেই স্তিমিত হয়ে পড়ে। শুধু তাই নয়, বইপুস্তক, প্রচারপত্র, বিলিপত্র, বিজ্ঞাপনের ব্যবহৃত মাধ্যমসমূহ, বাসে-রেলে, দাপ্তরিক কাগজপত্রে প্রচুর বানান ভুল ও ব্যাকরণগত সমস্যা থাকার পরও সেগুলো নিয়ে সাধারণ মানুষের কোনোও মাথাব্যথা নেই। এমন দুরবস্থায় আমাদের নিজেদের সংস্কৃতি টিকিয়ে অস্তিত্ব রাখার স্বার্থে প্রয়োজন বাংলা ভাষার নবজাগরণ।
যা শুধুমাত্র শুদ্ধ বাংলার অব্যাহত চর্চার মাধ্যমেই সম্ভব।

তাইতো এ প্রজন্মের মাঝে বাংলা ভাষা শিক্ষা ও চর্চার প্রতি আগ্রহ তৈরিতে উদ্যোগী হয়েছে ইস্পাহানি গ্রুপ। বাংলা ভাষার বর্তমান দুরবস্থা থেকে উত্তরণের চেষ্টায় ‘বাংলায় জাগো ভরপুর’ স্লোগান নিয়ে শুরু হয়েছে ‘ইস্পাহানি মির্জাপুর বাংলাবিদ’। যার উদ্দেশ্য নতুন প্রজন্মের কাছে শুদ্ধ বাংলা, বানান ও ব্যবহারে উৎসাহিত করা, ভুল ও অপপ্রয়োগের হাত থেকে বাংলাকে রক্ষা করা, সর্বোপরি বাংলা ও বাংলা ভাষার নবজাগরণ। মাতৃভাষার প্রতি অবজ্ঞা, অবহেলা ও অসচেতনতা থেকে জেগে ওঠার ডাক দিচ্ছে ইস্পাহানি।

৭টি বিভাগীয় শহরে বাছাইপর্বের মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছিলো অনুষ্ঠানটির প্রথম ধাপ। দেশের সকল বাংলা, ইংরেজি ও মাদ্রাসা কারিকুলামের ৬ষ্ঠ থেকে ১০ম শ্রেণির (ইংরেজি মাধ্যমের স্ট্যান্ডার্ড সিক্স থেকে ও-লেভেলস) ৩৫ হাজার শিক্ষার্থীদের মধ্য থেকে শীর্ষ ৮০ শিক্ষার্থীকে নিয়ে শুরু হয় প্রতিযোগিতার দ্বিতীয় ধাপ। সাহিত্য ও ব্যাকরণভিত্তিক প্রশ্ন, মজার বাগধারা, ছবির ধাঁধা, বাজানো পর্ব, উপস্থিত বক্তৃতা, সৃজনশীল লেখনী, সমসাময়িক ছবির ভুল সহ বৈচিত্র্যপূর্ণ নানা প্রতিযোগিতা নিয়ে সাজানো স্টুডিও রাউন্ড ইতিমধ্যে শেষ হয়েছে। ১৫ সেপ্টেম্বর চ্যানেল আই-এর পর্দায় প্রচারিত হবে চূড়ান্ত পর্ব। এ বছরের ‘ইস্পাহানি মির্জাপুর বাংলাবিদ’ পুরস্কার হিসেবে পাবে ১০ লক্ষ টাকার মেধাবৃত্তি। ২য় ও ৩য় সেরা পাবে যথাক্রমে ৩ লক্ষ ও ২ লক্ষ টাকার মেধাবৃত্তি। এছাড়া শীর্ষ দশের প্রত্যেকেই পাবে ল্যাপটপ, বইয়ের আলমারি ও বইসহ মোট ৫০ হাজার টাকার মূল্যমানের পুরস্কার সামগ্রী। ইস্পাহানি বিশ্বাস করে ধারাবাহিকভাবে এ আয়োজনের মাধ্যমে ক্রমাগতভাবে বাংলাদেশ হয়ে উঠবে আরও সমৃদ্ধ, এবং মেধা ও মননে ভরপুর এক দেশ।

প্রথমবারের মতো আয়োজিত এবারের ‘ইস্পাহানি মির্জাপুর বাংলাবিদ’ কাক্সিক্ষত দর্শকমহল ও গণমাধ্যমে অভাবনীয় সাড়া পেয়েছে। দেশের সাধারণ মানুষ থেকে বুদ্ধিজীবী, বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী থেকে চাকুরিজীবী সবাই ছিলেন এই আয়োজনের নিয়মিত দর্শক। তরুণদের মাঝে মাতৃভাষা বাংলার উন্নয়ন ও জাগরণে এমন তাৎপর্যপূর্ণ অনুষ্ঠান আয়োজনের জন্যে দর্শক ও গণমাধ্যমকর্মীরা উদ্যোগটিকে সাধুবাদ জানিয়েছেন।

অনুষ্ঠানটি প্রচারিত হবে চ্যানেল আইতে আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর,২০১৭, সন্ধ্যা ৭.৩৫ মিনিটে।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

ছাত্রদল সাধারণ সম্পাদক আকরাম ৮ দিনের রিমান্ডে

টসে জিতে ফিল্ডিংয়ে রংপুর

বাড়ি ফিরেছেন নিখোঁজ ব্যবসায়ী অনিরুদ্ধ রায়

শিক্ষার্থীদের মাথা ন্যাড়ার শর্তে এসএসসি’র ফরম পূরণ!

রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে দ্রুত চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হবে

একটি অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন গুরুত্বপূর্ণ

শিক্ষিকা-ছাত্রের যৌন সম্পর্ক, অতঃপর...

রাবি অপহৃত ছাত্রী ঢাকায় উদ্ধার

‘সমাবেশে জোর করে লোক আনা হয়েছে’

সমাবেশ মঞ্চে শেখ হাসিনা

যুদ্ধাপরাধের ২৯তম রায়ের আপেক্ষা

সিরিয়া ইস্যুতে আবারো রাশিয়ার ভেটো

হারিরির সৌদি আরব ত্যাগ

ইরাক ও ইসরায়েল সুন্দরী একসঙ্গে সেলফি তুলে বিপাকে

‘বিএনপিকে দূরে রেখে নির্বাচনের ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে’

‘আপনারা এটাকে পাল্টাপাল্টি ভাববেন কেন?’