মুন্সীগঞ্জে মাজারে দুই নারী খুন

এক্সক্লুসিভ

স্টাফ রিপোর্টার, মুন্সীগঞ্জ থেকে | ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭, বৃহস্পতিবার
মুন্সীগঞ্জের ভিটিশিলমন্দি এলাকায় বুধবার ভোরে একটি মাজারে এক নারী খাদেমসহ দুই নারীকে গলায় ছুরিকাঘাত করে হত্যা করা হয়েছে। খবর পেয়ে পুলিশ গতকাল বুধবার সকাল সাড়ে ১০ টার দিকে মরদেহ দুইটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে। নিহতরা হলেন, মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া উপজেলার চরঝাপটা গ্রামের আমেনা খাতুন (৬০) ও সদর উপজেলার বকচর গ্রামের তাইজুন নেছা (৫০)। এরমধ্যে আমেনা খাতুন ৩০ বছর ধরে মাজারটির দেখভাল করছেন।
পুলিশ ও নিহতের স্বজনরা জানিয়েছেন, মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার ভিটিশিলমন্দি গ্রামে হযরত শাহ সোলেমান লেংটা বাবার মাজারটি ১৯৯৮ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। মাজারের প্রতিষ্ঠাতা বারেক মারা যাওয়ার পর মাসুদ নামে এক খাদেম মাজারটি পরিচালনা করে আসছেন। এরমধ্যে ৩০ বছর ধরে মাজারের দেখভাল করছেন আমেনা খাতুন।
বুধবার ভোরে আমেনা খাতুন ও তাইজুন নেছাকে গলায় ছুরি দিয়ে আঘাত
করে হত্যা করা হয়। তাইনজুন নেছা খাদেম মাসুদ লেংটার বোন।
মুন্সীগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মোস্তাফিজুর রহমান জানিয়েছেন, মাজারটিতে কিছু সেক্সুয়াল জিনিস পাওয়া গেছে। সেক্সুয়াল বা জমি সংক্রান্ত বিরোধের কারণে এই হত্যার ঘটনা ঘটতে পারে বলে তার ধারণা।
তিনি আরও জানান, মামলার তদন্তের স্বার্থে বিস্তারিত জানানো সম্ভব হচ্ছে না। তবে, হত্যাকারীদের সহসাই গ্রেপ্তার করা হবে।

 

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

‘কোটার কারণে দেশের মেধাবীরা আজ বিপন্ন’

১০০০০০ অবৈধ বাংলাদেশিকে ফেরাতে প্রণোদনা দেবে ইইউ

ট্রাম্প প্রশাসন আটকে গেছে

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে গুলিতে নিহত ১

মেয়র আইভী আশঙ্কামুক্ত

নেপথ্যে কোটি টাকার চাঁদাবাজি

উপযুক্ত সময়ে নির্বাচনকালীন সরকারের রূপরেখা ঘোষণা

সহায়ক সরকারে বিএনপির অংশগ্রহণ থাকবে না

তিনি তখন টেলিফোন অন রাখতেন

টঙ্গীমুখী মানুষের স্রোত

‘চোখের সামনে বাবাকে মরতে দেখেছি বাঁচাতে পারিনি’

ওটা যেন আমার মৃত্যু পরোয়ানা ছিল

ভালো নেই বৃক্ষমানব মুক্তামণির পরিবারও দুশ্চিন্তায়

সিলেট-৩ আসনে মনোনয়ন আদায় করে ছাড়ব

‘সহায়ক সরকারে বিএনপির অংশগ্রহণ থাকবে না’

কারাবন্দি বাবাকে দেখে ফেরার পথে প্রাণ গেল ছেলের