১৩ দিন বাড়ির আঙ্গিনায় পড়ে ছিল প্রবাসীর লাশ

বাংলারজমিন

সরাইল (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি | ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭, বৃহস্পতিবার
সরাইলে মালয়েশিয়া প্রবাসী সেলিম মিয়া (৫০) ওরফে হেলিমের লাশ কফিনে ১৩ দিন পর ময়নাতদন্তের জন্য পুলিশ উদ্ধার করেছে। নিহত সেলিমের বাড়ি উপজেলার পানিশ্বর ইউনিয়নের টিঘর গ্রামে। সেলিম গত ১লা সেপ্টেম্বর একই গ্রামের বাসিন্দা বন্ধু করম আলীর (৪৭) শয়ন কক্ষে মারা যান। তাদের দু’জনের মধ্যে আর্থিক লেনদেন নিয়ে ঝামেলা ছিল। মৃত্যুর ৮ দিন পর ৯ই সেপ্টেম্বর সেলিমের লাশ বাংলাদেশে আসে। পরিবার লাশ পায় ১০ই সেপ্টেম্বর রোববার।
গোসলের সময় লাশের শরীরে আঘাতের চিহ্ন দেখে দাফন করা থেকে বিরত থাকে স্বজনরা। আর দ্রুত সটকে পড়ে করম আলীর স্বজনরা। সেলিমের পরিবারের অভিযোগ করম আলী তাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে স্বাভাবিক মৃত্যু চালিয়ে দেয়ার চেষ্টা করছে। আর করম আলীর পরিবার বলছে, অসুস্থ হয়ে সেলিম মারা গেছে। পক্ষদ্বয়ের টানাহেঁচড়ার কারণে গত ৫ দিন ধরে কাফন পরিয়েও দাফন করেনি লাশ। অবশেষে আদালতের নির্দেশে গতকাল বিকালে সরাইল থানা পুলিশ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিতিতে সেলিমের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য প্রেরণ করেছে। নিহতের পরিবার ও স্থানীয় লোকজন জানায়, একই গ্রামের বাসিন্দা সেলিম ও করম আলী একে অপরের বাল্যকালের বন্ধু। তারা দু’জনই ৯-১০ বছর ধরে মালয়েশিয়ায় কর্মরত আছেন। সেলিমের কোনো ব্যাংক হিসাব ছিল না। তার টাকা-পয়সার সব ব্যবস্থা করতেন করম আলী। দেশে ছুটি কাটিয়ে সর্বশেষ গত দেড় বছর আগে হেলিম ও বছর তিন আগে করম আলী মালয়েশিয়া চলে গেছেন। গত ৭-৮ মাস আগে করম আলী হেলিমকে বুঝিয়ে পূর্বের কর্মস্থল থেকে তার কাছে নিয়ে যান। একই কক্ষে থাকতেন তারা দু’জন। গত সেপ্টেম্বর সেখানকার ঈদের দিন সকালে প্রবাস থেকে খবর আসে হেলিম অসুস্থ। চিকিৎসা চলছে। কখনো ব্রেইনে সমস্যা, ভূতপেত্নি ধরেছে, গরুর কাঁচা মাংস খেয়েছে আবার অতিরিক্ত মদপান করে গুরুতর অসুস্থ হওয়ার কথা মুঠোফোনে জানায় করম আলী। সর্বশেষ ১লা সেপ্টেম্বর সকালে সেলিমের সঙ্গে মুঠোফোনে অডিও ভিডিও কথা হয় স্ত্রী ও কন্যা শিল্পীর সঙ্গে। ২রা সেপ্টেম্বর হেলিমের মৃত্যুর সংবাদ আসে। হেলিমের লাশ ঢাকায় পৌঁছে ৯ই সেপ্টেম্বর শনিবার। আর টিঘর গ্রামে তার পরিবারের কাছে পৌঁছে ১০ই সেপ্টেম্বর রোববার সকালে। লাশ দাফনের আগে গোসল করাতে গিয়ে তার স্বজনরা হেলিমের শরীরে অগণিত আঘাতের চিহ্ন দেখে থমকে দাঁড়ায়। তাদের মনে সন্দেহের সৃষ্টি হয়। গোসল শেষে তারা লাশ দাফন করা থেকে বিরত থাকেন। লোকজনের চিৎকার শুনে ঘটনাস্থল থেকে দ্রুত সটকে পড়ে করম আলীর স্বজনরা। সেলিমের পরিবার সন্দেহ করেন করম আলীকে।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

রোহিঙ্গা সঙ্কট সমাধানে চীনের তিন দফা প্রস্তাব

সিএনজি অটোরিকশার ৪৮ঘন্টার ধর্মঘট

শাহজালালে ৩ কোটি টাকা মূল্যের স্বর্ণসহ আটক ১

দীপিকার মাথা কাটলে পুরস্কার ১০ কোটি রুপি!

নিউ ক্যালেডোনিয়ায় ৭ মাত্রার ভূমিকম্প

কেন সৌদি আরব ও ইরান পরস্পরের প্রতিপক্ষ?

বন্দুকের নলের মুখেও ক্ষমতা ছাড়তে রাজি নন মুগাবে

বাংলাদেশের বন্ধু, মার্কিন কূটনীতিক হাওয়ার্ড বি শেফার আর নেই

তারেক রহমানসহ তিনজনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা

গেদে সীমান্তে পিতা-পুত্রের মিলন, আবেগঘন এক দৃশ্য

বিএনপির নেতার বাসার সামনে থেকে বোমা উদ্ধার

‘পুরুষের চেয়ে নারীরা বেশি যৌন নিপীড়ক’

দুদকের মামলায় গ্রেপ্তার পঙ্কজ রায়

কেক কেটে তারেক রহমানের জন্মদিন পালন

মা ও ছেলেকে কুপিয়ে হত্যা করলো যুবক

কানাডার উন্নয়নমন্ত্রী আসছেন মঙ্গলবার